মিথ্যা বানাতে পটু শামীম ওসমান: আইভী

 

ডান্ডিবার্তা রিপোর্ট

নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী বলেছেন, ওনার (শামীম ওসমান) যা মনে আসে বলুক। নারায়ণগঞ্জের মানুষ ওনার সম্বন্ধে জানে। উনি সত্যকে মিথ্যা আর মিথ্যাকে সত্য বানাতে পটু। তাকে নিয়ে  বলার কিংবা ভাবার কোন সময় আমার নেই। গতকাল মঙ্গলবার সকালে সচেতন নাগরিক সমাজ এর ব্যানারে মেয়র আইভীর বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রী বরাবর একটি স্মারকলিপি জমা দেয় জনপ্রতিধি, রাজনৈতিক, ব্যবসায়ীক ও পেশাজীবী নেতৃবৃন্দ। এর প্রতিক্রিয়ায় মেয়র আইভী এসব কথা বলেন। তিনি আরো বলেন, উনি কি সাগর রুনি, ত্বকী, তনু হত্যার বিচার চান না। আমি তো চাই এ সকল হত্যাকান্ডের বিচার হোক। আর আমি এ দাবি সবসময় জানিয়ে যাবো। সিটি কর্পোরেশনের একজন মেয়র হিসেবে আমি জনগণের জন্য কাজ করে যাচ্ছি। জনগণ কীভাবে ভালো থাকবেন সে চিন্তার বাইরে অন্য কিছু নিয়ে চিন্তা করার সুযোগ আমার নাই। স্মারকলিপি বিষয়ে প্রতিক্রিয়া জানতে চাইলে মেয়র আইভী বলেন, সার্বিক বিষয়গুলো আমি পর্যবেক্ষন করে দেখছি। অনেকেই খোঁচানের চেষ্টা করছেন এবং করবেন। আমি উন্নয়নের কাজ করতে চাই। এ বিষয়ে কোন মন্তব্যই আমি করবো না। নারায়ণগঞ্জবাসী, দেশবাসী ওনার (শামীম ওসমান) বিচার করবেন। প্রসঙ্গত, গত মঙ্গলবার সকালে নারায়ণগঞ্জে অস্থিতিশীল পরিবেশ সৃষ্টি করার চেষ্টা করছেন এমন অভিযোগ এনে নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভীর বিরুদ্ধে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করা হয়। স্মারকলিপিতে নারায়ণগঞ্জের সচেতন নাগরিক সমাজ এর ব্যানারে নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সাংসদ একেএম শামীম ওসমান অনুসারী বেশ কয়েকজন জনপ্রতিনিধি, রাজনৈতিক, সামাজিক, ব্যবসায়ীসহ বিভিন্ন পেশাজীবী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। স্মারকলিপিতে মেয়রের বিরুদ্ধে অভিযোগ করে বলা হয়, মেয়রের সাথে জামায়াতের সম্পর্ক রয়েছে। তিনি সাংসদ শামীম ওসমানসহ ওসমান পরিবারকে নিয়ে কুরুচিপূর্ণ বক্তব্য দিয়েছেন। এছাড়া স্মারকলিপির মাধ্যমে সাংবাদিক দম্পতি সাগর-রুনি ও তনু হত্যাকান্ডের বিষয়ে মেয়রকে জিজ্ঞাসাবাদের দাবি জানানো হয়। এদিকে গত ৬ মার্চ ত্বকী হত্যার বিচারহীনতার ৬ বছর উপলক্ষে আয়োজিত শিশু সমাবেশে মেয়র আইভী বলেছিলেন, তানভীর মুহাম্মদ ত্বকী হত্যাকান্ড কে বা কারা সংগঠিত করেছে তা সারা বাংলাদেশের কারোর অজানা নয়। কার অদৃশ্য শক্তির ইঙ্গিতে এই হত্যাকান্ডের বিচার হচ্ছে না তা আমাদের সকলের জানার অধিকার আছে। পাশাপাশি চঞ্চল, আশিক সহ অন্যান্য হত্যাকান্ডের আমরা বিচার চাই। এই সবগুলো হত্যাকান্ড সংগঠিত হয়েছে ওসমান পরিবার দ্বারা। ওই সমাবেশে তিনি আরো বলেন, বাংলাদেশে অনেক চাঞ্চল্যকর হত্যাকান্ডের বিচার হলো, কয়েকটা বিচার ছাড়া। সাগর-রুনির ব্যাপার আমরা অনেকেই জানি, অনেক কিছু জড়িত। তনু হত্যার বিচার কেন হচ্ছে না তাও মানুষ বুঝতে পারে। কিন্তু ত্বকী হত্যাকান্ডের সাথে কারা জড়িত? ত্বকী হত্যাকান্ডের সাথে ওই পরিবার জড়িত যাদের বাংলাদেশের কেউ ছুতে পারবে না, ধরতে পারবে না।

About ডান্ডিবার্তা

View all posts by ডান্ডিবার্তা →

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *