বন্দরে মানব পাচারকারী  জোসনা গ্রেফতার

বন্দর প্রতিনিধি

র‌্যাব-১১ গতকার সকালে বন্দরের দক্ষিন কলাবাগ এলাকা হতে মানব পাচারকারী রহিমা বেগম ওরফে জোছনা (৪০)কে গ্রেফতার করেছে। এসময় তার বাসায় তল্লাসী করে ৫৫টি বাংলাদেশী পাসপোর্ট ও ২২টি জাতীয় পরিচয় পত্র উদ্ধার করা হয়। গ্রেফতারকৃত রহিমা একই এলাকার মৃত সেলিম মিয়ার স্ত্রী। র‌্যাব এক সংবাদ কিজ্ঞপ্তিতে জানায়, গ্রেফতারকৃতকে জিজ্ঞাসাবাদ ও প্রাথমিক অনুসন্ধানে জানা যায়, রহিমা বেগম ওরফে জোছনা দীর্ঘদিন মধ্যপ্রাচ্যে ছিল। বিগত ৫ বছর আগে দেশে এসে মধ্যপ্রাচ্যের বিভিন্ন দেশে অধিক বেতনে গৃহপরিচারিকার কাজের প্রভোলন দেখিয়ে নারী পাচার শুরু করে। এই কাজের সূত্রে সেই পাসপোর্ট তৈরীর দালালির কাজও করত। আর এই নারী পাচার কাজে স্থানীয় কয়েকজন লোক ও ঢাকার কয়েকটি ট্রাভেল এজেন্সির সাথে সম্পৃক্ততা রয়েছে বলে জানা যায়। এই পাচারকারী চক্রের সোমা নামের এক সদস্য মধ্য প্রাচ্যে থেকে ভিসা গুলো সংগ্রহ করে দেশে পাঠায় এবং মহিলাদের নিয়ে গিয়ে বিভিন্ন চক্রের কাছে বিক্রি করে দেয়। তারপর ঐ মহিলাদের জিম্মি করে নানা অসামাজিক কর্মকান্ডে বাধ্য করা হয়। এই মানব পাচারকারী চক্রের এক ভিকটিমের সুনির্দিষ্ট অভিযোগের ভিত্তিতে অভিযান পরিচালনা করে পাচারকারী রহিমা বেগম ওরফে জোছনাকে বিপুল পরিমান পাসপোর্ট ও জাতীয় পরিচয় পত্রসহ আটক করা হয়  গ্রেফতারকৃত মানব পাচারকারীসহ তার সহযোগীদের বিরুদ্ধে বন্দর থানায় মামলা রুজু করা হয়েছে।

About ডান্ডিবার্তা

View all posts by ডান্ডিবার্তা →

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *