Home » প্রথম পাতা » শ্রী কৃষ্ণের জন্মাষ্টমী আজ

কি কথা হলো তাদের সাথে?

০৬ আগস্ট, ২০২২ | ১১:১৫ পূর্বাহ্ণ | ডান্ডিবার্তা | 79 Views

ডান্ডিবার্তা রিপোর্ট নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী ও নারায়ণগঞ্জের আলোচিত সাবেক এসপি ও ঢাকা মেট্টোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) ডিবি প্রধান অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার হারুণ অর রশিদ-কে একত্রে দেখা গেছে ভারতের রাজস্থান প্রদেশের আজমির শরীফ খাজা মঈনউদ্দিন চিশতীর দরবারে। দুইজনেই নারায়ণগঞ্জে আলোচিত ও সমালোচিত। তাদের দুইজনের ছবি সামাজিক যোগাযোগ ফেসবুকে ভাইরাল হলে আবারো আলোচনা সৃষ্টি হয়েছে। ছবিতে দেখা যাচ্ছে, আজমির শরীফে খাজা মঈনউদ্দিন চিশতীর মাজারে গিলাফ চড়ানো এবং মাজার জিয়ারতে একত্রে মেয়র আইভী ও ডিবি প্রধান হারুণ। এ সময় ডিবি প্রধান হারুণের মাথায় পাগড়ী পরা ছিলেন। খাজা মঈনউদ্দিন চিস্তির মাজারের সামনে তাদের মধ্যে আলোচনা ও কুশল বিনিময় হয়। প্রায় আধ ঘন্টা তাদের মধ্যে আলোচনা ও আজমির শরীফ খাজা মঈনউদ্দিন চিশতীর মাজারে গিয়ে গিলাফ চড়ান এবং মাজার জিয়ারত করেন। এগুলো স্বীকার করেছেন মেয়র আইভীর সফর সঙ্গী জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম। তবে মেয়র আইভী ও ডিএমপির ডিবি প্রধান হারুণ অর রশিদের মধ্যে কি ধরণের আলোচনা হয়েছে তা কোন সূত্র থেকেই জানা যায়নি। মেয়র আইভীর একাধিক সফর সঙ্গী জানান, আজমির শরীফে গিলাফ চড়ানো আগে তাদের মধ্যে দেখা হয়। প্রথমে তারা একে অপরের স্বাস্থ্যের খোজ খবর নেন। আজমির শরীফে গিলাফ চড়ানো শেষে মাজার জিয়ারতে একত্রে শরিক হন এ সময় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও তার পরিবার, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও নারায়ণগঞ্জবাসীর জন্য দোয়া করা হয়। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সেলিনা হায়াৎ আইভী ও হারুন অর রশিদের হাস্যজ্জোল ছবি ভাইরাল হওয়ার পর নারায়ণগঞ্জে এনিয়ে চলছে আলোচনা সমালোচনা। বিশেষ করে উত্তর মেরুর অনেক নেতা এনিয়ে দু:চিন্তায় পড়েছে বলে একাধিক সূত্রে জানা গেছে। মাজারে আইভী-হারুনের আলোচনাকালে উপস্থিত ছিলেন, নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের সাবেক প্যানেল মেয়র ও সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর বিভা হাসান, ৭নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মিজানুর রহমান রিপন, মহানগর যুবলীগ নেতা মোতালেব, শরীফ হিরা, কবির মামুন এবং জেলা যুবলীগ, ছাত্রলীগ নেতাকর্মী ও পরিবারের নিকটাত্মীয়সহ ২৭ জন সফর সঙ্গী। গত ৩রা আগষ্ট ভারতের আজমির শরীফ মাজার জিয়ারতে উদ্দেশ্যে রওনা হন নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী। ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া আন্তর্জাতিক ইমিগ্রেশন চেকপোস্ট সীমান্তপথে তিনি ভারতের ত্রিপুরা রাজ্যে প্রবেশ করেন। মেয়র ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী জানান, ত্রিপুরা রাজ্যের আগরতলাতে তার এক নিকটাত্মীয়ের বাড়িতে রাত্রিযাপন করবেন। গত বৃহস্পতিবার সকালে তিনি আগরতলা বিমানবন্দর থেকে কলকাতা বিমানবন্দরে ট্রানজিট দিয়ে এয়ার ইন্ডিয়ার একটি বিমানযোগে সফর সঙ্গীদের নিয়ে জয়পুরে যাত্রা বিরতি করে সেখান থেকে তারা আজমির শরীফ খাজা মঈনউদ্দিন চিশতীর মাজারে গিয়ে গিলাফ চড়ান এবং মাজার জিয়ারত করেন। উত্তর মেরুর আওয়ামীলীগ নেতাদের কাছে আইভী ও হারুনের এই সাক্ষাতকে নিয়ে আলোচনা চলছে। কেউ কেউ বলছে এই সাক্ষাত কাকতালিয় নয় বরং পূর্ব নির্ধরিত। তবে একাধিক সূত্র দাবি করেছে দু’জনের এই সাক্ষাত একেবারেই কাকতালীয়। ভারত সফর শেষে আগামী ১৪ আগস্ট আকাশপথে সরাসরি ঢাকায় ফিরে যাওয়ার কথা রয়েছে বলে নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী জানিয়েছেন।

Comment Heare

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *