Home » প্রথম পাতা » রূপগঞ্জ ভ’মি অফিসে অনিয়মই যেন নিয়ম

কাঁচপুর হাইওয়ে থানার নাকের ডগায় চলছে নিষিদ্ধ থ্রী হুইলার

২১ মে, ২০২২ | ৯:৪২ পূর্বাহ্ণ | ডান্ডিবার্তা | 9 Views

ডান্ডিবার্তা রিপোর্ট

হাইওয়ে পুলিশ গাজীপুর রিজিয়নের কাঁচপুর হাইওয়ে থানার ওসি মোঃ নবীর হোসেন ও টিআই ওমর ফারুককে মাসোয়ারা দিয়ে কাঁচপুর থানার সামনে দিয়ে চলছে নিষিদ্ধ থ্রীহুইলার সিএনজি, ব্যাটারি চালিত রিকশা ও অটো রিকশা। সেই সাথে চলছে কাঁচপুর মোড় থেকে ভুলতা গাউছিয়ায় নিষিদ্ধ লেগুনা। মাসে কয়েক লাখ টাকার চুক্তিতে এসকল নিষিদ্ধ যানবাহন মহাসড়কে দাবড়িয়ে বেড়াচ্ছে। পাশাপাশি রমরমাভাবে চলছে ডাম্পিং বানিজ্য। ইচ্ছেমতো বিভিন্ন  যানবাহন আটক করে ডাম্পিয়ে রেখে মোটা অংকের টাকা রেখে ছেড়ে দিচ্ছে যানবাহন। কিছু কিছু ক্ষেত্রে কিছু গাড়ির নামে মামলা ও রেকারিং বিল করছে মাত্র। এক দিকে অভিযোগ উঠেছে ওসি নবীর হোসেন গত মাসে বিভিন্ন তদবির করে কাঁচপুরে  পোষ্টিং নিয়েছে হন্য হয়ে ঘুরছেন টাকার পিছনে। অপরদিকে টিআই ওমর ফারুকের প্রায় ৯ মাস অতিবাহিত হতে চলেছে কাঁচপুর হাইওয়ে থানায়। ইতিমধ্যে কাঁচপুর হাইওয়ে থানায়  নাজমুল নামে ৮৯ ব্যাচের আরও একজন টিআই,র পোষ্টিং হওয়াতে ওমর ফারুক দিক হারিয়ে বেদিক হয়ে অন্যত্র বদলী হওয়ার আশংকায় শেষ মুহুর্তের কামড় দিয়ে ওসিকে রাজি খুশি করার জন্য এবং টিআই নাজমুল যাতে কাচপুরে আসতে না পারে সেজন্য উঠেপড়ে লেগেছেন।বিভিন্ন পরিবহনের মালিক ও শ্রমিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দকে ফোন করে টিআই ও ওসি দেখা করতে বলে। না এলেই গাড়ি আটক বানিজ্য চলছে । গতকাল শুক্রবার সকাল ৯ টা থেকে দুপুর ১২ টা পর্যন্ত কাঁচপুর, মদনপুর , মোগড়াপাড়া এলাকায় অবস্থান করে অবাধে  শত শত  সিএনজি, অটোরিকশা, ও ব্যাটারি চালিত রিকশা চলাচল করতে দেখা যায়। অতীতে কাঁচপুর হাইওয়ে থানায় ওসি ও টিআই হিসেবে যারা দায়িত্ব পালন করেছেন সে সময় মহাসড়কে থ্রীহুইলার যানবাহন চলাচল শূণ্যের কোঠায় নামিয়ে এনেছিলেন বলে জনালেন স্থানীয়রা। বিশেষ করে ওসি, কাইয়ুম আলী সর্দার, ওসি মনিরুজ্জামান, ওসি মোজাফ্ফর, ও ওসি সজ্জাদ আলম এর সময় মহাসড়কে বিশেষ করে কাঁচপুর, মদনপুর ও এলাকায় থ্রীহুইলার যানবাহন মাঝে মধ্যে দু’একটা ছিটেফোটা দেখা গেলেও তাও কঁচপুর হাইওয়ে পুলিশ পেলে আইনের আওতায় নিয়ে আসতো। বর্তমান ওসি নবীর হোসেন কাঁচপুর থানায় যোগদান করার পর টিআই ওমর ফারুকের যোগ সাজশে মহাসড়কে বেপরোয়া হয়ে উঠেছেন এখন প্রতিদিন কমপক্ষে কয়েক হাজার সিএনজি, ও অটোরিকশা চলাচল করছে কাঁচপুর হাইওয়ে থানা পুলিশের চোখের সামনে দিয়ে। লোকাল ট্রাক, মালিকদের খবর পাঠিয়ে টিআই ওমর ফঅরুক ও ওসি নবীর হোসেন আদায় করছেন টাকা। কাঁচপুর থেকে রোড পারমিট বিহীন, মদীনার পথে, যুবকল্যাণ, ইনাসফ, পায়রা, নাফ, শিমরাইল পরিবহন, কাগজপত্র বিহীন ও মডেল বিহীন কয়েক হাজার ট্রাকও চলাচল করছে অবাধে। খোঁজ নিয়ে জানাগেছে, মহাসড়কের কাঁচপুর থেকে যে সকল যানবাহন চলছে সেসবের অধিকাংশের নেই কোন বৈধ কাগজপত্র। কঁঅচপুর হাইওয়ে থানা এখন গাড়ি আটক বানিজ্য রেকারিং বানিজ্য ও ডাম্পিং বানিজ্যে পরিনত হয়েছে। কাঁচপুর হাইওয়ে থানার ওসি মোঃ নবীর হোসেন ও টিআই ওমর ফারুক বলেন, তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ সত্য নয় বলে দাবি করে বলেন, থ্রীহুইলার এর বিরুদ্ধে প্রতিদিনই অভিযান চালাচ্ছি মামলা দিচ্ছি।

Comment Heare

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *