টেনু গাজীকে জেলগেটে জিজ্ঞাসাবাদের অনুমতি

ডান্ডিবার্তা রিপোর্ট
ফতুল্লার কুতুবপুরে চাঁদাবাজির মামলায় গ্রেফতারকৃত শাহ আলম গাজী টেনুকে জেলগেটে জিজ্ঞাসাবাদের অনুমতি দিয়েছেন আদালত। গতকাল রোববার দুপুরে সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. কাউসার আলম এই রায় দেন। প্যারাগন মাল্টিপারপাসের চেয়ারম্যান রাজধানীর সবুজবাগ থানার ৬৪/এ মধ্য মাদারটেকের বাসিন্দা মৃত ফজলুল হকের ছেলে শাহজাহান বাদী হয়ে এ চাঁদাবাজির মামলাটি দায়ের করেন। গত বৃহস্পতিবার রাতে শাহ আলম গাজী টেনুকে আটকের পরদিন ৭ দিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে পাঠায় জেলা গোয়েন্দা পুলিশ। আদালত রোববার রিমান্ড শুনানি ধার্য রেখে টেনুকে কারাগারে প্রেরণ করে। ধার্য দিনে আদালতে রিমান্ড শুনানি অনুষ্ঠিত হয়। শুনানি শেষে আদালত রিমান্ড নামঞ্জুর করে এবং একদিন জেলগেটে টেনুকে জিজ্ঞাসাবাদের অনুমতি দেওয়া হয়। বাদীপক্ষের আইনজীবী হিসেবে অ্যাডভোকেট আনিসুর রহমান দিপু, অ্যাডভোকেট মাহফুজ এবং আসামী পক্ষের আইনজীবী হিসেবে অ্যাডভোকেট মোহসীন মিয়া শুনানীতে অংশ নেন। প্রসঙ্গত, শাহ আলম গাজী টেনু পাগলা বাজার বহুমুখি সমবায় সমিতির সভাপতি এবং আওয়ামী লীগের নামধারী নেতা হিসেবে স্থানীয়দের কাছে পরিচিত। গত বৃহস্পতিবার রাতে নারায়ণগঞ্জ জেলা গোয়েন্দা পুলিশ পাগলা এলাকায় টেনু গাজীকে তার নিজ বাড়ি থেকে গ্রেফতার করে। তার বিরুদ্ধে ভূমিদস্যুতা, মাদক ব্যবসা, স্থানীয়দের নির্যাতন ও চাঁদাবাজিসহ একাধিক অভিযোগ রয়েছে বলে জানিয়েছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ডিবি) নূরে আলম। একইদিন সন্ধ্যায় প্যারাগন নামে একটি মাল্টি পারপাসের সিইও কাজল কুমার রায়, সিইও এর বড় ভাই বিধান কৃষ্ণ রায় এবং সিইও এর মেঝ ভাই বিপ্লব চন্দ্র রায়কে ৫ লাখ টাকা চাঁদার দাবিতে তুলে নিয়ে মারধর করে আহত করে। খবর পেয়ে ফতুল্লা মডেল থানা পুলিশ পাগলা বাজার এলাকা থেকে টেনু বাহিনীর হাত থেকে তাদেরকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে। পরে ফতুল্লা মডেল থানায় উপস্থিত হয়ে একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। ফতুল্লা মডেল থানা পুলিশের পরিদর্শক (অপারেশন) মজিবুর রহমান জানান, টেনু গাজীর বিরুদ্ধে একটি চাঁদাবাজির মামলা হয়েছে।

About ডান্ডিবার্তা

View all posts by ডান্ডিবার্তা →

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *