সারোয়ার-তামিম গ্রুপের আরও দুই জঙ্গী গ্রেফতার

ডান্ডিবার্তা রিপোর্ট
ঢাকার সবুজবাগ ও ওয়ারী এলাকা থেকে সারোয়ার-তামিম গ্রুপের সদস্য মোঃ গিয়াসউদ্দিন (৩৪) ও মোঃ লিটন(৩৪) নামের জেএমবি’র দুই সক্রিয় সদস্যকে গ্রেফতার করেছে র্যাব-১১। গত বুধবার রাতে র্যাব সদস্যরা ঢাকার সবুজবাগ ও ওয়ারী এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদেরকে গ্রেফতার করেন। গ্রেফতারকৃত গিয়াস উদ্দিন রূপগঞ্জ থানার সন্ত্রাস দমন আইনের মামলায় ও লিটন বন্দর থানার সন্ত্রাস দমন আইনের মামলার আসামী। গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেলে নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জের আদমজীতে অবস্থিত র্যাব-১১ এর ব্যাটালিয়ান সদর দফতর থেকে র্যাব-১১ এর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শাকিল আহমেদের পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এ তথ্য জানায়।
র্যাব প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে আরো জানায়, গিয়াসউদ্দিন ২০১২ সালের মাঝামাঝি সে জসিম উদ্দিন রাহমানির বাবুর্চি হিসেবে কাজ শুরু করে। এ সময় সে জসিম উদ্দিন রাহমানির উগ্রবাদী বক্তব্য শোনার মধ্য দিয়ে জঙ্গিবাদে উদ্ধুদ্ধ হয়। আরিফ হোসেনের মাধ্যমে সে জেএমবির দাওয়াত প্রাপ্ত হয়ে জেএমবিতে সারোয়ার-তামীম গ্রুপে যোগদান করে এবং দাওয়াতী কাজ শুরু করে। সে পরবর্তীতে ঢাকার বিভিন্ন স্থানে রিক্সা চালাতো এবং মাঝে মাঝে ঢাকার বিভিন্ন হোটেলে বার্বুচির কাজও করত। এই সকল কাজের অন্তরালে সে জেএমবির দাওয়াতী কাজ করে আসছিল। গ্রেফতারকৃত লিটন ২০১২ সালে জসিম উদ্দিন রাহমানির মসজিদে যাতায়াত শুরু করে এবং জঙ্গীবাদে উদ্বুদ্ধ হয়। ২০১৩ সালে জনৈক মুনতাসির এর সাথে তার আত্মীয়তার সম্পর্ক তৈরী হয়। পরে ২০১৫ সালে মুনতাসির এর মাধ্যমে জেএমবির দাওয়াত প্রাপ্ত হয়ে জেএমবিতে সারোয়ার-তামীম গ্রুপে যোগদান করে দাওয়াতী কাজ শুরু করে। সে ছদ¥বেশ ধারন করতঃ ঘন ঘন পেশা ও বাসস্থান পরিবর্তন করে ঢাকার বিভিন্ন এলাকায় জেএমবির দাওয়াতী কাজ করে আসছিল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *