আন্দোলনে নামছে বিএনপির পদ-পদবী প্রত্যাশীরা

ডান্ডিবার্তা রিপোর্ট
চলছে ডিসেম্বর মাস, আসছে ২০১৮ সাল। সরকার পতন আন্দোলনে ইতিমধ্যে শুরু হয়েছে, বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীদের পদ পদবী প্রত্যাশীরা দৌড়ঝাপঁ। কেন্দ্রীয় বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের শীর্ষ নেতৃবৃন্দর কাছে আন্দোলনের মাঠে রয়েছে, থাকছে তা ইতিমধ্যে ফাইল দেখানো প্রতিযোগিতা শুরু হয়েছে। নারায়ণগঞ্জ অভিভাবক সেজে এক কেন্দ্রীয় বিএনপি শীর্ষ নেতা ইতিমধ্যে হঠাৎ তৎপর শুরু করে দিয়েছে। তার নেতৃত্বে জেলা ও মহানগর নেতারা আন্দোলনে মাঠে রয়েছেন। তার কাছ থেকে প্রত্যাশিত পদে জন্য আন্দোলনে মাঠে রয়েছে। নেতা কর্মীরা সূত্রে জানা গেছে, আংশিক নারায়ণগঞ্জ জেলা ও মহানগর বিএনপিতে ঠাঁই পেতে ইতিমধ্যে তাদের পিছনে থেকে পদ আদায়ের চেষ্টা করছে কতিপয় পদ প্রত্যাশীরা। একটি পক্ষ ইতিমধ্যে তাদের সাথে যোগাযোগ থেকে বিরত থাকছে, অপরদিকে তাদের সমর্থকরা আংশিক কমিটিতে যোগ বা সুযোগে পদ আদায়ে লিপ্ত রয়েছে। আংশিক মূল কমিটি দুইটি’র পিছনে নারায়ণগঞ্জ এক অভিভাবকদের আবির্ভাব রয়েছে বলে গুঞ্জন শুনা যায়। নারায়ণগঞ্জ জেলা ও মহানগর বিএনপি কমিটি ১০ মাস অতিক্রম হলেও বিএনপি সকল অঙ্গসংগঠনগুলো ইতিমধ্যে মেয়াদ উর্ত্তীণ হয়ে পড়েছে। সেগুলো শীর্ষ নেতারা ইতিমধ্যে বিএনপি মূল কমিটিতে ঠাঁই নেয়া কারণে অঙ্গসংগঠনগুলোতে ঝিমিয়ে পড়েছে। নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপিতে ঠাইঁ পাওয়া সাংগঠনিক সম্পাদক জাহিদ হাসান রোজেল মেয়াদ উর্ত্তীণ জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের আহবায়ক রয়েছে। আরেক সাংগঠনিক সম্পাদক মাসুকুল ইসলাম রাজীবও মেয়াদ উর্ত্তীণ জেলা ছাত্রদলের আহবায়ক হিসেবে দায়িত্বে রয়েছে। দুইটি কমিটিই নারায়ণগঞ্জে রাজনীতিতে থমকে গেছে। এখন নারায়ণগঞ্জ জেলা ছাত্রদল ও স্বেচ্ছাসেবক দলের কমিটি এখন স্থবিরতা হয়ে রয়েছে। জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের শীর্ষ পদে আসতে ইতিমধ্যে আবু সায়েম ও মাহবুব রহমান মাঠে আন্দোলন শুরু করেছে। দুইজনই জেলা ছাত্রদলের যুগ্ম আহবায়ক পদে রয়েছেন। নারায়ণগঞ্জ মহানগর বিএনপিতে যুগ্ম সম্পাদক পদে রয়েছেন মহানগর যুবদলের আহবায়ক মাকছুদুল আলম খন্দকার খোরশেদ। তিনি ইতিমধ্যে কেন্দ্রীয় কমিটিতে পদত্যাগ করেছেন এবং যুবদলের কমিটিতে থাকতে আগ্রহ প্রকাশ করেছে। পদ পদবী জন্য তিনিও আন্দোলনে মাঠে রয়েছে। শুনা যাচ্ছে, কেন্দ্রীয় যুবদলের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের আশ্বাসে তিনি মহানগরে একটি গুরুত্বপূর্ণ পদে রয়েছে। মহানগর বিএনপির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক মনিরুল ইসলাম সজল ইতিমধ্যে মেয়াদ উর্ত্তীণ মহানগর ছাত্রদলের আহবায়ক পদে রয়েছেন। তিনিও মহানগর যুবদলের একটি গুরুত্বপূর্ণ পদে জন্য আন্দোলন নিয়ে মাঠে কাজ করছেন। মেয়াদ উত্তীর্ণ নারায়ণগঞ্জ জেলা যুবদলের কমিটিও রয়েছে। জেলা ছাত্রদলের সভাপতি পদে পর জেলা যুবদলের সভাপতি পদে অসীন হন মোশাররফ হোসেন। তিনি দীর্ঘ দিন যাবৎ ছাত্রদলের পর যুবদলের শীর্ষ পদে রয়েছেন। তিনিই আগামীতে জেলা যুবদলের সভাপতি পদে থাকতে দৌড়ঝাপ শুরু করেছে। বর্তমান জেলা যুবদলের সাধারণ সম্পাদক শাহ আলম মুকুল, তিনি এবার সোনারগাঁ বিএনপি সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব নিতে পারে। তাহলে আগামীতে জেলা যুবদলের সাধারণ সম্পাদক পদে আসতে পারে কেন্দ্রীয় যুবদলের সাবেক সদস্য সাদেকুর রহমান সাদেক। তিনি কেন্দ্রীয় বিএনপি সহ-আন্তজার্তিক বিষয়ক সম্পাদক নজরুল ইসলাম আজাদের ঘনিষ্ট জন হিসেবে পরিচিত। নারায়ণগঞ্জ জেলা ছাত্রদলের আগামীতে গুরুত্বপূর্ণ পদে আসতে তৎপর শুরু করেছে বর্তমান জেলা ছাত্রদলের যুগ্ম সম্পাদক মশিউর রহমান রনি। তিনি ফতুল্লা থানা বিএনপি ও সদর উপজেলার চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদ বিশ্বাসের ঘনিষ্ট জন। তিনিও আগে পরে আন্দোলনে মাঠে মিছিল মিটিং ও পুলিশের ধাওয়া হজম করতে হয়ে ছিল। মেয়াদ উর্ত্তীণ নারায়ণগঞ্জ মহানগর ছাত্রদলের বেহাল দর্শা থেকে মুক্তি চায় প্রত্যার্শীরা। প্রত্যাশী কয়েক নেতা জানান, আন্দোলন সংগ্রামে আহবায়ক সজলকে অনেক সহযোগিতা দিয়েছে। হামলা মামলা নির্যাতন জেল খাটতে হয়েছে ঈদে। এখনো কেন্দ্রীয় ছাত্রদলের নেতৃবৃন্দরা মহানগরের পূণাঙ্গ কমিটি করে দেয়নি। ফলে আগামীতে ছাত্রদলের নেতৃবৃন্দ বের হতে অনেকটা বেগ পেতে হবে বলে জানায়। ইতিমধ্যে সজলের অনুগত নেতাকর্মীরা আগামী মহানগর ছাত্রদলের কর্মীতে থেকে আন্দোলনে মাঠে থাকবে বলে গুরুত্ব দিয়ে আভাস দেয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *