Home » প্রথম পাতা » রূপগঞ্জ ভ’মি অফিসে অনিয়মই যেন নিয়ম

আর প্রতিবাদ নয়, এখন প্রতিরোধের পালা

২০ নভেম্বর, ২০২১ | ৮:৩৯ পূর্বাহ্ণ | ডান্ডিবার্তা | 127 Views

ডান্ডিবার্তা রিপোর্ট

দেওভোগের জিউস পুকুরসহ নারায়ণগঞ্জের বিভিন্ন দেবোত্তর সম্পত্তি রক্ষায় নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের মেয়র ডা সেলিনা হায়াত আইভীকে ৭ দিনের আল্টিমেটাম দিয়েছে পূজা উদযাপন পরিষদ ও হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের নেতারা। গতকাল শুক্রবার  বিকেলে নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবের সামনে আয়োজিত এক প্রতিবাদ সমাবেশে এই আল্টিমেটাম দেন তারা। আগামী ৭ দিনের মধ্যে নারায়ণগঞ্জ এ বিষয়ে পয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া না হলে নগর ভবন ঘেরাও সহ কঠোর কর্মসূচির হুঁশিয়ারি দেন সনাতন ধর্মাবলম্বী নেতারা। নারায়ণগঞ্জ জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি দীপক কুমার সাহার সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক শিখন সরকার শিপনের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত প্রতিবাদ সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নারায়ণগঞ্জ জেলা হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের আহ্বায়ক প্রদীপ কুমার দাশ। উপস্থিত ছিলেন নারায়ণগঞ্জ মহানগর পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি অরুণ কুমার দাস, সাধারণ সম্পাদক উত্তম সাহা, জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের যুগ্ম সম্পাদক সাংবাদিক উত্তম সাহা, মহানগর হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সভাপতি লিটন পাল, সাধারণ সম্পাদক নিমাই দে, সোনারগাঁ থানা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি, পূজা পরিষদ নেতা সুশীল দাস, রিপন ভাওয়াল, বন্দর পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি সংকর দাস, সাধারণ সম্পাদক শ্যামল বিশ্বাস সহ নেতৃবৃন্দ। প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তারা বলেন, নারায়ণগঞ্জ একটি অসাম্প্রদায়িক শহর। এখানে সকল ধর্মের মানুষ মিলেমিশে বাস করে। “ধর্ম যার যার রাষ্ট্র সবার” এই নীতিতে বিশ্বাসী নারায়ণগঞ্জের মানুষ কখনো একের ধর্মীয় কাজে অন্যের বাধা সৃষ্টি করে না। কিন্তু একটি প্রতিক্রিয়াশীল চক্র নারায়ণগঞ্জের বিভিন্ন ধর্মীয় উপাসনালয়ের সম্পত্তি জোরপূর্বক দখলের চেষ্টা করছে। আমরা এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই। এবং অবিলম্বে নারায়ণগঞ্জ এসকল দেবোত্তর সম্পত্তি ফিরিয়ে দেওয়ার দাবি জানাই। আগামী ৭ দিনের মধ্যে নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র সেলিনা হায়াৎ আইভী ও তার পরিবার কর্তৃক দখলকৃত দেওভোগ লক্ষীনারায়ন আখড়ার মালিকানাধীন জিউস পুকুরসহ নারায়ণগঞ্জ শ্মশান এবং আরো যেসব দেবোত্তর সম্পত্তি অবৈধভাবে দখল করে রাখা হয়েছে তা ফিরিয়ে না দিলে আমরা কঠোর কর্মসূচি দিতে বাধ্য হবো। তারা বলেন, দেবোত্তর সম্পত্তি রক্ষায় আমরা দিনের পর দিন আন্দোলন সংগ্রাম করে যাচ্ছি। আমাদের কর্মসূচিতে প্রায় ২৩ টি সংগঠন একাত্মতা প্রকাশ করেছে। নানা রাজনৈতিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও পেশাজীবী সংগঠনের নেতারা দেবোত্তর সম্পত্তি রক্ষায় আমাদের সাথে ঐক্যবদ্ধ হয়ে আওয়াজ তুলেছে। ধর্ম বর্ণ নির্বিশেষে সকলে আমাদের সাথে কণ্ঠে কণ্ঠ মিলিয়ে বলেছে দেবোত্তর সম্পত্তি মেয়র আইভীকে ফিরিয়ে দিতে হবে। কিন্তু দুঃখের বিষয় হলো মেয়র আইভী কারো বিরুদ্ধে ব্যবস্থা না নিলেও নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট খোকন সাহার বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা দায়ের করেছে। এ থেকে বোঝা যায় মেয়র আইভী সাম্প্রদায়িক মনোভাব সম্পন্ন একজন মহিলা। কারণে খোকন সাহা হিন্দু বলেই তাঁর বিরুদ্ধে মামলা দিয়েছে। আমরা আজকের প্রতিবাদ সভা থেকে বলতে চাই, এ ধরনের সাম্প্রদায়িক মনোভাব বজায় রাখাট কাউকে যেনো ভবিষ্যতে নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র পদে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন দেয়া না হয়। তারা আরো বলেন, আমরা দেবোত্তর সম্পত্তি রক্ষার দাবিতে ইতিমধ্যে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি দিয়েছি। সভা সমাবেশ মানববন্ধন বিক্ষোভ মিছিল করেছি। কিন্তু মেয়র ও তার পরিবারের লোকজন আমাদের দেবোত্তর সম্পত্তি ফিরিয়ে দিচ্ছে না। আর তাই আমরা তাদের হুঁশিয়ার করে দিয়ে বলতে চাই আমরা আর প্রতিবাদ করব না, এখন প্রতিরোধের পালা। আর আমরা প্রতিরোধে নামলে আপনি সামলাতে পারবেন তো।

Comment Heare

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *