মাদক নিয়ন্ত্রন ও সন্ত্রাস নির্মূলে পুলিশ সাফল্যের সাথে দায়িত্ব পালন করেছেন : পুলিশ সুপার

ডান্ডিবার্তা রিপোর্ট
জেলা পুলিশ সুপার মঈনুল হক বলেছেন, এই এক বছরের নারায়ণগঞ্জে সবচেয়ে ভালো আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি ছিল। আমাদের সবচেয়ে ভালো অবস্থান ছিল নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশোন নির্বাচনে। আমরা এ নির্বাচন খুব সুন্দরভাবে করতে সর্বাত্মক চেষ্টা করেছি। চট্টগ্রামের পর সবচেয়ে বড় অস্ত্র উদ্ধার ছিল রূপগঞ্জে, যা আমরা বিচক্ষনতা, দক্ষতা ও অনুসন্ধানের মাধ্যমে উদ্ধার করতে পেরেছি। নারায়ণগঞ্জের জেলা প্রশাসক, সকল জজ, আমাদের সংসদ সদস্যরা, সিভিল সার্জনসহ সকলেই আমাদেরকে সহায়তা করেছেন। আমি সকলকেই ধন্যবাদ জানাই। গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যায় নতুন বছর উপলক্ষে পুলিশ লাইনে জেলা পুলিশ কর্তৃক আয়োজিত সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন তিনি। তিনি বলেন, মাদক নিয়ন্ত্রন ও সন্ত্রাস নির্মুলে পুলিশের প্রত্যেকটি সদস্য অত্যন্ত নির্ভরযোগ্যতা ও সাফল্যের সাথে দায়িত্ব পালন করেছেন। বিশেষভাবে দায়িত্ব পালনের জন্য নারায়ণগঞ্জ ডিবির ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সহ তিনজন রাষ্ট্রীয় পুলিশ পদক পিপিএম পদকে ভূষিত হয়েছেন। নারায়ণগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোস্তাফিজুর রহমানও পুলিশ সুপার হয়েছেন এবং দেশের যেকোন জেলায় দায়িত্ব পালন করার মত যোগ্যতা ও দক্ষতা তার রয়েছে। তিনি আরো বলেন, নারায়ণগঞ্জে মাদক নিয়ন্ত্রনে আমরা সফলতা পেয়েছি। নারায়ণগঞ্জের মাদকের কলঙ্কিত ৪ ব্যক্তির তিনজনই পুলিশের এনকাউন্টারে নিহত হয়েছে। এ ছাড়াও অনেক সন্ত্রাসী ও মাদক ব্যবসায়ী আইনের আওতায় আছে, জেলহাজতে আছে। সন্ত্রাস নির্মুল ও জঙ্গী নির্মুলে আমাদেরকে একসাথে কাজ করতে হবে এবং আমার বিশ্বাস আমরা তা করতে পারবো। এসপি বলেন, আমাদের সর্বশেষ অর্জন হচ্ছে মানুষের চলাচলের যে সড়ক সেখানে হকাররা যে প্রতিবন্ধকতার সৃষ্টি করেছিল তা অপসারণ করা। এখন মানুষ স্বাচ্ছন্দ্যে চলাচল করতে পারছে। আমি আমাদের অগ্রগতির জন্য সকলের কাছে দোয়া প্রার্থনা করি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *