সোমবার, ২৩ জুলাই ২০১৮ ইং, ৮ শ্রাবণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, ৯ জিলক্বদ ১৪৩৯ হিজরী, বিকাল ৩:৪৮

শিরোনাম

‘ব্যক্তিত্ব বিকাশের প্রয়োজনীয়তা’ শীর্ষক আলোচনা        দুই ব্যবসায়ীকে যেভাবে সাত টুকরো করেছে পিন্টু        জগন্নাথ ঠাকুর বাড়ি ফিরলেন        আজাদ বিশ্বাসের উপর  পুলিশের অনেক বিশ্বাস!        যে নেতারা লাঙ্গলে ভোট দিয়েছে সামনে তারা কিসে ভোট দিবেন?        অন্যায় অবিচারের বিরুদ্ধে  রুখে দাঁড়াতে হবে : আইভী        আড়াইহাজার পৌর নির্বাচনে জেলা বিএনপির নেতাদের ভুমিকা নিয়ে প্রশ্ন        স্বপন হত্যায় আদালতে ঘাতক পিন্টুর জবানবন্দী       

নারায়ণগঞ্জে আওয়ামীলীগ ও সহযোগী সংগঠনে যোগ্যরা পদ পাওয়া থেকে বঞ্চিত

Badal-nj | ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ | ১২:৪৫ পূর্বাহ্ণ

ডান্ডিবার্তা রিপোর্ট
নারায়ণগঞ্জ আওয়ামীলীগের সহযোগী সংগঠনগুলোর লাগামহীন মেয়াদের কারনে অনেক নেতাকর্মীরা যোগ্যতা অনুসারে পদ পদবির সুযোগ সুবিধা থেকে বঞ্চিত। এর ফলে নারায়ণগঞ্জে আওয়ামীলীগের রাজনৈতিক অঙ্গনে নুতন নেতৃত্ব বিকাশ প্রধান বাধা হয়ে দাড়িয়েছে মেয়াদহীন অঙ্গ সংগঠনগুলো। আওয়ামীলীগ ও সহযোগী সংগঠনের চেয়ে বেশী সক্রিয় নেতাদের অবস্থান তৈরি হয়েছে। ফলে অনেক নেতাকর্মীই দলে পদপদবির দিক দিয়ে যোগ্যতা অনুসারে প্রকৃত মূল্যায়ন থেকে বঞ্চিত হওয়ার আশঙ্কায় থেকে সড়ে দাড়াতে পারছেনা। এদিকে নারায়ণগঞ্জ জেলা ও মহানগর আওয়ামীলীগের সিনিয়র নেতাদের সদিচ্ছা থাকা সত্ত্বেও কতটুকু মূল্যায়ন করতে পারবেন তা এখন দেখার বিষয় বলে মনে করছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা।
এ দিকে, দলকে সাংগঠনিক ভাবে আরো শক্তিশালী করতে এবং নুতন নেতৃত্ব বিকাশে সুযোগ করে দেবার জন্য কমিটি গঠনের কার্যক্রম হাতে নিয়েছেন। সংগঠনকে ঢেলে সাজাঁতে গিয়ে হিমশীমের পালায় সিনিয়র নেতৃবৃন্দরা।
এবিষয় জেলা ও মহানগর আওয়ামীলীগের সহযোগী সংগঠনের পদহীন নেতা ও তৃনমূল নেতাদের সাথে আলাপ কালে তারা জানান, এ জেলায় আওয়ামীলীগ ও সহযোগী সংগঠনের চেয়ে অনেক বেশী সক্রিয় নেতার জন্ম হয়েছে। যারা এখন সাংগঠনিক নেতৃত্ব দেবার ক্ষমতা রাখেন। এখন বিষয় হচ্ছে কাকে কোন পদে দিবে সে নিয়ে সিনিয়র নেতাদের চিন্তার কোন কমতি নেই। তবে আমরা এখন জেলা ও মহানগর আওয়ামীলীগের শীর্ষ নেতাদের দিকে তাকিয়ে আছি। তারা আমাদের মধ্যে যাকে যে পদের দায়িত্ব বুঝিয়ে দিবেন আমরা সেই পদেই কাজ করবো। এবার সংগঠনকে ঢেলে সাজাঁতে গিয়ে নেতাকর্মীদের অনেকটাই কাঠ কয়লা পোড়াতে হচ্ছে এটাও আমরা বুঝতে পারছি। পুরাতন কমিটিগুলোর মেয়াদহীন হওয়ায় নুতন নেতৃত্ব বিকাশে বিঘœ ঘটেছে, ফলে কাকে কোন পদে দায়িত্ব প্রদান করা হবে এ নিয়ে অনেকটাই চিন্তিত সিনিয়র নেতৃবৃন্দ। তাদের ইচ্ছা প্রতিটি নেতা কর্মীকে যার যার যোগ্যতা অনুসারে দায়িত্ব প্রদান করার কিন্ত ইচ্ছা থাকলেও কোনো উপায় নেই।
এবার আওয়ামীলীগ ও সহযোগী সংগঠনগুলোর কমিটি ঘোষনা করার পর অনেক নেতাকর্মীর মধ্যেই প্রকৃত মূল্যায়ন না পাওয়ার চাপা ক্ষোভ বিরাজ করতে পারে এটাই স্বাভাবিক। তবে কেউ ভয়ে মুখ খোলবেনা এটা নিশ্চিত।
অন্যদিকে, পুরাতন কমিটিগুলোর মাত্রাতিরিক্ত সময় নেয়ার ফলে এই জেলায় ভবিষ্যত্ব নেতৃত্বের সঙ্কটের আশঙ্কা থেকে সরে আসার কোন পথ নেই বলে মনে করেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা। তাদের মতে পুরাতন কমিটি গুলো ভেঙ্গে নুতন কমিটি করতে সিনিয়র নেতৃবৃন্দরা বা কেন্দ্রীয় নেতারা যে সময় নিয়েছেন। ভবিষ্যত্ব আওয়ামীলীগ ও সহযোগী সংগঠনগুলো তার দ্বিগুন পিছিয়ে পরার সম্ভবনা রয়েছে। এ থেকে উত্তোলন করতে হলে নুতনদের অবশ্যই সাংগঠনিক কর্মকান্ডের সাথে সম্পৃক্ত রাখতে হবে।

Copyright © Dundeebarta.com. ওয়েব ডিজাইন: মো: নাসির উদ্দিন, বন্দর, নারায়ণগঞ্জ। ০১৭১২৫৭৪৯৯০