Home » শেষের পাতা » অধিগ্রহণ হচ্ছে নদীর জমি

দশ ডিসেম্বর বিএনপির পরীক্ষা!

০৭ ডিসেম্বর, ২০২২ | ৭:০১ পূর্বাহ্ণ | ডান্ডিবার্তা | 52 Views

ডান্ডিবার্তা রিপোর্ট আগামী ১০ ডিসেম্বরের পর নারায়ণগঞ্জ জেলা ও মহানগর বিএনপির বেশকটি অঙ্গ সহযোগী সংগঠনের নেতৃত্ব রদবদল হতে যাচ্ছে। জেলা ও মহানগর ছাত্রদলের কমিটি ১০ ডিসেম্বরের আগেই হওয়ার সম্ভাবনা থাকলেও সেটা পিছিয়েছে সংগঠনটির সিদ্ধান্তে। মুলত তারা চায় আগামী ১০ ডিসেম্বর নারায়ণগঞ্জ জেলা ও মহানগর ছাত্রদলের পদপ্রত্যাশি নেতাদের ব্যাপক অংশগ্রহণ ও শোডাউন। একইভাবে জেলা ও মহানগর স্বেচ্ছাসেবক, জেলা যুবদলের নতুন কমিটি গঠনেও পদপ্রত্যাশিদের অবস্থান দেখতে চায় কেন্দ্রীয় নেতারা। তবে টার্নিং পয়েন্ট ১০ ডিসেম্বর ঢাকা বিভাগীয় সমাবেশে সেই লক্ষ্যেই পদপ্রত্যাশি নেতারা ব্যাপক শোডাউনের প্রস্তুতিও নিয়েছেন। যদিও ইতিমধ্যে প্রায় সকাল নেতারাই কোনো না কোনো থানায় মামলার আসামিও হয়েছেন। তবে নেতৃত্ব ভাগিয়ে নিতে এই সুযোগ হাতছাড়া করতে চাইছেন না নারায়ণগঞ্জের নেতারা। কোনো রকমে গ্রেপ্তার এড়িয়ে আগামী ১০ ডিসেম্বর ঢাকার রাজপথে তাদের অবস্থান জানানি দিয়ে নেতৃত্ব ভাগিয়ে নেয়ার লড়াইটাই হবে। মুলত নারায়ণগঞ্জ জেলা ও মহানগর স্বেচ্ছাসেবক দলের কমিটি হবে সেটা প্রায় বলাই যায়। মহানগর স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি আবুল কাউসার আশা ও সাধারণ সম্পাদক সাখাওয়াত ইসলাম রানা বিএনপির মুলদলের রাজনীতিতে রয়েছেন। মহানগর বিএনপির বর্তমান কমিটিতে যুগ্ম আহ্বায়ক আশা ও সদস্য রানা। আগের কমিটিতে সাংগঠনিক সম্পাদক ছিলেন আশা। তবে মহানগর স্বেচ্ছাসেবক দলের নেতৃত্ব প্রত্যাশা নিয়ে সেদিনও ঢাকার রাজপথে শোডাউন দিবেন রানা। একইভাবে মহানগর স্বেচ্ছাসেবক দলের নেতৃত্ব প্রত্যাশা নিয়ে সেদিন শোডাউন দিবেন মহানগর ছাত্রদলের সাবেক সেক্রেটারি মমিনুর রহমান বাবু। পৃথক নেতৃত্বে যোগদান করবেন মহানগর স্বেচ্ছাসেবক দলের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক জিয়াউর রহমান জিয়া। জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি আনোয়ার সাদাত সায়েম ও সাধারণ সম্পাদক মাহাবুব রহমানও সেদিন ঢাকায় শোডাউন দিবেন। তারা নতুন করে কমিটিতে থাকতে পারছেন না সেটা প্রায় নিশ্চিত। তারা জেলা ও রুপগঞ্জ উপজেলা বিএনপির শীর্ষ পদে আসতে স্বেচ্ছাসেবক দলের ব্যানারেই সেদিন শোডাউন দিয়ে নিজেদের অবস্থান জানানি দিবেন। যদিও জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের পৃথক ব্যানারে সেদিন শোডাউন দিবেন সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জিএস শাহআলম ভুঁইয়া ও সাবেক ছাত্রদল নেতা আব্দুল জাব্বার। জেলা যুবদলের আহ্বায়ক গোলাম ফারুক খোকন এখন জেলা বিএনপির সদস্য সচিব। জেলা যুবদলের নতুন কমিটি প্রায় আসন্ন। ফলে যুবদলের সদস্য সচিব মশিউর রহমান রনির নেতৃত্বেই সেদিন ঢাকায় শোডাউন হবে। তবে পৃথক ব্যানারে বিশাল শোডাউন দেখাবেন জেলা ছাত্রদলের সাবেক সাধারণ সম্পাদক খাইরুল ইসলাম সজীব ও কেন্দ্রীয় যুবদলের সাবেক সদস্য সাদেকুর রহমান সাদেক। মহানগর যুবদলের কমিটি নতুন করে হওয়ার সম্ভাবনা না থাকলেও সেদিন মহানগর যুবদলের আহ্বায়ক মমতাজ উদ্দীন মন্তু ও সদস্য সচিব মনিরুল ইসলাম সজলের নেতৃত্বে বৃহত্তর আকারে সেদিন ঢাকায় শোডাউন দিবে মহানগর যুবদল। সম্প্রতি জেলা ও মহানগর ছাত্রদলের কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা করেছে কেন্দ্রীয় ছাত্রদল। সেদিন জেলা ছাত্রদলের নেতৃত্ব প্রত্যাশি মাসুদুর রহমান মাসুদ, নাহিদ হাসান ভুঁইয়া, সুলতান মাহামুদ, সাগর সিদ্দিকী, আরিফুল হক রাজ, জুবায়ের হক ঝিকু, মেহেদী হাসান দোলনের নেতৃত্বে জেলা ছাত্রদলের ব্যানারে পৃথক শোডাউন দেখা যেতে পারে। তবে মহানগর ছাত্রদলের ব্যানারে বৃহ্ত্তর আকারে সেদিন শোডাউন দিবেন মহানগর ছাত্রদলের সভাপতি প্রত্যাশি সিদ্ধিরগঞ্জ থানা ছাত্রদলের আহ্বায়ক রাকিবুর রহমান সাগর। জেলা ও মহানগর ছাত্রদলের নতুন কমিটির নেতৃত্ব প্রত্যাশায় সেদিন ছাত্রদলের ব্যাপক অংশগ্রহণের সম্ভাবনা রয়েছে। কারন কেন্দ্রীয় নেতারাও এসব নেতৃত্ব প্রত্যাশিদের অবস্থান দেখতে চান।

Comment Heare

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *