রমজান মাসেও আতঙ্কিত নগরবাসী !

 

ডান্ডিবার্তা রিপোর্ট

রমজান মাস আসলেই নারায়ণগঞ্জবাসীদের মধ্যে আতংক দেখা দেয়। এই পবিত্র রমজান মাসেও নারায়ণগঞ্জবাসীরা আতংকের মধ্য দিয়ে দৈনন্দিন জীবন অতিবাহিত করেন। পবিত্র এই মাসে যথাযথ কর্তৃপক্ষের দায়িত্বহীনতার কারণে ভোগান্তীর মধ্যে একটি মাস অতিবাহিত করতে হয়ে। এই মাসকে কেন্দ্র করে নারায়ণগঞ্জে অপরাধীদের সংখ্যা তিনগুণ হয়ে যায়। অনুসন্ধানে জানাগেছে, রমজান মাস আসলেই নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যের দাম বৃদ্ধি, ভেজাল খাদ্য, যানজট বৃদ্ধি, ছিনতাইকারী, জাল টাকা চক্র, অজ্ঞান পার্টি, মলম পার্টির তৎপরতা বেড়ে যায়। এতে করে অন্য এগার মাসের চেয়ে এই এক মাস আতংকে দিন কাটায়। রমজানের শুরুতেই বাজারে নৃত্য প্রয়োজনীয় পণ্যের মূল্য দিগুন হয়ে যায়। বাজার নিয়মিত মনিটরিং না করায় একটি চক্র অধিক লাভের জন্য নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যের মূল্য বৃদ্ধি করে দেয়। এতে করে সাধারণ মানুষ ভোগান্তির মধ্যে পড়তে হয়। প্রথম রমজান থেকেই শহরের বিভিন্ন স্থানে ইফতারি বিক্রি করতে দেখা যায়। আর প্রতিটি দোকানেই ক্ষতিকর রং ও ক্যামিকেল ব্যবহার করা হচ্ছে। প্রয়োজনীয় মত ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালিত না হওয়ায় নগরবাসী ভেজাল খাদ্যই ক্রয় করে তা গ্রহণ করছেন। এসে করে রোগে আক্রান্ত হচ্ছে নগরবাসী। যানজটের সমস্যা নগরবাসীর জন্য নিত্য দিনের সঙ্গীতে পরিনত হলেও রমজানে তা আরো বহু গুণ বেড়ে যাবে। একই সাথে বেড়ে যায় ছিনতাইকারী, জাল টাকা চক্র, অজ্ঞান পার্টি, মলম পার্টির তৎপরতা। শহরের বিবি রোডের প্রায় সবগুলি স্পটে ছিনতাইকারীরা উৎপেতে থাকে। একই সাথে মলম পার্টিরাও মাঠে নেমে পড়ে। কেননা ঈদকে সামনে রেখে রমজানেই কেনাকাটা করতে মার্কেটে আসে র্সস্তরের মানুষ। সাড়া বছর যে পরিমান জাল টাকা বাজারে আসে তার ৮০ শতাংশ সরবাহ করা হয় রমজান মাসে। এছাড়াও রমজানে চাঁদাবাজ ও সন্ত্রাসীরাও তৎপর হয়ে উঠেছে। ঈদকে ঘিরে জেলা জুড়ে এসব অপরাধীরা ছদ্ববেশ ধারন করে নানা অপরাধের সাথে জড়িয়ে পরেছে। এসব অপরাধের সাথে অনেক ভদ্রবেশী অপরাধীরাও রয়েছে। রমজান ঘিরে অপরাধীদের তৎপরাতায় শঙ্কিত হয়ে পরেছে সাধারন মানুষ। অন্যদিকে, ঈদকে সামনে রেখে রমজানেই মাদক ব্যবসায়ীরাও সক্রিয় রয়েছে। রমজানে অভিনব কৌশলে মাদকের বড় বড় চালান নিয়ে আসা হয় নারায়ণগঞ্জে। বিত দিনের ন্যায় এবারও মাদক ব্যবসায়ীদের মধ্যে প্রস্তুতি চলছে বলে বিভিন্ন সূত্রে জানাগেছে। আর মার্কেট গুলোতে পকেটমার ও ছিনতাইকারীদের তৎপরতা বেড়ে যায়। নগরীতে সংগঠিত একটি চক্র মার্কেট গুলোর সামনে অবস্থান নিয়ে নিজেদের কাজ লালিয়ে যাচ্ছে। চক্রটি এবার নতুন করে প্রশিক্ষণ দিয়ে মহিলা সদস্যদের মাঠে নামিয়েছে। যার ফলে গণধোলাই থেকে রক্ষা পাওয়াসহ অনেক সুবিধা পাচ্ছে। শহরের বাস স্ট্যান্ড, লঞ্চ টার্মিনাল ও রেল ষ্ট্রেশনে এরা অবস্থান নিয়েছে বলে জানাগেছে। এদিকে রমজান মাসে জনভোগান্তি কমাতে গত সোমবার মত বিনিময় সভা করেছে নারায়ণগঞ্জ পুলিশ সুপার। সকালে পুলিশ সুপারের সভা কক্ষে আলোচনা সভায় সকলে সহযোগীতা চেয়েছেন পুলিশ সুপার। এর আগে গত রবিবার মাসিক আইনশৃঙ্খলা মিটিংএও রমজানকে সামনে রেখে বিভিন্ন উদ্যোগের কথা জানিয়েছেন জেলা প্রশাসকের প্রতিনিধিরা। এদিকে, রমজান শুরুতেই বিদ্যুতের সমস্যা দেখা দেয়। রহস্যজনক কারণে সেহেরী ও ইফতারের সময় বিদ্যুৎ থাকে না। বিগত সময় গুলোতেও ভয়াবহ লোডশেডিংয়ের এমন সমস্যা দেখা দিয়েছে। গত কয়েক মাস বিদ্যুৎ স্বাভাবিক অবস্থায় থাকলেও গতকাল মঙ্গলবার থেকেই ঘন ঘন লোডশেডিং হচ্ছে।

 

 

 

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *