Home » প্রথম পাতা » সামসুলের বিরুদ্ধে দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগ

অনলাইনে আচার ব্যবসায় সফল উদ্যোক্তা তিথি

১২ অক্টোবর, ২০২১ | ৮:৩৩ অপরাহ্ণ | ডান্ডিবার্তা | 322 Views

ডান্ডিবার্তা রিপোর্ট
একজন সংগ্রামী নারী সাদিয়া মেরিলিন তিথি। সাংস্কৃতিক অঙ্গনের চেনা মুখ তিথির জন্য প্রযুক্তি আর্শিবাদ হয়ে দেখা দিলেও কুরিয়ার সার্ভিসের বিড়ম্ভনার কারণে মাঝে মধ্যে থমকে দাঁড়াতে হয় নারী উদ্যোক্তা তিথিকে। নিষ্ঠাবান সত্যভাসী তিথি নিজের পায়ে দাঁড়াতে অনলাইনের মাধ্যমে ব্যবসা শুরু করে। দেশীয় বিভিন্ন ফলের সংমিশ্রনে বিভিন্ন ধরনের আচার তৈরীর পাশাপাশি বিভিন্ন ব্যবসার সাথে তিথি জড়িত। সামাজিক দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি অনলাইন ব্যবসায় জড়িয়ে নিজ হাতের তৈরী মজাদার আচার বিভিন্ন গ্রাহকদের কাছে পৌছে দিয়ে ইতিমধ্যে বেশ সুনাম অর্জন করেছেন। সাদিয়া মেরিলিন তিথির ফেসবুক আইডিতে চাহিদামত সামগ্রী বিশেষ করে বিভিন্ন ধরনের আচারের অর্ডার দিলে তিথি নিজেই তা তৈরী করে গ্রাহকদের কাছে কুরিয়ারের মাধ্যমে পাঠিয়ে দেন। এভাবেই তিথি এখন সফল নারী উদ্যোক্তা হয়ে উঠেছেন। দেশে বিভিন্ন কোম্পানীর তৈরী আচারের উপর মানুষের যখন আস্থা প্রায় শূন্যের কোঠায়, তখন অনলাইনে এই আচারের ব্যবসা শুরু করেন তিথি। গ্রাহকদের চাহিদা মাফিক হরেক রকমের আচার তৈরী করে ইতিমধ্যে বেশ সুনাম কুড়িয়েছেন তিথি। সাদিয়া মেরিলিন তিথি জানান, নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ে এলাহীনগরের তিথি, মা তানিয়া নাসরীনের অনুপ্রেরনায় প্রথমে অল্প পরিসরে আচারের ব্যবসা শুরু করলেও এখন গ্রাহক সংখ্যা অনেক বেশী। জানা গেছে, অনলাইন ব্যবসায় যখন ফাঁকি দেয়া চলছে তখন নাম মাত্র লাভে সম্পূর্ন আধুনিক পদ্ধতিতে নিজ হাতে আচার তৈরী করে তা প্যাকেট করে গ্রাহকদের ঠিকানায় পৌছে দেন। একাধিক গ্রাহক জানান, তারা তিথির তৈরী আচার একাধিক বার ক্রয় করেছে। এক্ষেত্রে অনলাইন ব্যবসায় কুড়িয়ার সার্ভিসের কিছু কিছু এজেন্টের প্রতারনার কারণে সত্যিকার অর্থে উদ্যোক্তাদের হয়রানির শিকার হতে হয়। সম্প্রতি দেওভোগে তিথিকে দেয়া অর্ডার মাফিক আচার পাঠালেও ক্রিষ্টাল এক্সপ্রেসের নারায়ণগঞ্জ এজেন্ট তা বেশ কয়েকদিন আটকে রেখে পরে অনেকটা বাধ্য হয়ে গ্রাহকের কাছে পৌছায়। ফতুল্লার শাসনগাঁওয়ে অবস্থিত ক্রিষ্টাল এক্সপ্রেসের নারায়ণগঞ্জ এজেন্টের বিরুদ্ধে একাধিক গ্রাহক অভিযোগ করে জানান, তারা অনলাইনে পন্যের অর্ডার দেয়ার পর সে পন্য যথাসময়ে নারায়ণগঞ্জ এজেন্টের কাছে পৌছলেও এজেন্ট প্রায় ক্ষেত্রেই গড়িমসি করে আবার অনেক পন্য আত্মসাত করে ফেলে। এ ব্যপারে ক্রিষ্টাল এক্সপ্রেসের প্রধান কার্যালয় কর্তৃপক্ষ জানায়, তারা নারায়ণগঞ্জ এজেন্টের বিরুদ্ধে অচিরেই ব্যবস্থা নিবেন। মা তানিয়া নাসরীনের অনুপ্রেরনায় অনলাইন ব্যবসায় তিথির হাতের তৈরী আচার এখন দেশের সর্বত্র কদর বেড়েছে। সুনাম কুড়িয়েছে গ্রাহকদের মধ্যে। তিথি অনলাইন ব্যবসার পাশাপাশি গল্প কবিতাসহ সাংস্কৃতিক অঙ্গনেও বিচরণ রয়েছে। নারী উদ্যোক্তা সাদিয়া মেরিলিন তিথি নিজ পায়ে দাঁড়াতে গিয়ে আচার তৈরীর ব্যবসা তথা আধুনিক প্রযুক্তিতে বাজারজাত করণের চিন্তা ভাবনা করছেন। তার আচারের চাহিদা বৃদ্ধি পেলেও গ্রাহকদের কাছে পৌছতে কুড়িয়ার সার্ভিসের বিড়ম্ভনা ব্যবসার জন্য বড় সমস্যা বলে তিনি মন্তব্য করেন। দেশীয় ফলমূলসহ বিভিন্ন প্রকার আচার তৈরী করে তা গ্রাহকদের চাহিদা মাফিক পৌছে দিয়ে তিথি ইতিমধ্যে সুনাম অর্জন করেছে। তবে গ্রাহকদের কাছে পন্য পৌছাতে কুড়িয়ার সার্ভিস বা ডেলিভারীম্যানরা যেন গ্রাহকদের সাথে প্রতারনা না করে এজন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের নজরধারী দাবি করেছেন ভিন্নধর্মী আচার তৈরীর এই উদ্যোক্তা। যদিও ক্রিষ্টাল এক্সপ্রেস জানিয়েছে, ইতিমধ্যেই তারা নারায়ণগঞ্জ এজেন্টের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিয়েছেন। ভিন্নধর্মী রকমারি আচার তৈরী করে সাদিয়া মেরিলিন তিথি এখন অনলাইন ব্যবসায় নারী সফল উদ্যোক্তা। একজন ফেসবুক বন্ধু ফেসবুকে লিখেন, তার নাম সাদিয়া মেরিলিন তিথি বাড়ি নারায়ণগঞ্জ জেলার এলাহিনগরে মা কবি সাংবাদিক তানিয়া নাসরিন সে অনলাইন বিজনেস করার উদ্যোগ নেয়, সে আচার, নাড়ু, ঘি, শোপিস আয়না টিপ নানাকিছু বানায় আমার সাথে ফেসবুকে পরিচয়, আচার অর্ডার করি, সে টাকা এডভান্স চায় আমি দিলাম। সে বিশ্বাসের মর্যাদা রেখে আচার পাঠায়, কিন্তু কুরিয়ারে নারায়ণগঞ্জের এজেন্ট তাকে বলে তারা পণ্য পায়নি, বিষয়টিতে আমি হস্তক্ষেপ করে আচার হাতে পাই রাত ১১টার দিকে, আচার আমার ভালো লেগেছে, আমি তাঁর কল্যাণ কামনা করি, তার ব্যবসায়ের উওরোউত্তর সমৃদ্ধি কামনা করি, আপনারা তার থেকে অর্ডার করতে পারবেন।

Comment Heare

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *