আজ : মঙ্গলবার: ১১ বৈশাখ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | ২৪ এপ্রিল ২০১৮ ইং | ৭ শাবান ১৪৩৯ হিজরী | সকাল ৯:১০
BADAL
শিরোনাম
ডিএনডি’র জলাবদ্ধতায় পঞ্চাশ বিঘা জমির ধান পানির নিচে-❋-আওয়ামীলীগে কোন্দল সৃষ্টিকারীদের কেন্দ্রীয় হুশিয়ারি...-❋-হকার ইস্যুতে আবারও অশান্ত হওয়ার পথে নারায়ণগঞ্জ !-❋-ঢাকা-পাগলা-নারায়ণগঞ্জ পুরাতন সড়কের বেহাল দশা রোদে ধুলা-বৃষ্টিতে কাদায় জনভোগান্তি-❋-লন্ডনের কার্টেজ হোটেলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে সোনারগাঁয়ের উন্নয়ন নিয়ে ইঞ্জিনিয়ার শফিকুলের সাথে আলোচনা-❋-সকল মানুষেরই প্রাণের মায়া আছে :লিপি ওসমান-❋-নারায়ণগঞ্জে জাতীয় পুষ্টি সপ্তাহের উদ্বোধনীতে ডিসি : ফাস্টফুড আমাদের দেহের জন্য ক্ষতিকর-❋-সাড়ে চার কোটি টাকার মাদক ধ্বংস !-❋-মাঠে নামার প্রস্তুতিতে নারায়ণগঞ্জ বিএনপি-❋-ওয়াসার দুর্গন্ধযুক্ত পানি ব্যবহারের অযোগ্য ॥ সীমাহীন ভোগান্তিতে নারায়ণগঞ্জবাসী
20

স্ত্রীকে হত্যার পর স্বামী আতœহত্যা যে কারণে

Habibor badal | ১১ এপ্রিল, ২০১৮ | ১:১২ পূর্বাহ্ণ

 

সিদ্ধিরগঞ্জ প্রতিনিধি

সিদ্ধিরগঞ্জের শিমরাইলে স্ত্রীকে হত্যা করে স্বামীর আতœহত্যার নেপথ্যে এক বখাটে যুবক ও তিন বিএনপি নেতার প্রহসন মূলক বিচার। স্ত্রীর প্রতি কূ-দৃষ্টিকারী এক বখাটে যুবককে লাঠি দিয়ে আঘাত করে মাথা ফাটানোর অপরাতে বিএনপি নেতা আক্কাস, মনির ও সেলিম মাহমুদ রেজাউল করিমকে মারধর ও ৮ হাজার টাকা জরিমানা করার পর দিনই রেজাউল তার স্ত্রীকে হত্যা করে নিজেও বিষ পানে আতœহত্যা করার ঘটনায় এলাকায় ক্ষোভ বিরাজ করছে। জানা গেছে, প্রেম করে পালিয়ে বিয়ে করে সংসার শুরু করে রেজাউল করিম ও মীম আক্তার। এই প্রেমিক দম্পত্তি নাসিক ৪ নং ওয়ার্ড শিমরাইল এলাকায় বাসা ভাড়া নেয়। রেজাউল পিক-আপ ভ্যান গাড়ি চালিয়ে সংসারের খরচ চালাতো। প্রেম করে পালিয়ে এসে বিয়ে করার বিষয়টি জানতে পেরে স্থানীয় এক বখাটে যুবক রেজাউলের স্ত্রী মীম আক্তারের প্রতি কূ-দৃষ্টি দেয়। বিষয়টি টের পেয়ে স্ত্রীর প্রতি সন্দেহ দেখা দেয় রেজাউলের। এতে তারা স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে সৃষ্টি হয় বিরোধ। এ অবস্থায় কয়েকদিন আগে ওই যুবক রেজাউলের ভাড়া বাসায় গিয়ে স্ত্রী মীমের সাথে কথা বলা অবস্থায় দেখতে পেয়ে নিজেকে নিয়ন্ত্রন করতে না পেরে লাঠি দিয়ে আঘাত করে যুবকের মাথা ফাটিয়ে ফেলে। এ ঘটনায় এলাকার বিএনপি নেতা আক্কাস, মনির ও সেলিম মাহমুদ মিলে বখাটে যুবকের পক্ষ নিয়ে গত ৬ এপ্রিল গ্রাম্য বিচার সালিশ বসে। বিচারে স্ত্রীর প্রতি কূ-দৃষ্টির বিষয়টি পাশ কাটিয়ে মাথা ফাটানোর অপরাধে রেজাউলকে মারধর ও ৮ হাজার টাকা জরিমানা করে বিচারকরা। এই প্রহসনমূলক বিচার আর ওই যুবকের সাথে পরকীয়া সন্দেহে রেজাউল গত ৮ এপ্রিল রোববার দিবাগত রাতে স্ত্রী মীমের সাথে ঝগড়া করে। এক পর্যায় স্ত্রী মীমকে শ্বাসরোদ্ধ করে হত্যা করার পর নিজেও আতœহত্যা করার জন্য বিষপান করে। বিষপানে গুরুতর অসুস্ত রেজাউলকে স্ত্রী হত্যার অভিযোগে পুলিশ আটক করে চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করে। পরে চিকিৎসাধিন অবস্থায় গত সোমবার বিকেলে রেজাউল করিম মারা যায়। স্বামী-স্ত্রীর এই অকাল মৃত্যুকে প্রহসন মূলক বিচার আর ওই বখাটে যুবককেই দায়ি করছে স্থানীয়রা। তাই সঠিক তদন্ত সাপেক্ষে স্বামী-স্ত্রীর মৃত্যুর আসল কারণকে প্রাধান্য দিয়ে হত্যা বা আতœহত্যার প্ররচনাকারীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যাবস্থা গ্রহন করার জন্য প্রশাসনের প্রতি দাবি জানিয়েছেন সচেতন মহল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *