এই বিভাগের নিউজ

আগামী নির্বাচনে মনোনয়ন প্রত্যাশীদের দৌঁড়ঝাপের পরও চমক থাকছে

Badal-nj | ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ | ৫:৩০ অপরাহ্ণ

ডান্ডিবার্তা রিপোর্ট
আগামী জাতীয় নির্বাচনকে সামনে রেখে আওয়ামীলীগের তথা মহাজোটের মনোনয়ন প্রত্যাশীরা কেন্দ্রে দৌঁড়ঝাপ বন্ধ করেনি। বিভিন্ন সূত্র জানায়, ইতিমধ্যে শতাধিক আসনে আওয়ামীলীগের প্রার্থী নিশ্চিত করা হয়েছে। যার মধ্যে নারায়ণগঞ্জের ২টি আসনে আওয়ামীলীগের প্রার্থী নিশ্চিত করা হয়েছে। যদিও এনিয়ে আওয়ামী মহলে বাক বিতন্ডা চলছে। নির্বাচন যত ঘনিয়ে আসছে মনোয়ন প্রত্যাশীদের তৎপরতা ততটাই বাড়ছে। নারায়ণগঞ্জের ৫টি আসনের মধ্যে ২টি আসনে মহাজোটের সাংসদ রয়েছে। রূপগঞ্জ ও সোনারগাঁ আসনের প্রার্থীদের নিয়ে রয়েছে বির্তক। তারপরও থেমে নেই মনোয়ন প্রত্যাশীরা। এদিকে এবারের নির্বাচনে চমক আসার সম্ভাবনাই বেশী। তাই মনোনয়ন প্রত্যাশীদের ঘুম হারাম হয়ে গেছে। নারায়ণগঞ্জের ৫টি সংসদীয় আসন থেকে আওয়ামীলীগের অন্তত মনোনয়ন প্রত্যাশি রয়েছে ২৫ জন। ৫টি আসনের মধ্যে দুটি আসনে রয়েছে আওয়ামীলীগের নেতৃত্বে মহাজোটের শরীক দল জাতীয়পার্টির এমপি। ইতিপূর্বে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঘোষণা দিয়ে বলেছেন, আমরা বন্ধু হারাবনা। অর্থাৎ মহাজোট অটুট থাকবে। আর মহাজোট অটুট থাকলেও জাতীয়পার্টির বর্তমান দুই এমপিকেই বহাল রাখবে বলে ধারনা করছে স্থানীয় নেতারা। যদিও সোনারগাঁ আসনে মহাজোট প্রার্থী নিয়ে রয়েছে আলোচনা সমালোচনা। এ আসনে এরশাদের পালিত কন্যা অনন্যা হুসাইন মৌসুমী আটঘাট বেধে মাঠে নেমেছেন। তাছাড়া আওয়ামীলীগের একটি অংশ এই আসনে শক্তিশালী প্রার্থী দেওয়ার পক্ষে। এদিকে বর্তমান এমপিদের সরিয়ে মনোনয়ন বাগিয়ে আনার জন্য বিভিন্ন কৌশল অবলম্বন করে চলেছেন মনোনয় প্রত্যাশীরা। এর কারন হিসেবে নেতাকর্মীরা বলছেন- জেলার ৫টি আসনের ৫ জন এমপি যারা স্থানীয়ভাবে ও কেন্দ্রীয়ভাবেও পোক্ত অবস্থানে রয়েছেন। তবে অন্যরাও হাল ছাড়ছেন না। তারাও ছুটছেন কেন্দ্রীয়ভাবে তাদের অবস্থান পোক্ত করে বর্তমান কোন এমপিকে সরিয়ে নিজে মনোনয়ন বাগিয়ে আনতে। এই ৫ এমপির বিকল্প হিসেবে তাদের চেয়ে জনপ্রিয় নেতা নারায়ণগঞ্জের ৫টি আসনে নেই বললেই চলে। যদিও এমপিদের সঙ্গে স্থানীয় নেতাকর্মীদের মনোমালিন্যের কারনে বেশকিছু নেতাকর্মী এমপিদের থেকে কিছুটা দূরে রয়েছেন। সেই দূরত্ব কমিয়ে আনতে নেতাকর্মীদের সংগঠিত করার কাজটাও করে যাচ্ছেন স্থানীয় এমপিরা। আবার মহাজোটের এমপিরাও চাচ্ছেন আওয়ামীলীগের সঙ্গে দূরত্ব কমিয়ে আনতে। ইতিমধ্যে সদর-বন্দর আসনের সাংসদ সেলিম ওসমান আওয়ামীলীগের নেতা-কর্মীদের সাথে দুরত্ব অনেকটাই কমিয়ে এনেছেন। রূপগঞ্জ আসনে আওয়ামীলীগের এমপি রয়েছেন গাজী গোলাম দস্তগীর। তিনি টানা দুইবার আওয়ামীলীগের মনোনয়ন নিয়ে এ আসনে এমপি নির্বাচিত হন। এখানে উপজেলা আওয়ামীলীগের অধিকাংশ নেতাকর্মীরা রয়েছেন এমপি গাজীর সঙ্গে। যদিও এখানকার আওয়ামীলীগের সেক্রেটারি উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শাহজাহান ভুইয়ার সঙ্গে এমপির দূরত্ব রয়েছে অনেকটা। তিনি এমপি বিরোধী হিসেবেই পরিচিত। একাধিকবার দুজনকে কোলাকুলি করে মিলিয়ে দিলেও সেই মিলন তাদের হয়নি। ইতিমধ্যে বেশকটি হত্যাকান্ডের ঘটনাও ঘটে গেছে এখানে। এছাড়া সাংসদ গাজীর বিরুদ্ধে সরকারী ভ’মি আত্মসাতের অভিযোগও রয়েছে। তাছাড়া এমপি গাজীর বিরুদ্ধে নেতা-কর্মীদের সাথে দুরত্ব সৃষ্টিতে জেলা আওয়ামীলীগের কতিপয় নেতা নিয়মিত কাজ করে চলেছেন। এমপি গাজীর সাথে মিডিয়া রয়েছে বিরাট দূরত্ব। জেলা পর্যায়ের সংবাদকর্মী কিংবা নারায়ণগঞ্জ থেকে প্রকাশিত প্রচারবহুল দৈনিকগুলির সাথে তার তেমন একটা যোগাযোগ নেই বললেই চলে। শাহজাহান ভুইয়া কায়েতপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম রফিককে নিয়ে মাঠে নেমেছেন। তার সাথে যোগ দিয়েছেন জেলা আওয়ামীলীগের বেশ কয়েকজন নেতা। যারা রফিকুল ইসলামকে লাইম লাইটে আনতে কাজ করে চলেছেন। যদিও রফিক আওয়ামীলীগে নতুনমুখ হিসেবে পরিচিত। এখানে আওয়ামীলীগের মনোনয়ন চাইতে পারেন সাবেক এমপি কেএম শফিউল্লাহ। কিন্তু তাকে এখানে কোন নির্বাচনী প্রচারণায় দেখা যায় না। জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আবদুল হাইয়ের নাম আসলেও তিনি দাবি করেছেন তিনি একই সঙ্গে সদর-বন্দর আসনেও মনোনয়ন চাইবেন। তবে তিনি কোন আসনেই নির্বাচন করার প্রস্তুতি নিতে দেখা যাচ্ছে না। আড়াইহাজার আসনে আওয়ামীলীগের এমপি নজরুল ইসলাম বাবু। তিনি কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক। টানা দুইবার তিনি এই আসনে আওয়ামীলীগের মনোনয়ন নিয়ে এমপি নির্বাচিত হন। এখানে নিয়মিত গণসংযোগ করছেন জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ইকবাল পারভেজ। কিছু নেতাকর্মী এমপি বাবুর সঙ্গে দূরত্ব সৃষ্টি হয়েছে যাদের কিছু অংশ ইকবাল পারভেজ টেনে নিয়েছেন। আবার কিছু নেতা কারো সঙ্গেই নাই। এমপি বাবু নেতাকর্মীদের সঙ্গে তার এই দূরত্ব কমিয়ে আনার চেষ্টা করছেন। কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের রাজনীতির মাধ্যমে উত্থান এমপি বাবুর সঙ্গে কেন্দ্রীয় নেতাদের সঙ্গে বেশ সখ্যতা রয়েছে। এখানে মনোনয়ন চাইবেন এমন গুঞ্জন রয়েছে সাবেক রাষ্ট্রদূত মমতাজ হোসেন। তিনি নির্বাচনী মাঠে নেই। সাবেক এমপি এমদাদুল হক ভুইয়া কাজ করছেন ইকবাল পারভেজের পক্ষে। ইকবাল পারভেজ হাল ছাড়ছেন না। এখানে গত বছরেই জাতীয়পার্টির মনোনিত প্রার্থী হিসেবে জাতীয়পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদ এ আসনে আলমগীর সিকদার লোটনের নাম ঘোষণা করে যান। এখানে লোটনের এমপি বাবু ও ইকবাল পারভেজের মত জনপ্রিয়তা নেই। সোনারগাঁ আসনে মহাজোটের এমপি হিসেবে রয়েছেন কেন্দ্রীয় জাতীয়পার্টির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব লিয়াকত হোসেন খোকা। প্রথমবারের মত তিনি ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারির নির্বাচনে এমপি হন। ওই নির্বাচনে এখানে আওয়ামীলীগের মনোনয়ন পান উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান মোশারফ হোসেন। ওই নির্বাচনে এ আসনটি জাতীয়পার্টিকে ছেড়ে দিলে এখানে এমপি হন খোকা। এ আসনে আওয়ামীলীগের প্রায় ৮ জন মনোনয়ন প্রত্যাশি নেতা রয়েছেন যাদের মধ্যে বেশকজন মাঠে নির্বাচনী প্রচারণায় রয়েছেন। সাবেক এমপি আব্দুল্লাহ আল কায়সার হাসনাত, জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ডা. আবু জাফর চৌধুরী বিরু, উপজেলা আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মাহফুজুর রহমান কালাম বেশ পুরোদমেই মাঠে। মাঝে মধ্যে দেখা যায় কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগের উপ-কমিটির সাবেক সহ-সম্পাদক এএইচএম মাসুদ দুলাল ও লন্ডন প্রবাসি সম্প্রতি পাওয়া আওয়ামীলীগের উপ-কমিটির সদস্য ইঞ্জিনিয়ার শফিকুল ইসলামকে। উপজেলা আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি সামসুল ইসলাম ভুইয়াও মনোনয়ন চাইবেন। যদিও তিনি অন্যান্য মনোনয়ন প্রত্যাশিদের নিয়ে কাজ করছেন। সাবেক ছাত্রলীগ নেতা আনোয়ারুল কবির ভুইয়া ও বিএনপির সাবেক প্রতিমন্ত্রী রেজাউল করিমের ভাই শিল্পপতি বজলুর রহমানও নৌকা প্রতীকে মনোনয়ন চাইবেন দাবি করেছেন। মনোনয়ন চাইবেন এমন আলোচনায় থাকলেও নির্বাচনী প্রচারে নেই মোশারফ হোসেনও। মহাজোট অটুট থাকলে লিয়াকত হোসেন খোকা মনোনয়ন পাবেন তা এখনো নিশ্চিত নয়। কারণ এ আসনে জাতীয় মহিলা পার্টির সাধারণ সম্পাদক ও এরশাদের পালিত কন্যা অনন্যা হুসেইন মৌসুমী আটঘাট বেধে মাঠে নেমেছেন। মৌসুমী গত ৭ সেপ্টেম্বর থেকে এ আসনে নির্বাচনী গণসংযোগে নেমেছেন এবং তিনি দাবি করছেন তার মনোনয়ন নিশ্চিত যা দলের চেয়ারম্যান এরশাদ তাকে সেই সবুজ সংকেত দিয়েই সোনারগাঁয়ের মাঠে পাঠিয়েছেন। ফতুল্লা-সিদ্ধিরগঞ্জ আসনে আওয়ামীলীগের এমপি একেএম শামীম ওসমান। এ আসনে তিনি অনেকটা একক প্রার্থীই বলা চলে। ইতিমধ্যে এখানে দুজন নৌকা প্রতীকে মনোনয়ন প্রত্যাশি দাবি করলেও তাদের এ আসনে তেমন একটা গ্রহনযোগ্যতা নেই। কেন্দ্রীয় শ্রমিকলীগ নেতা কাউসার আহমেদ পলাশ ও আওয়ামীলীগের উপ-কমিটির সদস্য কামাল মৃধা প্রার্থী হওয়ার ঘোষণা দিয়ে এখন রাজনৈতিক মাঠে নেই বললেই চলে। এখানকার দুটি থানার সকল নেতাকর্মীরাই চায় শামীম ওসমানকে। এ আসনটিতে শতভাগ নিশ্চিত বলা যায় শামীম ওসমান আবারো মনোনয়ন পাচ্ছেন। সদর-বন্দর আসনে মহাজোটের এমপি একেএম সেলিম ওসমান। তিনি গত ২০১৪ সালের ২৬ জুন উপ-নির্বাচনে লাঙ্গল প্রতীকে নির্বাচিত হন। এর আগে ৫ জানুয়ারির নির্বাচনে তার বড় ভাই প্রয়াত সাংসদ নাসিম ওসমান এখানে মহাজোটের প্রার্থী হিসেবে এমপি নির্বাচিত হন। তার মৃত্যুর পর সেলিম ওসমান এমপি হন। দুইবারের নির্বাচনেই আওয়ামীলীগ এ আসনটি জাতীয়পার্টিকে ছেড়ে দেয়। আগামী নির্বাচনের টার্গেট নিয়ে এখানে নেমেছেন আওয়ামীলীগের আনিসুর রহমান দিপু, জেলা আওয়ামীলীগের সেক্রেটারি আবু হাসনাত মোহাম্মদ শহীদ বাদল, সহ-সভাপতি আবদুল কাদির, আরজু রহমান ভুইয়া, সাংগঠনিক সম্পাদক একেএম আবু সুফিয়ান, মহানগর আওয়ামীলীগের সেক্রেটারি খোকন সাহা ও সাংগঠনিক সম্পাদক জিএম আরাফাত। তারা প্রত্যেকেই দাবি করছেন আগামী নির্বাচনে এখানে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী চাই। একই দাবি তুলছেন তাদের সঙ্গে মেয়র ডা. সেলিনা হায়াত আইভী ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেনও। এখান থেকে মনোনয়ন চাওয়ার আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন জেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি আব্দুল হাইও। এদের মধ্যে বেশকজন নিয়মিত এ আসনের বিভিন্ন এলাকায় গণসংযোগ করছেন। তবে সদর-বন্দর আসনটি নিয়ে যারা মাঠে রয়েছেন তাদের গ্রহণযোগ্যতা নিয়ে নেতা-কর্মীদের মধ্যেই নানা প্রশ্ন রয়েছে। এদিকে সেলিম ওসমান এখনো তার প্রার্থীতা ঘোষণা করেননি। সেলিম ওসমান একাধিক সভা সমাবেশে বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ইচ্ছা অনুযায়ী এবং এলাকার ভোটাররা তাকে চাইলেই তিনি নির্বাচন করবেন। সব মিলিয়ে মনোনয়ন প্রত্যাশীরা যত দৌঁড়ঝাপ করুক না কেন নারায়ণগঞ্জের ৫টি আসনে কারা মনোনয়ন পাচ্ছেন তা একমাত্র প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিশ্চিত করে বলতে পারেন।

Comments are closed.

সদ্যপাওয়া

আমি ভোট ভিক্ষা চাই না

২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ | ১২:৫১ অপরাহ্ণ

মামলার জালে বিএনপি কোপকাত-জাপায় চলছে অন্ত:দ্বন্দ্ব

২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ | ১২:৫০ অপরাহ্ণ

বিরোধেও সক্রিয় আওয়ামীলীগের মনোনয়ন প্রত্যাশীরা

২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ | ১২:৪৬ অপরাহ্ণ

ভাবী আমার মায়ের মত: সেলিম ওসমান

২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ | ৩:০০ পূর্বাহ্ণ

ভোটারদের কাছে ব্যাক্তি ইমেজই ফ্যাক্টর

২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ | ২:৫৯ পূর্বাহ্ণ

পেছন থেকে কলকাঠি নাড়া বন্ধ করুন-সেলিম ওসমান 

২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ | ২:৫৮ পূর্বাহ্ণ

আজকের পত্রিকা

আজকের পত্রিকা

ছাত্র আন্দোলনের সুফল যেমন দ্রুত এখন প্রয়োজন মাদক সন্ত্রাস নির্মূল

০৯ আগস্ট, ২০১৮ | ১০:৫৭ পূর্বাহ্ণ

ডান্ডিবার্তা রিপোর্ট এ যে বড় কোন ঝড়ের শেষে সুন্দর সকাল। যে নারায়ণগঞ্জ শহরের ঘুম থেকে উঠে রাস্তায় বের হলেই পড়তে হতো যানজটে সেই চিত্রই বদলে গেছে। সারিবদ্ধভাবে রিকশা ও গাড়ি লেনে

এখনো আইভীকে নিয়ে এক টেবিলে বসতে আশাবাদী সেলিম ওসমান

১০ আগস্ট, ২০১৮ | ১:৫৬ পূর্বাহ্ণ

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সম্প্রতি আওয়ামীলীগের বিশেষ বর্ধিত সভায় উন্নয়ন অব্যাহত রাখার স্বার্থে সকলকে ঐক্যবদ্ধ থাকাসহ রাজনৈতিক জোটের মিত্রদের সাথে সু-সস্পর্ক বজায় রাখাসহ ঐক্যবদ্ধ ভাবে কাজ করার আহবান জানিয়েছেন। একই কথা

নারায়ণগঞ্জ কারাগারে শত শত কোটি টাকার দুর্নীতি!

১৭ জুলাই, ২০১৮ | ৭:২৮ অপরাহ্ণ

বিশেষ প্রতিনিধি নারায়ণগঞ্জ জেলা কারাগারে কয়েদীদের সাথে পরিবার-পরিজনের সাক্ষাতের নামে চলছে অবৈধ অর্থ হাতিয়ে নেয়ার রমরমা বাণিজ্য। জেল সুপার কিংবা জেলার পদে যখন যে বদলি হয়ে এই কারাগারের দায়িত্বে আসুক না

বানিজ্য বার্তা

অর্থ পাচার: বিসমিল্লাহ গ্রুপের ৯ জনের সাজা

১০ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ | ৪:৫১ অপরাহ্ণ

অর্থ পাচারের মামলায় বিসমিল্লাহ গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক খাজা সোলেমান আনোয়ার চৌধুরী, চেয়ারম্যান নওরিন হাসিবসহ নয়জনকে দশ বছর করে কারাদণ্ড দিয়েছেনব আদালত। সোমবার ঢাকার ১০ নম্বর বিশেষ জজ আদালতের বিচারক মো.

ফিচার বার্তা

ধ্বংস হচ্ছে রাজধানীর ঐতিহ্যবাহী স্থাপনা!

১০ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ | ৪:৪৫ অপরাহ্ণ

রাজধানী থেকে গত ৮ বছরে হারিয়ে গেছে ১৮টি সরকারি তালিকাভুক্ত ঐতিহ্যবাহী স্থাপনা। এসব স্থাপনা ধ্বংস করে সেখানে গড়ে তোলা হয়েছে বহুতল ভবন। গত চার দশকে ধ্বংস হয়েছে অন্তত শতাধিক স্থাপনা।

সাহিত্য বার্তা

নজরুলের বিমত, অমত ও স্বমত

১০ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ | ৪:৪৮ অপরাহ্ণ

বিচার বিবেচনা দৃষ্টিভঙ্গির মাধ্যমে কোনো বিষয়ে কারোর মতামত প্রকাশিত হয়ে থাকে। বিবেচনার মাত্রা আবার অনুভবের তীক্ষ্ণতা, উপলদ্ধির সূক্ষ্মতা, অভিজ্ঞতার তীব্রতা দ্বারা শাণিত, শমিত ও শীলিত হয়। কোনো বিষয়ে কারোর নিজস্ব

অতিথি কলাম

ইতিহাসের কলঙ্কময় দিন ১৫ আগষ্ট

০৯ আগস্ট, ২০১৮ | ১০:৫২ পূর্বাহ্ণ

ডান্ডিবার্তা রিপোর্ট শোকাবহ মাস আগস্ট। এই মাসে ১৫ তারিখে  সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৩তম শাহাদাতবার্ষিকী পালন হবে। ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট ইতিহাসের অতিপ্রত্যুষে ঘটেছিল ইতিহাসের সেই

পুরনো সংখ্যা

MonTueWedThuFriSatSun
     12
24252627282930
       
  12345
6789101112
13141516171819
20212223242526
2728293031  
       
      1
2345678
9101112131415
3031     
    123
45678910
18192021222324
252627282930 
       
   1234
567891011
12131415161718
262728    
       
293031    
       
    123
45678910
       
  12345
6789101112
27282930   
       
      1
3031     
    123
       
 123456
28293031   
       
     12
10111213141516
24252627282930
31      
   1234
567891011
12131415161718
2627282930  
       
293031    
       
     12
3456789
10111213141516
24252627282930
       

টেলিভিশন

নামাজের সময়

    ঢাকা, বাংলাদেশ
    সোমবার, ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৮
    ওয়াক্তসময়
    সুবহে সাদিকভোর ৪:৩২ পূর্বাহ্ণ
    সূর্যোদয়ভোর ৫:৪৮ পূর্বাহ্ণ
    যোহরদুপুর ১১:৫১ পূর্বাহ্ণ
    আছরবিকাল ৩:১৬ অপরাহ্ণ
    মাগরিবসন্ধ্যা ৫:৫৩ অপরাহ্ণ
    এশা রাত ৭:০৮ অপরাহ্ণ