Home » প্রথম পাতা » শ্রী কৃষ্ণের জন্মাষ্টমী আজ

ইউক্রেনে যুদ্ধের কারণে দেশে গ্যাস ও বিদ্যুতের অভাব হয়েছে: তৌফিক-ই-ইলাহী

০৩ আগস্ট, ২০২২ | ১০:২৮ পূর্বাহ্ণ | ডান্ডিবার্তা | 32 Views

ডান্ডিবার্তা রিপোর্ট প্রধানমন্ত্রীর বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিষয়ক উপদেষ্টা ড. তৌফিক-ই-ইলাহী চৌধুরী বলেছেন, আমাদের গ্যাস এখন বিরাট সঙ্কটে রয়েছে। এটা কিন্তু আমাদের তৈরি না। আজকে যদি ইউক্রেনে যুদ্ধ না লাগতো আর আকাশচুম্বী দাম না হতো তাহলে আপনারা টের পেতেন না। বাংলাদেশে কোনো রকম অভাব হতো না। বিদ্যুৎ ও গ্যাসের অভাব হতো না। ইউরোপীয়ান যুদ্ধের কারণে খেসারত আমরা দিচ্ছি। গতকাল মঙ্গলবার জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিসন এন্ড ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেড এর আওতাধীন এলাকায় স্থাপিত সিসি ক্যামেরার সাহায্যে মনিটরিং কার্যক্রমের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।  তিনি বলেন, আকাশচুম্বী দাম যতদিন থাকবে ততদিন আমাদের সামনে বিরাট চ্যালেঞ্জ থাকবে। বিদ্যুৎ উৎপাদন করার ক্ষমতা ও গ্যাস সরবরাহ করার সব ব্যবস্থা আমাদের আছে। দেশে বিভিন্ন রকম বিভ্রান্তি ছড়ানো হচ্ছে। এই খরচ বাড়তাছে-কমতাছে বিষয় এটা নয়। এখন মুখ্য সঙ্কটবাদী চ্যালেঞ্জ আমাদের সাথে। সেটা হলো আকাশচুম্বী দাম। আমাদের আয় অনুযায়ী সেভাবে আমাদের থাকতে হবে। গ্যাস নিয়ে কোনো বেআইনী কাজ করা যাবে না। সকলের সহযোগিতা কামনা করে তৌফিক-ই-ইলাহী চৌধুরী বলেন বর্তমান পরিস্থিতি একটা যুদ্ধ। এই যুদ্ধ মোকাবেলায় সকলকে এগিয়ে আসতে হবে। আপনারা যদি সহযোগিতা না করেন তাহলে কিছু হবে না। তিনি আরও বলেন, যারা অবৈধ কানেকশন ও বাণিজ্য করবে তাদেরকে আপনারা বরদাস্ত করবেন না। তিতাস যেহেতু এখানে কাজ করে আপনারা তিতাসকে সহযোগিতা করবেন। তারা অনেক সময় বিপদের সম্মুখীন হয় আপনারা তাদের পাশে থাকবেন। অবৈধ গ্যাস যদি আমরা কমাতে পারি তাহলে বৈধকারিরা একটু গ্যাস বেশি পাবেন। নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসক মঞ্জুরুল হাফিজের সভাপতিত্বে উপস্থিত ছিলেন, পেট্রোবাংলার চেয়ারম্যান নাজমুল আহসান, তিতাসের এমডি হারুন অর রশীদ মোল্লা, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) আমির খসরু, নাসিকের সিও শহিদুল ইসলাম, বিকেএমএর নির্বাহী সভাপতি মোহাম্মদ হাতেম, নারায়ণগঞ্জ চেম্বার অফ কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির সিনিয়র সহ-সভাপতি মোর্শেদ সারোয়ার সোহেলসহ জনপ্রতিনিধি ও ব্যবসায়ীবৃন্দ।

Comment Heare

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *