উস্কানীতেই দুই গ্রুপের সংর্ঘষ

ডান্ডিবার্তা রিপোর্ট
হকার বসানো ও উচ্ছেদ নিয়ে নারায়ণগঞ্জ শহরের চাষাঢ়ায় বঙ্গবন্ধু সড়ক গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে রণক্ষেত্রে পরিণত হয়। ওই সময়ে হকারদের পক্ষে আওয়ামী লীগের একাংশ ও হকারদের বিপক্ষে সিটি করপোরেশনের মেয়র সেলিনা হায়াৎ আইভী সহ অন্যরা অবস্থান নিলে ওই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। উভয় পক্ষ একে অপরকে লক্ষ্য করে বৃষ্টির মত ইটপাটকেল নিক্ষেপ করতে থাকে। বন্ধ হয়ে যায় শহরের সকল দোকানপাট ও

হকারদের বিক্ষোভে আবারও সংঘর্ষের আশংকা

ডান্ডিবার্তা রিপোর্ট
নারায়ণগঞ্জের হকার ইস্যুতে সংঘর্ষের পর পুরো শহর এখন অনেকটা থমথমে পরিস্থিতি বিরাজ করছে। যদিও যানচলাচল স্বাভাবিক রয়েছে। এদিকে বিবি (বঙ্গবন্ধু) সড়কে হকারদের বসতে না দেয়ার সিদ্ধান্তে হকাররা বিক্ষোভে ফেটে পড়ে। এতে করে হকারদের মধ্যে আবারো উত্তেজনা বিরাজ করছে। এ নিয়ে হকার ইস্যুতে উত্তেজনা ফের সংঘর্ষের রুপ নিতে পারে বলে উভয়পক্ষ মনে করছেন।

ডিসি এসপির প্রত্যাহার দাবী রাজনৈতিক ‘স্ট্যান্টবাজি’

ডান্ডিবার্তা রিপোর্ট
শহরের হকার ইস্যুতেগত মঙ্গলবার সংঘর্ষের ঘটনার পর জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপারের প্রত্যাহার দাবী নিয়ে সিটি করপোরেশনের মেয়র সেলিনা হায়াৎ আইভীর বক্তব্যের প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন সেলিম ওসমান। গত মঙ্গলবার সংঘর্ষের পর তাৎক্ষনিক প্রতিক্রিয়ায় জেলা প্রশাসক ও জেলা পুলিশ সুপারের প্রত্যাহার দাবী করেন সেলিনা হায়াৎ আইভী। তিনি অভিযোগ করে বলেছেন, ডিসি প্রধানমন্ত্রীর

আইভীর সাথে জোড়া খুনের আসামীরা কেন প্রকাশ্যে?

ডান্ডিবার্তা রিপোর্ট
ফতুল্লার জোড়া খুনের আসামীরা এখনো ধরা না পড়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন এমপি শামীম ওসমান সেই সঙ্গে তিনি এ ঘটনায় প্রশাসনেরও সমালোচনা করেছেন। তিনি বলেছেন, জোড়া খুনের আসামীরা প্রকাশ্যে ঘুরছে কিন্তু পুলিশ তাদের ধরছে না। অথচ এসব খুনীদের দেখা যাচ্ছে আমাদের নৌকা প্রতীকের মেয়র সেলিনা হায়াৎ আইভীর সঙ্গে। বিদায়ী বছরে নারায়ণগঞ্জে আলোচিত ছিল ফতুল্লার কাশিপুরের আলোচিত

বিএনপি ক্যাডার দিয়েই নিয়াজুলকে পেটানো হয়েছে

ডান্ডিবার্তা রিপোর্ট
শহরে ফুটপাতে হকার বসানো ও উচ্ছেদ নিয়ে সৃষ্ট সংঘর্ষের ঘটনা নিয়ে সংবাদ সম্মেলন করেছেন এমপি শামীম ওসমান। তিনি বলেন, প্রকৃত ঘটনা অনেকেই উপস্থাপন করেনি। বিএনপি ক্যাডার ও জোড়া খুনের আসামী বেষ্টিত হয়ে আইভীর মিছিল থেকে গুলি করা হয়েছে। গতকাল বুধবার বিকেলে শহরের চাষাঢ়ায় রাইফেল ক্লাবে সংবাদ সম্মেলনে শামীম ওসমান এসব কথা বলেন। ওই সময়ে তিনি ঘটনার

আওয়ামীলীগ থেকে বহিস্কার হচ্ছেন কে?

ডান্ডিবার্তা রিপোর্ট
নারায়ণগঞ্জ হকার ইস্যুকে কেন্দ্র করে গতকাল মঙ্গলবার হকার ও তাদের সমর্থকদের সাথে আইভী পন্থীদের সোয়া ঘন্টা ব্যাপী সংঘর্ষের পর গতকাল বুধবার সাংসদ শামীম ওসমান ও মেয়র সেলিনা হায়াত আইভীকে আওয়ামীলীগের হাইকমান্ড ঢাকায় তলব করা করেছে। গতকাল দুপুরে ধানমন্ডীতে বঙ্গবন্ধু ভবনে আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পদক এদের তলবের কথাটি নিশ্চিত করেন। এদিকে এ ঘটনা তদন্তে ৩ সদস্যের

এবার কি জবাব দিবেন মেয়র আইভী?

ডান্ডিবার্তা রিপোর্ট
হকার ইস্যুতে সংঘর্ষের সময় নিজের সাথে থাকা কর্মীদের নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন মেয়র ডা: সেলিনা হায়াত আইভী নিরস্ত্র দাবী করলেও তার সাথে থাকা দুইজন ব্যাক্তিও যে অস্ত্র নিয়ে গুলি বর্ষণ করেছেন, তার প্রমাণ গণমাধ্যম কর্মীদের দেখিয়ে দিয়েছেন নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সাংসদ (ফতল্লা-সিদ্ধিরগঞ্জ) আলহাজ¦ এ কে এম শামীম ওসমান। গতকাল বুধবার বিকেলে নারায়ণগঞ্জ রাইফেলস্ ক্লাবে সংবাদ

আমার কর্মীরা মার খেয়েছে, আমি মামলা করবো

ডান্ডিবার্তা রিপোর্ট
নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের মেয়র সেলিনা হায়াত আইভী এক প্রেস ব্রিফিংয়ে বলেন, আমাকে হত্যার জন্যই এভাবে স্বশস্ত্র হামলা করা হয়েছে। আমার কোনো ঝগড়া করার উদ্দেশ্য ছিল না। কার উস্কানিতে এভাবে হামলা করা হয়েছে, সেটা তদন্ত করে দেখার প্রয়োজন রয়েছে। আর এজন্য আমি আইনগত ব্যবস্থা নিবো। গতকাল বুধবার নিজ কার্যালয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নে জবাবে তিনি এসব কথা বলেন। এসময় আইভী

বিএনপি জামাত ক্যাডারদের নিয়ে গুলি ছুড়েছে

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি
নারায়ণগঞ্জ শহরে গত মঙ্গলবার হকারদের সাথে আইভীর সমর্থকদের সংঘর্ষের পর গতকাল বুধবার এমপি শামীম ওসমান বক্তব্য দিয়েছেন। এমপি শামীম ওসমান সংবাদ সম্মেলনে গত মঙ্গলবারের ঘটনার জন্য মেয়র আইভীকে দায়ি করে বলেন, তিনি নিজেই বলেছেন নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলনের উদ্দ্যোশে এসেছিলেন। তাই যদি হয় তবে প্রেসক্লাব থেকে সায়াম প্লাজা প্রায় ৫শ’ গজের দুরত্বে কেন

কৌশলে আছেন ইকবাল ও মমতাজ

ডান্ডিবার্তা রিপোর্ট
একাদশ জাতীয় নির্বাচনের দিন যতই ঘনিয়ে আসছে, আড়াইহাজারে দলটির মনোনয়নপ্রত্যাশীরা ততই তৎপর হয়ে ওঠছেন। তবে দুইনেতার কর্মী-সমর্থকদের নানা কর্মকান্ডের ক্রমেই উত্তপ্ত হয়ে ওঠছে রাজনৈতিক পরিস্থিতি। প্রার্থীদের সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে ছড়াচ্ছে চরম উত্তেজনা। ক্রমাগতই চলছে স্ট্যাটাস যুদ্ধ। কেউ কাউকে ছাড় দিচ্ছে না। ব্যবহার হচ্ছে নানা অকথ্য ভাষাও। অনেকেই মন্তব্য করছেন আওয়ামী লীগের