Home » শেষের পাতা » অধিগ্রহণ হচ্ছে নদীর জমি

দশ ডিসেম্বর আমাদের বাঁচা মরার লড়াই: মুকুল

১৯ নভেম্বর, ২০২২ | ১২:২৫ অপরাহ্ণ | ডান্ডিবার্তা | 29 Views

ডান্ডিবার্তা রিপোর্ট নারায়ণগঞ্জ মহানগর বিএনপির সাবেক সহ-সভাপতি ও সাবেক বন্দর উপজেলার চেয়ারম্যান আলহাজ¦ আতাউর রহমান মুকুল বলেন, দেশে অবৈধ সরকার পতনের গণজোয়ার সৃষ্টি হয়েছে। কোন বাঁধাই এই জোয়ারকে আটকাতে পারবে না। নাসিক ২২নং ওয়ার্ড থেকে আজকে প্রায় ২শতাধিক অন্যদলের নেতাকর্মী বিএনপিতে যোগদান করেছে। তারা কে কোন দলের সাথে রাজনীতি করতো সেটা বড় কথা নয়। আজকে এই মুর্হুত থেকে তারা সবাই শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের আদর্শকে অনুশরন করে দেশগড়ার কাজে বিএনপির পতাকা তলে যোগদান করেছে। গতকাল শুক্রবার বাদ মাগরিব বন্দর ২৩নং ওয়ার্ডস্থ কবিলের মোড় এলাকায় প্রায় ২শতাধিক নেতাকর্মী বিএনপিতে যোগদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। মহানগর বিএনপির সাবেক সহ-সভাপতি হাজী নুরুউদ্দিনের সভাপতিত্বে ও সাবেক যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক আওলাদ হোসেনের সঞ্চালনায় বিএনপিতে যোগদান অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তা হিসেবে নেতাকর্মীদের শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন বক্তব্য রাখেন, সাবেক ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সবুর খান সেন্টু, বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, সাবেক সহ-সভাপতি ফখরুল ইসলাম মজনু, সাবেক সহ-সভাপতি মনিরুজ্জামান মনির, সাবেক সহ-সভাপতি হাজী ফারুক, এছাড়াও আরও বক্তব্য রাখেন, সাবেক যুব-বিষয়ক সম্পাদক মনোয়ার হোসেন শোখন, বন্দর থানা বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক এ্যাড. বিল্লাল হোসেন, মহানগর বিএনপি নেতা ও ২২নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর সুলতান আহম্মেদ, ২২নং ওয়ার্ড বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক পনির হোসেন, বন্দর থানা বিএনপি নেতা মিজানুর রহমান আরিফ সহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ। এ সময়ে প্রধান অতিথির বক্তব্যে আলহাজ¦ আতাউর রহমান মুকুল আরও বলেন, আগামী ১০ ডিসেম্বর দেশের গণতন্ত্র উদ্ধার আন্দোলন আমাদের জন্য হবে বাঁচা মরার লড়াই। হয় দেশের গণতন্ত্র, মানুষের ভোটাধিকার, বাকস্বাধীনতা ও মৌলিক অধিকার ছিনিয়ে আনবো। নতুবা দেশবাসীর অধিকার আদায়ের জন্য বুকের রক্ত দিবো। কোন রক্তচক্ষুর ভয়ে রাজপথ ছাড়বো না। প্রধানবক্তা হিসেবে আব্দুস সবুর খান সেন্টু বলেন, দেশের জনতার পক্ষে আন্দোলন সংগ্রাম করার অপরাধে আজকে গণতন্ত্রের মা দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া কারাগারে। সেই সাথে এই অবৈধ সরকার ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানকে দেশে আসতে বাঁধা সৃষ্টি করছে। আগামী ১০ ডিসেম্বর জনতার ঢল কোন বাঁধাই মানবে না। সেই দিন আরো একটি বিপ্লব ঘটিয়ে নেত্রীকে অবৈধ সরকারের বন্দিদশা থেকে আমরা উদ্ধার করে আনবো। সভাপতির বক্তব্যে মহানগর বিএনপির সাবেক সহ-সভাপতি হাজী নুরু উদ্দিন আহম্মেদ বলেন, যারা ক্ষমতায় থেকে বড় বড় কথা বলো তারা দেখে যাও বন্দর বিএনপির নেতৃত্বে কিভাবে জন¯্রােতের সৃষ্টি হয়েছে। তোমরা ক্ষমতায় বসে যে অপকর্ম করেছো তার অপরাধেই আজকে দলের নেতাকর্মীরা তোমাদের পাশে থাকে না। ১৪ বছর অবৈধ ভাবে ক্ষমতায় থেকেও আজকে সভা সমাবেশ করলে টাকা দিয়ে তোমাদের লোক ভাড়া করে আনতে হয়। এখন তোমাদের জনসমর্থন তো ধুরের কথা দলের কর্মীদের সমর্থনই নাই। এ সময়ে আরও উপস্থিত ছিলো, মহানগর বিএনপির সাবেক পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক আমিনুল ইসলাম মিঠু, সহ-আইন বিষয়ক সম্পাদক এ্যাড. শরীফুল ইসলাম শিপলু, মহানগর স্বেচ্ছাসেবক দলের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক জান্নাতুল ফেরদৌস রাজীব, শহীদ হাসান, বন্দর থানা বিএনপি নেতা আলমগীর হোসেন, আলী হোসেন, শহীদুল্লাহ, কিরণ মাহমুদ, জামাল আহম্মেদ, নুর হোসেন, জুয়েল ইসলাম,  সফিক হাসানসহ বন্দর থানা বিএনপির আওতাধীন বিভিন্ন ওয়ার্ড ও ইউনিয় বিএনপির অঙ্গসংগঠন সহ সদ্য যোগাদ করা বিএনপির নেতা ও কর্মীবৃন্দ। এদিকে সদ্য যোগদান করা বিএনপি নেতাদের বসার জায়গা দিতে না পারায় কবিলের মোড় এলাকায় মহানগর বিএনপির সাবেক সহ-সভাপতি ও সাবেক বন্দর উপজেলার চেয়ারম্যান আলহাজ¦ আতাউর রহমান মুকুলের বাড়ির সামনে জন¯্রােতের সৃষ্টি হয়।

Comment Heare

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *