আড়াইহাজারে উপজেলা নির্বাচনে শঙ্কায় ভোটাররা

 

আড়াইহাজার প্রতিনিধি

আড়াইহাজারে উপজেলা নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে চতুর্থ দাপে ৩১ মার্চ। নৌকার প্রার্থীর পক্ষে প্ররণায় নেমেছেন আওয়ামী লীগের ভ্রাতিপ্রতিম সংগঠন। ১৪ মার্চ প্রতীক বরাদ্দের পর প্রার্থীরা ব্যাপকভাবে প্রচারণা চালিয়েছেন। উপজেলার সর্বত্র ছেঁয়ে গেছে নির্বানী প্রচারপত্রে। আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী মুজাহিদুর রহমান হেলো সরকারের সঙ্গে প্রচারণায় রয়েছেন থানা যুবলীগের সহসভাপতি ইকবাল হোসেন মোল্লা। এখানে হতে যাচ্ছে নবীন ও প্রবীণের মধ্যে ভোটের লড়াই। ভোটাররা মনে করছেন এবার ভোটের লড়াইটা বেশ জমে উঠবে। যুবলীগের নেতা স্বতন্ত্র প্রার্থী (আনারস) প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করলেও স্থানীয় আওয়ামী লীগের বিভিন্ন অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা নৌকার পক্ষেই মাঠে থাকবেন বলে আভাস পাওয়া যাচ্ছেন। এদিকে নানা কারণে নির্বাচনী পরিবেশ নিয়ে অনেকেই শঙ্কাও প্রকাশ করেছেন। এদিকে নৌকার প্রার্থীকে সমর্থন দিয়ে ১৩ মার্চ স্বতন্ত্র প্রার্থী থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি শাহ্জালাল মিয়া তার প্রার্থীতা প্রত্যাহার করে নিয়েছেন। এরই মধ্যে স্থানীয় এমপি নজরুল ইসলাম বাবু স্থানীয় এসএম মুক্তিযোদ্ধা মাজহারুল হক অডিটরিয়ামে এক যৌথসভা করে নৌকার প্রার্থীকে দিয়েছেন। এছাড়াও বিভিন্ন ইউনিয়নে নৌকার প্রার্থী হেলো সরকার উঠান করে ব্যস্ত সময় পার করছেন। এতে করে আওয়ামী লীগের প্রার্থী তার জয়ের ব্যাপারে শতভাগ আশাবাদি হয়ে উঠেছেন। এদিকে তরুণ স্বতন্ত্র প্রার্থী ইকবাল হোসেন মোল্লার পক্ষেও আওয়ামী লীগের একটি অংশ প্রচারণায় মেনেছেন বলে তার দাবী। এতে তিনিও তার জয় নিশ্চিত বলে মনে করছেন। ২টি পৌরসভা ও ১০টি ইউনিয়ন নিয়ে এই উপজেলা গঠিত। হাল নাগাদ ভোটার মোট ভোটার ২লাখ ৮৩ হাজার ৮৬৭জন। নারী ভোটার ১লাখ ৩৯হাজার ৭৪৫ ও পুরষ ১ লাখ ৪৪ হাজার ১২২জন। উপজেলার বিভিন্ন ব্যাপক প্রচারণায় চালিয়েছেন মুজাহিদুর রহমান হেলো সরকার। দলটির স্থানীয় নেতাকর্মীদের অনেকেই জানিয়েছেন শেষ পর্যন্ত নৌকার পক্ষে সবাই মাঠে থাকবেন। ৩১ মার্চ নির্বাচনে নৌকার জয় নিশ্চিত। প্রসঙ্গত, হেলো সরকার উপজেলার সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান। এছাড়াও তিনি শেখ রাসেল জাতীয় শিশু-কিশোর পরিষদের সাংগঠনিক সম্পাদক। তবে তার সঙ্গে ভোটে লড়াইয়ে রয়েছে তরুণ স্বতন্ত্র প্রার্থী থানা যুবলীগের সহসভাপতি ইকবাল হোসেন মোল্লা। তিনি দলীয় মনোনয়ন চেয়ে বঞ্চিত হয়েছেন। এর আগেও তিনি সদ্য অনুষ্ঠেয় পৌরসভা নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী ছিলেন। তিনি স্থানীয় এমপি নজরুল ইসলাম বাবুর আপন ভাগিনা। তবে জয় নিশ্চিত করতে নেতাকর্মীর মন জোগাতে ও ভোটারদের কাছে টানতে তারা দুজনেই  নানা প্রতিশ্রুতি দিয়ে যাচ্ছেন।

About ডান্ডিবার্তা

View all posts by ডান্ডিবার্তা →

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *