Home » শেষের পাতা » হাইকোর্টের আদেশ অমান্য করে সড়ক-মহাসড়কে চলছে চাঁদাবাজী

আ’লীগের বিরোধে বিপাকে তৃনমূল

২৬ মে, ২০২২ | ৯:৪৩ পূর্বাহ্ণ | ডান্ডিবার্তা | 94 Views

ডান্ডিবার্তা রিপোর্ট

নারায়ণগঞ্জে শীর্ষ নেতা থেকে শুরু করে মাঠ পার্যায়ের নেতারা এই বিরোধে জড়িয়ে পরেছে। খোকন সাহার বিরুদ্ধে আইসিটি আইনে মামলায় গ্রেফতারি পরোয়ানা আওয়ামীলীগের বিরোধে নতুন মাত্র যোগ হয়। যদিও খোকন সাহা জামিন নিয়েছেন। কিন্তু বিরোধ আরো চাঙ্গা হয়ে উঠেছে। তবে দলের কেন্দ্রীয় নেতারা এই বলয় ভেঙে দিতে চাইলেও এতো অল্প সময়ে দীর্ঘদিনের এই বলয় ভেঙে দিতে পারবেন না এমনটাই মনে করছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষক মহল। সম্প্রতি পুলিশ লাইনে পুলিশের আয়োজনে ইফতার মাহফিলে শামীম-আইভী এক টেবিলে বসে ইফতার করলেও তাদের মধ্যে বিরোধ স্পষ্ট তা সকলের কাছে প্রতিমান হয়ে উঠেছে। কেউ কারো পানে তাকায়নি বা কথাও বলেনি। সূত্রমতে, দীর্ঘদিন ধরে নারায়ণগঞ্জ আওয়ামী লীগের রাজনীতি বলয় দ্বারা নিয়ন্ত্রিত হচ্ছে। নারায়ণগঞ্জে একাধিক বলয় থাকলেও শক্তিশালী বলয় হিসেবে পরিচিতি লাভ করেছে শামীম-আইভীর রাজনৈতিক বলয়টি। এই দুই বলয়কে ঘিরেই নারায়ণগঞ্জ আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সংগঠনের রাজনৈতিক কর্মকান্ড পরিচালিত হচ্ছে। তবে বলয়কে ঘিরে রাজনৈতিক চর্চা হলেও এই দৌড়ে এগিয়ে রয়েছেন সাংসদ শামীম সমানের বলয়টি। অনুসন্ধ্যানে জানাগেছে, নারায়ণগঞ্জ জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের আহ্বায়ক নিজাম উদ্দিন আহমেদ পারিবারিক সম্পর্কের দিক থেকে আইভীর মামা হলেও এই সংগঠনের প্রধান তিন নেতা শামীমের রাজনীতি অনুসরণ করেন। তারা হলেন জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সদস্য সচিব গোলাম কিবরিয়া খোকন, মহানগর শাখার সভাপতি জুয়েল হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক সাইফুদ্দিন আহমেদ দুলাল প্রধান। এ ব্যাপারে জানতে চাইলে স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক আফজালুর রহমান বাবু গণমাধ্যমকে বলেন, নাসিক নির্বাচনে বিতর্কিত ভূমিকা থাকায় নারায়ণগঞ্জ জেলা, মহানগরসহ সদর, ফতুল্লা, সিদ্ধিরগঞ্জ, বন্দর, রূপগঞ্জ, সোনারগাঁ এবং মহানগরের আওতাধীন ২৭টি ওয়ার্ড কমিটি বিলুপ্ত করা হয়েছে। দ্রুতই সম্ভাব্য নেতৃত্বের জীবনবৃত্তান্ত সংগ্রহর পর আলোচনা কিংবা সম্মেলনের মাধ্যমে সব কমিটি পুনর্গঠন করা হবে। স্থানীয় মহিলা আওয়ামী লীগ এবং যুব মহিলা লীগে একচ্ছত্র প্রাধান্য শামীম ওসমান বলয়ের। তাদের মধ্যে রয়েছেন মহিলা আওয়ামী লীগের জেলা সভাপতি শিরিন বেগম, মহানগর সভাপতি ইসরাত জাহান স্মৃতি, সাধারণ সম্পাদক রেহেনা বেগম, যুব মহিলা লীগের জেলা আহ্বায়ক সাদিয়া আফরিন ও মহানগর আহ্বায়ক সুইটি ইয়াছমিন। এ দুই অঙ্গ সংগঠনও ঢেলে সাজানোর প্রস্তুতি শুরু হয়েছে। মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মাহমুদা বেগম জানিয়েছেন, খুব কম সময়ের মধ্যেই সম্মেলনের মাধ্যমে নারায়ণগঞ্জ জেলা ও মহানগর শাখা পুনর্গঠন করা হবে। এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় সাংগঠনিক প্রস্তুতি চলছে। যুব মহিলা লীগের সভাপতি নাজমা আক্তার বলেন, সংগঠনের নারায়ণগঞ্জ জেলা ও মহানগর কমিটি নতুন করে সাজানো হবে। অর্থাৎ সম্মেলনের মাধ্যমে এ দুই কমিটি পুনর্গঠন করা হবে। নারায়ণগঞ্জ যুবলীগ, কৃষক লীগ এবং তাঁতী লীগের নেতাকর্মীরাও আলোচিত দুই নেতাকে ঘিরে বিভক্ত হয়ে আছেন। এদের মধ্যে যুবলীগের জেলা সাধারণ সম্পাদক আবু হাসনাত মোহাম্মদ শহীদ বাদল, মহানগর সভাপতি শাহাদাৎ হোসেন সাজনু, কৃষক লীগের জেলা সভাপতি নাজিম উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক ইব্রাহিম চেঙ্গিস, মহানগর সভাপতি শরীফুজ্জামান জুয়েল, সাধারণ সম্পাদক জিল্লুর রহমান লিটন, তাঁতী লীগের জেলা সভাপতি হাসান ফেরদৌস জুয়েল, সাধারণ সম্পাদক আলমগীর হোসেন, মহানগর আহ্বায়ক শাহেদ হোসেন ও সদস্য সচিব জাহাঙ্গীর আলম, জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আজিজ, সাধারণ সম্পাদক রাফেল প্রধান এবং বিলুপ্ত মহানগর ছাত্রলীগের সভাপতি হাবিবুর রহমান রিয়াদ ও সাধারণ সম্পাদক বন্দিু জড়িয়ে আছেন শামীম ওসমান বলয়ের রাজনীতিতে। আইভীর ছোট ভাই মহানগর যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক আহাম্মেদ আলী রেজা উজ্জ্বল ও জেলা যুবলীগের সভাপতি আবদুল কাদির আইভীর বলয়ে রয়েছেন।

Comment Heare

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *