আইভী-চেঙ্গিসকে নিয়ে  শহরময় আলোচনা

ডান্ডিবার্তা রিপোর্ট

নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের মেয়র ডা: সেলিনা হায়াত আইভী এবং জেলা কৃষক লীগের সেক্রেটারী ও অ্যাথলেটিক ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক ইব্রাহিম চেঙ্গিসের একটি ছবি দেখে দল এবং দলের বাইরে সাধারণ মানুষের মধ্যে সুবাতাস বইছে। এসব সুবাতাসের প্রভাব স্থানীয় রাজনীতিতে পড়বে বলে মনে করেন সবাই। স্থানীয়রা জানান, মেয়র আইভী দলের সকলের সঙ্গে কাজ করতে আগ্রহ দেখাচ্ছেন অনেক আগে থেকেই। তবে সেই আগ্রহের প্রমাণ মিলছে খুবই ধীর গতিতে। গত বছর এমন আলোচিত ঘটনা ঘটে সিটি করপোরেশনের এক অনুষ্ঠানে। সেই অনুষ্ঠানে অংশ নেন সদর-বন্দর আসনের সাংসদ সেলিম ওসমান। সেই অনুষ্ঠনেই মেয়রের চাহিদা মত কয়েকটি সিদ্ধান্তের কথা জানান দেন সেলিম ওসমান। যা পরবর্তিতে বাস্তবায়নে সুফল ভোগ করেন মেয়র তথা সিটি করপোরেশন এর অধিবাসী এবং ব্যবসায়ীরা। এর পর পরেই আবার সম্পর্কের অবনতি ঘটে সাংসদদের সঙ্গে। বিশেষ করে আওয়ামী লীগের কমিটি এবং তার কার্যক্রম নিয়ে টানাপড়েন শুরু হয় আইভী এবং শামীম ওসমান এর বলয়ের মধ্যে। তার পরপরেই এমন একটি ছবি খুব বড় করে দেখছেন আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা। তবে রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা মনে করছেন এটা আওয়ামী লীগের মধ্যে একটি বড় ধরনের মেরুকরন। যা বিরোধীদলকে সামলানোর একটি বড় বলয় তৈরী করা। যাতে নিজ দলের গ্রুপিং বা বিরোধের কারনে বিএনপি সহ বিরোধীদলগুলো কোন সুবিধা না পায়। তবে এর বিপক্ষে আরো কয়েকটি যুক্তি খুঁজছে সমালোচকরা। তারা মনে করছেন আগামী দিনগুলোতে রাজনীতির মধ্যে একটি পরিবর্তনের ইঙ্গিত দিচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী। যার কয়েকটি নিদর্শন দেখা গেছে গত কয়েকদিনে। এতেই একটি মেসেজ তৃনমূলকে জানান দিচ্ছেন দলীয় প্রধান শেখ হাসিনা। তারা বলছেন শেখ হাসিনার দেশ পরিচালনার যে পদ্ধতির মডেল উপহারের দিকে এগিয়ে যাচ্ছেন তার দিকেই এগুচ্ছেন দলটি। দলের এই পর্যায়ে সবাই দেশ গড়ার দিকেই মনযোগী হচ্ছেন। তাই নিজেদের মধ্যে একটি সম্প্রীতির সুবাতাস তৈরী করছেন দলের নেতাকর্মীরা। তারই প্রমাণ একটি বিয়ের অনুষ্ঠানের দাওয়াতে আইভী-চেঙ্গিসের একটি মুহূর্তের ছবিটি। গতকাল বুধবার সকাল থেকে ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়ে ছবিটি। এর আগেরদিন গত মঙ্গলবার রাজধানীতে একটি বিয়ের অনুষ্ঠানে উপস্থিত হন তারা। ওই অনুষ্ঠানে ছিলেন এমপি শামীম ওসমানও।

About ডান্ডিবার্তা

View all posts by ডান্ডিবার্তা →

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *