না’গঞ্জের রাজনীতিতে নিরবতা!

ডান্ডিবার্তা রিপোর্ট

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পর থেকে কর্মসূচি শূন্য রাজপথ অনেকটাই অঘোষিত অবসরে অবস্থান নিয়েছেন নারায়ণগঞ্জের রাজনীতিবিদরা। টানা তৃতীয় বারের মত ক্ষমতায় এসেও সাংগঠনিক কর্মকান্ডের হীন হয়ে পরেছেন আওয়ামীলীগ। অপরদিকে নির্বাচনে দলের ভড়াডুবির পর অনেকটাই আস্থাহীনতায় ভুগছে স্থানীয় বিএনপি। আওয়ামীলীগ টানা তৃতীয় বারের মত ক্ষমতায় এসে রাজনৈতিক মাঠ সরগম করার হওয়ার পরিবেশ সৃষ্টি হলেও ঘটছে ঠিক উল্টো। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পর থেকে দলের নেতাকর্মীরা দলীয় কর্মসূচী থেকে শুরু করে সাংগঠনিক বিষয় নিয়ে রয়েছেন নিরব। ধারনা করা হচ্ছে, দলের অনেক সিনিয়র নেতারা নির্বাচনের সময় প্রকাশ্যে নিজেদের প্রার্থী হিসেবে আত্ম-প্রকাশ এবং দলের সমর্থিত প্রার্থীর পক্ষে প্রচার প্রচারোনায় অংশগ্রহন না করাই বিভেদের সৃষ্টি হয়েছে। যার ফসল নির্বাচনের পর রাজনৈতিক অঙ্গন থেকে শুরু করে সর্বস্থরে উন্মোচিত হয়ে উঠেছে। এর ফলসূতিতে নেতাকর্মীদের মধ্যে থাকা বিভেদের ফলে জেলা ও মহানগর আওয়ামীলীগ তেমন কোন কর্মসূচি পালন করছেনা। অপরদিকে, রাজনৈতিক মামলা, গ্রেফতার, নির্যাতন, আত্মগোপন সর্বপরি একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে দলের ভড়াডুবির ফলে অনেকটাই আস্থাহীনতায় ভুগছে স্থানীয় বিএনপি। এর মধ্যে কিছু সুবিধাবাদী নেতারা আঙ্গুল ফুলে কলাগাছে রুপান্তরিত হচ্ছেন ক্ষমতাশীনদের সাথে আতাঁত ও চাটুকারীতা করে। আন্দোলন সংগ্রামের সুতিকাগার হিসেবে খ্যাত নারায়ণগঞ্জ বিএনপি পুলিশের উপর দোষ চাপিয়ে গাঁ ভাসা রাজনীতিতে অবস্থ হয়ে পরেছেন। এরফলে রাজনৈতিক অঙ্গন থেকে শুরু করে দলের তৃনমূলের সাথে দুরত্ব সৃষ্টি হচ্ছে প্রতি নিয়তই। বোনাস স্বরুপ রয়েছে নেতাকর্মীদের মধ্যে বিভাজন। যার ফলসূতিতে ক্ষমতাসীন দল ও বিএনপি উভয় দলের তেমন কোন কর্মসূচি নেই বলে ধারনা করছেন রাজনৈতিক বিশে¬ষকরা।

About ডান্ডিবার্তা

View all posts by ডান্ডিবার্তা →

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *