প্রধানমন্ত্রীর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসেও কর্মসূচীহীন ছিল নারায়ণগঞ্জ আওয়ামীলীগ

 

 

ডান্ডিবার্তা রিপোর্ট

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কন্যা প্রধানমন্ত্রী ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার ৩৮তম স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস ছিল গতকাল বৃহস্পতিবার। ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট ঘাতকরা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে স্বপরিবারে হত্যা করে। বঙ্গবন্ধুর দু’কন্যা শেখ হাসিনা ও শেখ রেহানা বিদেশে থাকার কারণে ঘাতকের হাত থেকে রক্ষা পান। বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পর স্বাধীন-সার্বভৌম বাংলাদেশে মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে মুছে দিতে বাঙালি জাতির অস্তিত্বকে বিপন্ন করতে বঙ্গবন্ধুর হত্যাকারীরা শুরু করে নানামুখী ষড়যন্ত্র। বাঙালি জাতির জীবনে নেমে আসে অন্ধকার। ১৯৮১ সালের ১৭ মে বঙ্গবন্ধু কন্যা দীর্ঘ ৬ বছর নির্বাসন জীবন শেষে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশে ফিরে আসেন। আওয়ামী লীগের জন্য এমন একটি ঐতিহাসিক দিনে কোন কর্মসূচি নেয়নি নারায়ণগঞ্জ জেলা ও মহানগর আওয়ামীলীগ। তবে এর মাঝে ব্যতিক্রম শুধু মহানগর ছাত্রলীগ ও আইনজীবী সমিতি। তারা মিষ্টি বিতরণ ও দোয়ার আয়োজন করেছে। এবিষয়ে নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আবদুল হাই বলেন, আওয়ামী লীগ সভাপতি বঙ্গবন্ধুকন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষ্যে নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের পক্ষে থেকে কোন কর্মসূচি নেয়া হয়নি। এদিকে মহানগর মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি আনোয়ার হোসেনকে ফোন করলে তিনি ব্যস্ত থাকায় কথা বলা সম্ভব হয়নি। নারায়ণগঞ্জ জেলা তাতীঁ লীগের সভাপতি ও নারায়ণগঞ্জ জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি হাসান ফেরদৌস জুয়েল বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস, বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ও আওয়ামীপন্থী আইনজীবীদের বিজয় উপলক্ষ্যে আইনজীবী সমিতিতে দোয়া ও মিষ্টি বিতরণ করা হয়েছে। নারায়ণগঞ্জ জেলা যুবলীগের সভাপতি আবদুল কাদির বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস যুবলীগের পক্ষ থেকে কোন কর্মসূচি নেই। দিকে মহানগর ছাত্রলীগের সভাপতি হাবিবুর রহমান রিয়াদ বলেন, আমরা আওয়ামী লীগ সভাপতি বঙ্গবন্ধুকন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষ্যে মসজিদে মসজিদে মিলাদ ও দোয়ার আয়োজন করেছি। শ্রমিকলীগের সভাপতি কাজিম উদ্দিন বলেন, কেন্দ্র থেকে কোন কিছুই জানায় নি। তাই আওয়ামী লীগ সভাপতি বঙ্গবন্ধুকন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষ্যে কোন কর্মসূচির আয়োজন করিনি। নারায়ণগঞ্জ মহানগর কৃষক লীগের সাধারণ সম্পাদক জিল্লুর রহমান লিটন বলেন, আগামী কাল পবিত্র মাহে রমজান হওয়ায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস কিছুটা ভাটা পরেছে। আগামীকাল রমজান না থাকলে অন্তত একটি র‌্যালির আয়োজন করা হতো। তবে বিকালে পার্টি অফিসে মিলাদ অনুষ্ঠিত হতে পারে।

 

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *