আজ: শনিবার | ১৯শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ | ৪ঠা আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ | ২রা সফর, ১৪৪২ হিজরি | রাত ৮:৪০

সংবাদের পাতায় স্বাগতম

আওয়ামী লীগের ত্যাগীরা বিপাকে

ডান্ডিবার্তা | ১৮ জানুয়ারি, ২০২০ | ১১:৪১

ডান্ডিবার্তা রিপোর্ট

নারায়ণগঞ্জে আওয়ামীলীগের রাজনীতিতে নেতাদের কোন্দল বেড়ে যাওয়ায় কর্মীরাদের মাঝে হতাশা দিন দিন বাড়ছে। বর্তমান পরিস্থিতিতে নারায়ণগঞ্জ আওয়ামী লীগের ত্যাগী নেতাদের মধ্যে চলছে চরম অস্থিরতা। দলের দু:সময়ে যে সকল নেতাকর্মীরা দলের স্বার্থে কাজ করেছেন সেই সকল নেতারাই এখন কোনঠাসা হয়ে পড়েছে। একই সাথে দীর্ঘদিন দল ক্ষমতায় থাকার কারণে আওয়ামী লীগ এবং অঙ্গ সংগঠনের কিছু নেতা আঙ্গুল ফুলে কলাগছ হয়েছে। এক সময় যাদের নূন আনতে পান্তা ফুরতো এখন তাদের অনেকেরই জীবনের পট পাল্টে গেছে। বিলাশ বহুল গাড়ি আর আলিশান বাড়িতে বসবাস করছেন। তাদের অবস্থার পরিবর্তণে মনে হচ্ছে ক্ষমতার পুরো সুবিধা তারাই ভোগ করছেন। অন্যদিকে আওয়ামী লীগের অনেক ত্যাগী নেতা এখনো ক্ষমতান স্বাদ ভোগ করতে পারেনি। ভাগ্যের পরিবর্তণ ঘটেনি তাদের। দল ক্ষমতার বাইরে থাকতে যেমন দিন কেটেছে, এখনো ঠিক তেমনি ভাবে দিন পার করছেন। তবে বর্তমাণে প্রধানমন্ত্রী যে দূর্নীতি বিরোধী শুদ্ধি অভিযান শুরু করেছে এই অভিযানকে স্বাগত জানিয়েছে আওয়ামী লীগের ত্যাগী এবং অবহেলিত নেতাকর্মীরা। কিন্তু নারায়ণগঞ্জে সেই শুদ্ধি অভিযান এখনো পরিচালিত না হওয়ায় হতাশ হয়েছেন ত্যাগী নেতাকর্মীরা। সূত্রমতে, প্রধানমন্ত্রী যে দূর্নীতি বিরোধী শুদ্ধি অভিযান শুরুর পর থেকে নারায়ণগঞ্জ আওয়ামী লীগের ক্ষমতাধর নেতাদের মধ্যে কাঁপন ধরেছিল। অনেক নেতা নিজেকে ঘুটিয়ে রেখেছেন দলীয় সব ধরনের কর্মকান্ড থেকে। আগে যেসব নেতা সামান্য কিছুতে বুক ফুলিয়ে থানা গিয়ে প্রভাব বিস্তার করতেন এখন সেসব নেতাদের আগের মতো আর থানায় যাতায়াত করতে দেখা যায়না। আগে যাদের দাপটে সর্বত্র অতিষ্ট ছিল সেসব নেতাদের আগের মতো প্রকাশ্যে দেখা মিলছে না। অনেকটা ক্ষমতায় থেকে বিরোধী দলের ন্যায় দিন যাপন করেছিল। কিন্তু গত ডিসেম্বরে আওয়ামীলীগের কেন্দ্রীয় সম্মেলনের পর শুদ্ধি অভিযান স্থগিত হয়ে যাওয়ায় বিপাকে পড়ের স্থানীয় আওয়ামীলীগের ত্যাগী নেতারা। পাশাপাশি সম্প্রতি আওয়ামীলীগের বিতর্কিতরাও আবারোও নিজেদের আধিপত্য বিস্তারে মাঠে নেমেছেন। সূত্র বলছে, আওয়ামী লীগ টানা ক্ষমতায় থাকার কারণে অনেক নেতার ভাগ্যের পরিবর্তণ ঘটেছে। কেউ কেউ শূণ্য থেকে কোটিপতি বনেও গেছে। আগের চেয়ে কয়েকগুন সম্পদ বৃদ্ধি পেয়েছে কিছু নেতারা। যাকে বলে আঙ্গুল ফুলে কলাগাছ হওয়া। তবে আওয়ামী লীগের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যে দূনীর্তি বিরোধী শুদ্ধি অভিযান শুরু করেছে এই অভিযানকে স্বাগত জানিয়েছিলেন আওয়ামী লীগের ত্যাগী ও অবহেলিত নেতাকর্মীরা। পাশাপাশি নারায়ণগঞ্জেও এই অভিযান পরিচালনার দাবী জানিয়েছিল। কিন্তু নারায়ণগঞ্জে এই অভিযান পরিচালিত না হওয়ায় পুনরায় বিতর্কিতরা বেপরোয়া হয়ে উঠেছে। আর বিতর্কিতদের কারণে নারায়ণগঞ্জে আওয়ামীলীগের ইমেজ ক্ষুন্ন হচ্ছে বলে মনে করছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *