শিশুদের হাতে মোবাইল না দেয়ার আহবান আনোয়ারের

ডান্ডিবার্তা রিপোর্ট
নারায়ণগঞ্জ জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি আনোয়ার হোসেন বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নারী ক্ষমতায়নে কাজ করে যাচ্ছেন। বর্তমানে দেশের গুরুত্বপূর্ণ পদে নারীরা দায়িত্ব পালন করছেন। একসময় সন্তানরা পরিচিত হতো বাবার পরিচয়ে। এখন বাবার পাশাপাশি মায়ের পরিচয়েও সন্তানরা পরিচিত হয়ে থাকেন। আর এটা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রণয়ন করেছেন। আপনারা সকলেই দোয়া করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্য। তিনি যেন সুস্থ্য থাকেন। গতকাল শুক্রবার সকালে মর্গ্যান গার্লস স্কুল অ্যান্ড কলেজ মিলনায়তনে কলরব কিন্ডার গার্টেনের বার্ষিক মিলাদ মাহফিল, ক্রীড়া ও মেধা পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। আনোয়ার হোসেন বলেন, মর্গ্যান গার্লস স্কুল অ্যান্ড কলেজে নারায়ণগঞ্জের ঐতিহ্যবাহী শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পরিণত হয়েছে। এই প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা দেশের বিভিন্ন জায়গায় গুরুত্বপূর্ণ পদে দায়িত্ব পালন করছে। আমি আশা করি মর্গ্যান গার্লস স্কুল এন্ড কলেজের অঙ্গ প্রতিষ্ঠান হিসেবে কলরব কিন্ডার গার্টেনও নারায়ণগঞ্জের অন্যতম শিশু শিক্ষা প্রতিষ্ঠান হিসেবে প্রতিষ্ঠা লাভ করবে। এই প্রতিষ্ঠানে যারা শিক্ষকতা করেন তারা নিয়ম কানুন মেনে শিক্ষকতা করবেন। কোমলমতি শিশুদেরকে সন্তানের মতো করে শিক্ষা দিবেন। অভিভাবকদের উদ্দেশ্য করে আনোয়ার হোসেন বলেন, শিশু বয়সেই ছেলে মেয়েদের হাতে মোবাইল তুলে দিবেন না। এই বয়সে তারা প্রযুক্তির অপব্যহারই বেশি করে। ছেলে মেয়েদেরকে শুধুমাত্র স্কুলে পাঠিয়ে দিয়েই আপনারা ক্ষ্যান্ত হয়ে যাবেন না। বাড়িতে সন্তানদের পড়া লেখার খোঁজ খবর নিবেন। ভালভাবে পড়াশোনা করছে কিনা খেয়াল রাখবেন। কলরব কিন্ডার গার্টেনের সভাপতি এস এম আহসান হাবিবের সভাপতি বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মর্গ্যান গার্লস স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক অশোক কুমার সাহা। এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন কলরব কিন্ডার গার্টেনের সহ সভাপতি মো. সেলিম, অধ্যক্ষ লায়লা হোসেন, মর্গ্যান গার্লস স্কুল এন্ড কলেজের গভর্নিং বডির সদস্য হুমায়ুন কবির, সুনয়ন মাহমুদ সুপন, ইয়া হোসেন মিয়া, মোশারফ হোসেন জনি, কলরব কিন্ডার গার্টেনের পরিচালনা পর্ষদের সদস্য শাহীনা আক্তার ও রাবেয়া খাতুন সহ অন্যান্য শিক্ষিকারা।

About ডান্ডিবার্তা

View all posts by ডান্ডিবার্তা →

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *