Home » প্রথম পাতা » রূপগঞ্জ ভ’মি অফিসে অনিয়মই যেন নিয়ম

আজাদের হাতে না’গঞ্জ বিএনপি জিম্মি!

২২ নভেম্বর, ২০২১ | ১০:০২ পূর্বাহ্ণ | ডান্ডিবার্তা | 114 Views

ডান্ডিবার্তা রিপোর্ট

নারায়ণগঞ্জ জেলা ও মহানগর বিএনপির নেতৃত্ব দূর্বলতার কারনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক নজরুল ইসলাম আজাদের কাছে জিম্মি হয়ে পড়েছে এখানকার রাজনীতি। জেলা ও মহানগর বিএনপি সহ এর অঙ্গ সহযোগী সংগঠনগুলোর কমিটি গঠনে একক নিয়ন্ত্রণ এখন আজাদের হাতে। বর্তমানে নারায়ণগঞ্জ জেলা ও মহানগর মহিলা দলের কমিটি গঠন এবং মহানগর যুবদলের আহ্বায়ক কমিটি গঠনে আজাদের একক আধিপত্য দেখা গেলো। এর আগে জেলা স্বেচ্ছাসেবক দল ও জেলা ছাত্রদল এবং এর আওতাধীন বিভিন্ন থানায় কমিটি গঠনে স্বাধীনতা ছিলো না কমিটিগুলোর নেতাদের হাতে। যার পেছনে আজাদের নানা বাধা প্র্রতিবন্ধকতা রয়েছে। শুধু তাই নয় আজাদকে ইঙ্গিত করে বক্তব্য দেয়ায় নানা হুমকি ধমকি বাধার পরে বিএনপির রাজনীতি ছেড়ে দিয়েছেন জেলা যুবদলের সহ-সভাপতি পারভেজ মল্লিক। গত ১৬ নভেম্বর নারায়ণগঞ্জ মহানগর যুবদলের আহ্বায়ক কমিটি গঠন করেছে কেন্দ্রীয় যুবদল। কমিটিতে মমতাজ উদ্দীন মন্তুকে আহ্বায়ক ও মনিরুল ইসলাম সজলকে সদস্য সচিব করে ৫ সদস্যের আংশিক কমিটি গঠন করা হয়। কমিটিতে সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক সাগর প্রধান ও যুগ্ম আহ্বায়ক মোয়াজ্জেম হোসেন মন্টি, সাহেদ আহামেদকে করা হয়। এখানকার যুবদলের নেতাকর্মীরা বলছেন- মুলত নজরুল ইসলাম আজাদের কালো থাবায় কোনোদিন যুবদলের রাজনীতি না করলেও মহানগর যুবদলের সদস্য সচিব পদে অধিষ্ট হয়েছেন মনিরুল ইসলাম সজল। আড়াইহাজার ছাপিয়ে নজরুল ইসলাম আজাদ এবার জেলা মহানগর ঝুড়ে রাজনীতি নিয়ন্ত্রণে নেমেছেন। ধীরে ধীরে তার মুঠোবন্ধি হয়ে যাচ্ছে নারায়ণগঞ্জের বিএনপি ও অঙ্গ সহযোগী সংগঠনগুলোর নেতৃত্ব। এর মধ্যে মমতাজ উদ্দীন মন্তু ছিলেন পূর্বের কমিটির সাধারণ সম্পাদক, সাগর প্র্রধান ছিলেন সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক, মোয়াজ্জেম হোসেন মন্টি ছিলেন সহ-সভাপতি। কিন্তু মনিরুল ইসলাম সজল ছিলেন মহানগর বিএনপির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও মহানগর ছাত্রদলের সভাপতি পদে বহাল রয়েছেন সাহেদ আহমেদ। মনিরুল ইসলাম সজল কেন্দ্রীয় বিএনপির সহ-আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক নজরুল ইসলাম আজাদ বলয়ে রাজনীতি করেন এবং সাহেদ আহমেদের মামা মোশারফ হোসেন কেন্দ্রীয় যুবদলের সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক পদে রয়েছেন। মহানগর বিএনপির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক পদ থেকে পদত্যাগের ঘোষণা দিয়ে মহানগর যুবদলের নেতৃত্ব পেতে মাঠে নামেন মনিরুল ইসলাম সজল। তিনি মুলত নজরুল ইসলাম আজাদের বলয়ে রাজনীতি করেন। জেলা বিএনপি ছাপিয়ে এবার মহানগরীর রাজনীতি নিয়ন্ত্রণে আজাদ। এদিকে সম্প্র্রতি নারায়ণগঞ্জ জেলা ও মহানগর মহিলা দলের কমিটি গঠন করা হয়েছে। জেলা মহিলা দলে সভাপতি রহিমা শরীফ মায়া ও সাধারণ সম্পাদক রুমা আক্তার এবং মহানগর কমিটিতে দিলারা মাসুদ ময়না ও আয়েশা আক্তার দিনাকে সাধারণ সম্পাদক করা হয়। এই কমিটি গঠনের পেছনেও আজাদের হাত রয়েছে বলে পদবঞ্চিতরা অভিযোগ করেছেন। এর আগে জেলা ও মহানগর ছাত্রদলের আওতাধীন বিভিন্ন থানা কমিটি গঠনে আজাদের হুকুমত ছাড়া কমিটি দিতে পারেনি জেলার শীর্ষ নেতারা। আজাদের নিয়ন্ত্রনে দেয়া হয়েছে আড়াইহাজার ছাত্রদলের কমিটি। একইভাবে জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের একক নিয়ন্ত্রনও এখন আজাদের হাতে। আড়াইহাজারে স্বেচ্ছাসেবক দলের কমিটিও আজাদ অনুগামীদের হাতে নেতৃত্বে তুলে দিয়েছেন জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি সায়েম ও সাধারণ সম্পাদক মাহাবুব। সম্প্রতি জেলা যুবদলকে জিম্মি করে আড়াইহাজার উপজেলা যুবদলের কমিটির নিয়ন্ত্রন নিয়েছেন আজাদ। যেখানে অন্যান্য বলয়ের নেতাদের বঞ্চিত করা হয়। এসব গঠনে জেলা বিএনপির কোনো কর্তৃত্ব দেখা যায়নি।

Comment Heare

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *