সোমবার, ২৩ জুলাই ২০১৮ ইং, ৮ শ্রাবণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, ৯ জিলক্বদ ১৪৩৯ হিজরী, বিকাল ৩:৪৫

শিরোনাম

‘ব্যক্তিত্ব বিকাশের প্রয়োজনীয়তা’ শীর্ষক আলোচনা        দুই ব্যবসায়ীকে যেভাবে সাত টুকরো করেছে পিন্টু        জগন্নাথ ঠাকুর বাড়ি ফিরলেন        আজাদ বিশ্বাসের উপর  পুলিশের অনেক বিশ্বাস!        যে নেতারা লাঙ্গলে ভোট দিয়েছে সামনে তারা কিসে ভোট দিবেন?        অন্যায় অবিচারের বিরুদ্ধে  রুখে দাঁড়াতে হবে : আইভী        আড়াইহাজার পৌর নির্বাচনে জেলা বিএনপির নেতাদের ভুমিকা নিয়ে প্রশ্ন        স্বপন হত্যায় আদালতে ঘাতক পিন্টুর জবানবন্দী       

শামীম ওসমানের উদ্যোগে ১৩ আগস্ট শোক র্যা লী

Habibor badal | ০২ আগস্ট, ২০১৭ | ৪:৪৩ পূর্বাহ্ণ

ডান্ডিবার্তা রিপোর্ট

আগামী ১৩ আগস্ট শোক র‌্যালীর ঘোষণা দিয়েছেন আওয়ামী লীগের এমপি শামীম ওসমান যিনি মহানগর কমিটির প্রথম সদস্য। আওয়ামী লীগ ও এর সহযোগি সংগঠনের ব্যানারে যদি ওই র‌্যালী করা হয় তাহলে সেটা নিয়েও আপত্তি থাকবে মহানগর ও জেলার নেতাদের। সংশ্লিষ্টরা এ তথ্য নিশ্চিত করে জানান, ইতোমধ্যে যুব মহিলা লীগ ও কৃষক লীগের কমিটি নিয়ে শামীম ওসমান প্রভাব দেখিয়েছেন। সে কারণে আগামীতে তাঁর সঙ্গে একত্রে জেলার নেতারা থাকবেন কী না সেটা নিয়েও প্রশ্ন উঠেছে।

ইতোমধ্যে শামীম ওসমান ঘোষণা দিয়েছেন, আগামী ১৩ আগস্ট নারায়ণগঞ্জে বৃহত্তম শোক র‌্যালী হবে যেখানে আওয়ামী লীগে যে কোন বিরোধ নাই সেটা প্রমাণ করা হবে। ওই র‌্যালীতে সিটি করপোরেশনের মেয়র ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী উপস্থিত থাকবেন আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন তিনি।

তবে গত রোববার জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য সংগ্রহ কর্মসূচীতে আইভী বলেছেন, আমরা কোন ব্যক্তির রাজনীতি করবো না। আমরা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার রাজনীতি করবো।

এদিকে ১৩ আগস্টের র‌্যালীতে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আবদুল হাই, মহানগরের সভাপতি আনোয়ার হোসেন, সেক্রেটারী খোকন সাহা সহ অনেকেই উপস্থিত থাকবেন কী না সংশয় দেখা দিয়েছে। তাঁদের ঘনিষ্ট একাধিক নেতা জানান, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সেক্রেটারী এবং মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সেক্রেটারীর সুপারিশে যথাক্রমে জেলা ও মহানগর যুব মহিলা লীগের কমিটি গঠন করে কেন্দ্র। কিন্তু পরবর্তীতে শামীম ওসমানের প্রভাবের কারণে ওই কমিটি বাতিল করা হয়। বিষয়টি নিয়ে দলের ভেতরে দেখা দিয়েছে অসন্তোষ। এস কারণে শামীম ওসমানের ডাকে ওই র‌্যালীতে আনোয়ার ও আবদুল হাইয়ের উপস্থিতি নিয়ে যথেষ্ট সংশয় রয়েছে।

অপরদিকে রাজনৈতিকভাবেও শামীম ওসমানের সঙ্গে বাহ্যিকভাবে দূরত্ব রয়েছে অনেকের। তাদেরকে আবারও কাছে টানার চেষ্টা করা হচ্ছে। আগামী ১৩ আগস্ট শোক র‌্যালীতে যাতে ওইসব নেতারা থাকে সেজন্য চলছে দেনদরবার।

আওয়ামী লীগের একাধিক নেতা জানান, ১৩ আগস্ট শোক র‌্যালীতে জেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি আইভীর পাশাপাশি জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আবদুল হাই, মহানগরের সভাপতি ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেনের উপস্থিতি নিশ্চিত করতে চাচ্ছেন আওয়ামী লীগের একটি অংশ। এ নিয়ে এখন থেকেই চলছে নানা পরিকল্পনা। ২০১৪ সালের ২৬ জুন নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনের নির্বাচনের আগে যেভাবে আনোয়ার হোসেনদের ম্যানেজ করা হয়েছিল সে পরিকল্পনাই চলছে আবারো। টার্গেট এবার কোনভাবে সমঝোতা ও বৈরিতার অবসান করে আগামী নির্বাচন পর্যন্ত এটা অক্ষুন্ন রাখতে। এজন্য ত্যাগ স্বীকার করতেও রাজী ওসমান ভ্রাতৃদ্বয়।

আইভী, আনোয়ার ও আবদুল হাইদের শোকর‌্যালীতে রাখার জন্য স্থানীয়ভাবের পাশাপাশি কেন্দ্রীয়ভাবেও চেষ্টা চলছে। তবে ওই শোক র‌্যালীতে দিপু, খোকন সাহা ও মালার উপস্থিতি নিয়ে নেই কোন আলোচনা।

 

Copyright © Dundeebarta.com. ওয়েব ডিজাইন: মো: নাসির উদ্দিন, বন্দর, নারায়ণগঞ্জ। ০১৭১২৫৭৪৯৯০