পবিত্র শব-ই-বরাত রাতে আল্লাহর নিকট মুসল্লীদের অনুগ্রহ প্রার্থনা

 

 

 

ডান্ডিবার্তা রিপোর্ট

রাতভর ইবাদতের মাধ্যমে নারায়ণগঞ্জবাসী মহান আল্লাহ তালার কাছে কৃপা চেয়েছেন। শহর ও শহরতলীর বিভিন্ন মসজিদে রাতভরই ছিল মানুষ। এছাড়া কবরস্থানগুলোতেও ছিল প্রচুর মানুষ। কবরে শায়িতদের জন্য দোয়া চেয়েছেন। ফজরের নামাজ পর্যন্ত ছিল ধর্মপ্রাণ মুসল্লীদের উপস্থিতি। পবিত্র শাবান মাসের রাত অর্থাৎ ১৪ই শাবান দিবা অবসানে যে রাতের শুরু মুসলমানরা তাকে পবিত্র শব-ই বরাত হিসাবে পালন করে। শবে বরাত হলো আরবি লায়লাতুল বরাতের ফারসি তরজমা। আরবি-ফারসি প্রভাবিত মুসলিম অঞ্চলে দুই নামেই দিনটি পরিচিত। এর বাংলা তরজমা করলে রাতটিতে ভাগ্য রজনী বলা যায়। আরো ব্যাখ্যা করে বললে বলতে হয় এটি হলো মানুষের ভাগ্য নির্ধারনের রাত। বিশ্বাসীরা মনে করে এই রাতেই আল্লাহ রাব্বুল আলামিন তার বান্দার পরবর্তী এক বছরের রিজিক নির্ধারিত করে থাকেন। শুধু ভাগ্য নির্ধারন নয় এই রাতের এবাদৎ বন্দেগীতে রয়েছে অশেষ ফজিলত। তাই ধর্ম প্রাণ মুসলিমরা এ রাতে বেশি বেশি ইবাদত করে থাকেন। অনেকে নফল নামায আদায়, কোরআন তেলওয়াত, জিকির-আজগার করেন। এই রাতের এবাদত মৃতদের জন্যও কার্যকর বলে মৃত ব্যক্তির স্বজনরা আপনজনের মাগফেরাত কামনায় কবর জেয়ারতসহ নানান এবাদত বন্দেগী করে থাকেন। একজন মোমিন এই রাতে এবাদতের মাধ্যমে রাত জাগেন আর মহান আল্লাহপাকের সন্তষ্টি লাভের চেষ্টা করেন। অনেকেই দিনের বেলায় রোজা থাকেন।

 

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *