Home » প্রথম পাতা » রূপগঞ্জ ভ’মি অফিসে অনিয়মই যেন নিয়ম

অস্তিত্ব সংকটের আশঙ্কায় আ’লীগ

১৬ মে, ২০২২ | ৯:২৮ পূর্বাহ্ণ | ডান্ডিবার্তা | 109 Views

ডান্ডিবার্তা রিপোর্ট

নারায়ণগঞ্জ আওয়ামী লীগের এক পক্ষকে সাংগঠনিক ভাবে দূর্বল করার চেষ্টা চলছে নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের নির্বাচনের পর থেকে। দলীয় প্রার্থীর পক্ষে কাজ না করার অভিযোগ তুলে নারায়ণগঞ্জ আওয়ামীলীগের উত্তর মেরুর নেতাকর্মীদের রাজনৈতিক ভাবে ঘায়েলের চেষ্টা চলছে এমন গুঞ্জন রাজনৈতিক অঙ্গনে। এরফলে বলয় পরিবর্তনের হিরিক পরেছে সর্বত্র। ওসমান বলয় ত্যাগ করে কেউ কেউ ভোল পাল্টাতে শুরু করে। রাজনীতিতে অস্তিত্ব সংকটে পরতে পারে এমন শঙ্কায় অনেক নেতা পর্দার আড়ালে থেকে পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করছে। অবস্থা বুঝে বলয় পরিবর্তন করবেন। কিছু নেতা পদ হারানোর শঙ্কায় রয়েছে। সূত্রমতে, নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের নির্বাচনকে ঘিরে আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে উত্তেজনা শুরু হয়েছে। একটি পক্ষকে কোনঠাসা করতে দলের অপর একটি পক্ষ তৎপর হয়ে উঠেছে এমন গুঞ্জন পুরো জেলা জুড়ে। নিবার্চনের নারায়ণগঞ্জ আওয়ামী লীগের একটি পক্ষ চিন্তিত হলেও অপর একটি পক্ষ উৎফুল্ল রয়েছে। তবে যে পক্ষকে কোন ঠাসা করার আলোচনা হচ্ছে, সে পক্ষটি মূলত রাজনীতিতে সক্রিয় ভূমিকা পালন করে থাকে। বিরোধী দলের জ্বালাও পোড়াও আন্দোলন দমন-পীড়ন, সরকার বিরোধী সব ধরনের ষড়যন্ত্র মোকাবেলায় রাজপথে থেকে অগ্রণী ভূমিকা পালন করেন। কিন্তু, নাসিক নিবার্চনের পর থেকে জেলার রাজনীতিতে নয়া সমীকরণ শুরু হয়েছে। দলের সক্রিয় নেতাদের কোন ঠাসা করতেই নানামুখী ষড়যন্ত্র শুরু হয়েছে এমন অভিযোগ খোদ আওয়ামী লীগের মাঠ পর্যায়ের নেতাকর্মীদের। তবে দলের হাই কমান্ড যদি সক্রিয় এবং ত্যাগী নেতাকর্মীদের কোন ঠাসা করেন তা হলে নারায়ণগঞ্জ আওয়ামী লীগের উপকারের চেয়ে ক্ষতিই বেশী হবে এমনটাই মনে করছেন বোদ্ধা মহল। তথ্যমতে, নারায়ণগঞ্জ আওয়ামী লীগের মধ্যে একটি পক্ষের পৌষ মাস চললেও অপর পক্ষে সর্বনাশ শুরু হয়েছে। নাসিক নিবার্চনকে কেন্দ্র করে নারায়ণগঞ্জ আওয়ামী লীগকে নতুন করে সাজানোর উদ্যোগ নিয়েছেন। ইতোমধ্যে বেশ কয়েকটি কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা করেছে হাইকমান্ড। তবে আওয়ামী লীগের কমিটি বিলুপ্ত করা নিয়ে নানা গুঞ্জন-গুজব ছড়িয়ে পরেছে জেলা জুড়ে। আতঙ্ক ছড়িয়েছে নেতাকর্মীদের মধ্যেও। অনেকে রাজনীতিতে নিজেকে টিকিয়ে রাখতে কিংবা স্বপদে বহাল থাকতে নানা মহলে লবিং শুরু করেছেন বলেও বিভিন্ন সূত্রে জানাগেছে। এ অবস্থা থেকে নেতাদের সরে আসা প্রয়োজন বলে মনে করছেন বিশ্লেষক মহল। আর সবচেয়ে বেশী ক্ষতি হয়েছে আওয়ামীলীগের মধ্যে মেরু করণের রাজনীতির কারণে। বর্তমানে আওয়ামী রাজনীতি এমন হয়েছে কে কাকে কত দ্রুত ল্যাং মেরে বা ঘায়েল করে নিচু দেখাবে সেই প্রতিযোগিতায় মেতে উঠেছে। এভাবে চলতে থাকলে সেদিন আর বেশী দুরে নয় সাধারণ মানুষ আওয়ামীলীগের উপর থেকে আস্থা হারিয়ে ফেলবে। তাই নেতাকর্মীদের ঐক্যমতের ভিত্তিতে সকল ভেদাভেদ ভুলে এক কাতারে এসে রাজনীতি করা উচিৎ বলে মনে করেন রাজনৈতিক বিশ্লেষক মহল।

Comment Heare

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *