Home » প্রথম পাতা » না’গঞ্জে করোনা প্রতিরোধে সচেতনতামূলক প্রচারণা শুরু

জাহাঙ্গীরের মুখোশ উন্মোচন

০৩ নভেম্বর, ২০২১ | ৮:৫৪ পূর্বাহ্ণ | ডান্ডিবার্তা | 135 Views

ডান্ডিবার্তা রিপোর্ট

জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম জাহাঙ্গীরের বিরুদ্ধে একাট্টা হচ্ছে স্থানীয় আওয়ামীলীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগসহ প্রতিটি সংগঠনের নেতাকর্মীরা। নারী নেত্রীকে ফেসবুকে কূরুচিপূর্ণ মন্তব্যের প্রতিবাদ ও নিন্দা জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছেন নেতাকর্মীরা। এছাড়াও জাহাঙ্গীরের নানা অপকর্মের বিরুদ্ধে মুখ খোলছেন নেতাকর্মীরা। নেতাকর্মীরা বলছেন, লম্পট জাহাঙ্গীর দলের ইমেজ ক্ষুন্ন করছেন। নিজের কোন কর্মী বাহিনী না থাকলেও বিভিন্ন সময়ে উস্কানীমূলক বক্তব্য দিয়ে আলোচনায় থাকার চেষ্টা করেন জাহাঙ্গীর। এখাড়াও নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র সেলিনা হায়াত আইভী ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেনের নাম ব্যবহার করে বিভিন্ন জায়গায় চাঁদাবাজী করারও অভিযোগ রয়েছে জাহাঙ্গীরের বিরুদ্ধে। সর্বশেষ মহানগর মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি, মহানগর আওয়ামী লীগ ও মহিলা আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ইসরাত জাহান স্মৃতিকে নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে কূরুচিপূর্ণ মন্তব্যের পর নিন্দার ঝড় উঠেছে। গতকাল মঙ্গলবার এঘটনার প্রতিবাদ জানিয়ে বিবৃতি দেয়ার পাশাপাশি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে জাহাঙ্গীরের বিরুদ্ধে বিভিন্ন স্ট্যাটাস দেন নেতাকর্মীরা। লম্পট, বেহাইয়া, সুবিধাভোগীসহ বিভিন্ন পদবী ব্যবহার করে পোষ্ট দেন দলের নেতাকর্মীরা। যদিও এবিষয় অনেকটা নিশ্চুপ রয়েছেন জাহাঙ্গীর। এঘটনায় গতকাল মঙ্গলবার সকলে বিবৃতি দিলেও সবার আগে বিবৃতি দিয়েছিলেন মহানগর যুব লীগের সভাপতি শাহাদাৎ হোসেন সাজনু। বিবৃতিতে সাজনু বলেন, প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা একজন নারী। তিনি নারী ক্ষমতায়নে ব্যাপক ভাবে কাজ করছেন। আজকে বাংলাদেশে নারীদের যে অগ্রযাত্রা সেই অগ্রযাত্রার রূপকার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। শেখ হাসিনার বলিষ্ঠ নেতৃত্বে বিশে^র দরবারে বাংলাদেশ মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়েছে। প্রমাণ হয়েছে আমরাও উন্নত বিশে^র সঙ্গে তাল মিলিয়ে চলতে পারি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শুধু একজন সফল প্রধানমন্ত্রীই নন, একজন মমতাময়ী মা-ও বটে। অথচ আজকে তার দলের একজন নারী নেত্রীকে নিয়ে ফেসবুকের মতো একটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রকাশ্যে কুরুচিপূর্ণ মন্তব্যের দৃষ্টতা দেখানো হয়েছে। যিনি এই কাজটি করেছেন তিনি কোনভাবেই বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে বুকে লালন করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বিশ^াসী হতে পারেন না। তিনি জামায়াত বিএনপির মতো নারীকে শ্রদ্ধার স্থানে না রেখে ভোগের সামগ্রী তুল্য মনে করেন। যে কারণে তিনি আওয়ামী লীগ জেলা কমিটির একটি গুরুত্বপূর্ণ পদে থেকেও আওয়ামী লীগেরই সহযোগি সংগঠনের একজন নেত্রী সম্পর্কে এমন কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য করতে পারেন। আমি ইসরাত জাহান স্মৃতিকে নিয়ে কুরুচিপূর্ণ মন্তব্যকারী জাহাঙ্গীর আলমকে দল থেকে বহিস্কার এবং তার বিরুদ্ধে দেশের প্রচলিত আইনে শাস্তি দাবি করছি। এরপরই বিষয়টি জানাজানি হলে গতকাল মঙ্গলবার জাহাঙ্গীরের বিরুদ্ধে একাট্টা হয়েছেন স্থানীয় আওয়ামীলীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা।

Comment Heare

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *