Home » প্রথম পাতা » পদ্মা সেতু জাতির আরেক বিজয়

একাত্তরের পরাজিত শক্তিরা জাতীয় চার নেতাকে হত্যা করেছে:বাদল

০৪ নভেম্বর, ২০২১ | ১০:৩৮ পূর্বাহ্ণ | ডান্ডিবার্তা | 86 Views

ডান্ডিবার্তা রিপোর্ট

নারায়ণগঞ্জ জেলার আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এডঃ আবু হাসনাত মোঃ শহিদ বাদল বলেছেন, বাঙালি জাতির ইতিহাসে কলঙ্কিত অধ্যায় জেলহত্যা দিবস। ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট ঘাতকরা বর্বরোচিতভাবে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে স্বপরিবারে হত্যা করে। গতকাল বুধবার জেলহত্যা দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। তিনি আরো বলেন, বঙ্গবন্ধুর আজীবন রাজনৈতিক সহচর, বঙ্গবন্ধুর অবর্তমানে যারা মুক্তিযুদ্ধের নেতৃত্ব দিয়েছিলেন সেই জাতীয় চার নেতাকে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারের ভেতর গুলি করে ও বেয়নেট দিয়ে খুঁচিয়ে খুঁচিয়ে হত্যা করে। একাত্তরের মহান মুক্তিযুদ্ধের পরাজিত শক্ররা এ দেশের স্বাধীনতাকে মেনে নিতে পারেনি। পরাজয়ের প্রতিশোধ নিতে স্বাধীনতা বিরোধী দেশি-বিদেশি চক্র জাতির পিতাকে হত্যা করার পর খুনি মোশতাকের নেতৃত্বে স্বাধীনতা বিরোধী ওই চক্র এ দেশকে পাকিস্তান বানানোর ষড়যন্ত্রে মেতে ওঠে। এডঃ আবু হাসনাত মোঃ শহিদ বাদল আরো বলেন, শুধু তাই- ই নয় বাংলাদেশকে নেতৃত্ব শুন্য করে এদেশ যেনো ব্যর্থ রাষ্ট্রে পরিণত হয় সেই চক্রান্ত করে স্বাধীনতা বিরোধী চক্র। এদেশে যেন কোনদিন স্বাধীনতার স্বপক্ষের শক্তি মাথা তুলে দাঁড়াতে না পারে সেই ষড়যন্ত্র থেকেই নিরাপদ স্থান জেলখানার অভ্যন্তরে ঘাতকরা এই হত্যাকা- সংগঠিত করেছিল। অনুষ্ঠান সঞ্চালনায় ইঞ্জিনিয়ার মোঃ আলমগীর হোসেন বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের হাতেই শ্রমিক লীগ প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল। একাত্তরের যুদ্ধের সঙ্গে প্রথম মুক্তিযুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়েছিল। তখন কোন শিল্পপতি ব্যবসায়ীরা অংশ নেয়নি অংশ নিয়েছিলেন শ্রমিক ও সাধারণ জনগণরা। বঙ্গবন্ধুর কন্যা শেখ হাসিনা এ দেশকে উন্নয়নের ধারপ্রান্তে নিয়ে যাচ্ছেন। তার উন্নয়নকে বাধাগ্রস্থ করতে যুদ্ধপরাধী চক্র বাধাগ্রস্থ করছে। তারপরও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশকে উন্নয়ন করতে পিছপা হচ্ছে না কোনো অপশক্তিই তাকে থামাতে পারবেনা। সকল ষড়যন্ত্রের জাল ছিন্ন করে এই দেশকে উন্নত দেশে পরিণত করতে দিনরাত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন। তাই সমাজের মানুষের জন্য শ্রমিক কল্যাণ ফান্ড গঠন করে তাদের ছেলে-মেয়েদের লেখাপড়ার দায়িত্বও তিনি নিয়েছেন বিনা পয়সায়। পাশাপাশি শিক্ষাক্ষেত্রেও জানুয়ারির প্রথম তারিখেই শিক্ষার্থীদের মাঝে বিনামূল্যে বই বিতরণ করছেন। আমরা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করতে সকল শ্রমিকরা ঐক্যবদ্ধ হয়ে তার সাথে থাকবো এই প্রত্যাশাই করছি। অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন এডঃ খোকন সাহা, সাধারণ সম্পাদক, নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামী লীগ, বিশেষ বক্তা এম এ রাসেল, দপ্তর সম্পাদক, নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগ, মোঃ কামাল হোসেন, সদস্য সচিব, নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগ। উক্ত অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন আবদুল কাদির, আহ্বায়ন নারায়ণগঞ্জ জেলা শ্রমিকলীগ ও সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটি নারায়ণগঞ্জ জেলা। উক্ত অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন, যুগ্ম আহ্বায়ক হাজী আব্দুল মান্নান, সদস্য সচিব ,েমাঃ কামাল হোসেন, সদস্য মোঃ মোখলেছুর রহমান, মোঃ মজিবর রহমান, মোঃ আলী হোসেন, মোঃ দেলোয়ার হোসেন, মোঃ মিজানুর রহমান মিজান, অনীল কুমার বিশ^াস, মোঃ জাহাঙ্গীর হোসেন (নৌযান), মোঃ আলমগীর মিয়া (নৌযান), মোঃ হুমায়ুন কবির, মোঃ জাহাঙ্গীর হোসেন, মোসলেউদ্দীন জীবন, মাসুদ আকন, মোঃ সাহাবুদ্দিন পাঠান, মোঃ ওমর ফারুক, আনোয়ার হক সুমন প্রমুখ।

Comment Heare

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *