Home » প্রথম পাতা » প্রতিমন্ত্রী মুরাদের বহিষ্কার চাইলেন বাহাদুর শাহ

দুই ডিষ্ট্রিকের চেয়ে বেশী টাকা ফতুল্লার জন্য আনতে পেরেছি: শামীম ওসমান

২৪ মে, ২০২১ | ৬:২৪ পূর্বাহ্ণ | ডান্ডিবার্তা | 70 Views

ডান্ডিবার্তা রিপোর্ট

ফতুল্লা-সিদ্ধিরগঞ্জ আসনের এমপি শামীম ওসমান বলেছেন, একটা নয় দুইটা ডিষ্ট্রিক মিলিয়ে যে টাকা পায় তার চেয়েও বেশি টাকা সুধু মাত্র আমার ফতুল্লা উপজেলার জন্য আনতে পেরেছি। প্রায় ১শ ৭৬ কোটি টাকার কাজ এলজিআরডিতে হবে। রাস্তাঘাট ড্রেন হয়ে যাবে। এরপর আমার মনে হয় আর কোন কাজ বাকি থাকবেনা। এখন একটা আশা আছে সবাইকে নিয়ে যদি নারায়ণগঞ্জে একটা মেডিকেল কলেজ ও একটা হার্ড ইনষ্টিটিউট যদি করতে পারি। গতকাল রোববার বিকেলে নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলা মিলায়াতনে ৪২জন গ্রাম পুলিশের মধ্যে পোশাক ও বাইসাইকেল বিতরন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য তিনি একথা বলেন। সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার(ইউএনও) আরিফা জহুরার সভাপতিত্বে আরো উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদ বিশ্বাস,মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ফাতেমা মনির,ফতুল্লা থানা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক সওকত আলী,ফতুল্লা ইউনিয়ন পরিষদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান খন্দকার লুৎফর রহমান স্বপন প্রমুখ। অনুষ্ঠানে শামীম ওসমান বলেন, আমাদের সাবধান থাকতে হবে। ভারতের মতো যদি আমাদের হয় তাহলে বাচার পথ নাই। কারন আমাদের ওই চিকিৎসার রঞ্জাম নাই। সেই কারনে আমরা যতদিন আছি ততদিন স্বাস্থ্য সচেতন থাকবো। তিনি আরো বলেন, আল্লাহতালা মানুষকে পরিক্ষা করেন মানুষতো পরিক্ষা দেননা। কারন শিখেননি। যদি মানুষ শিখতো তাহলে ইসরাইল কি ফিলিস্তিনে যাইয়া আঘাত করতো। শিখেতো না। তাহলেতো ইসরাইল এতো মানুষ মারতো না এতো শিশু মারতো না। আল্লাহ শিক্ষা দেয়ার জন্য ভয় দেখানোর জন্য দেন কিন্তু মানুষতো শিখে না। এরকম সারা পৃথিবীতেই টুকটাক জুলুম জালুম হয়। যখন পাপ বেশি বেড়ে যায় তখন এরকম জিনিস দুনিয়াতে আসে। পৃথিবীর এ মাথা থেকে শুরু করে এমনকি হিমালয় পর্বতের চুড়ায়ও করোনা ধরা পড়েছে। নিশ্চয় এমন কোন কারন আছে। এখন আল্লাহর কাছে বেশি বেশি মাফ চাইতে হবে। অনুষ্ঠানের শুরুতেই গ্রাম পুলিশদের ঈদ উপহার হিসেবে ব্যক্তিগত অর্থ থেকে ৪২জনের প্রত্যেককেই ১০ হাজার টাকা করে দেয়ার ঘোষনা দেন। একই সঙ্গে উপজেলা পরিষদের সকল কর্মচারীদের ঈদ উপহার দিবেন বলেন ঘোষনা দিয়েছেন শামীম ওসমান।

Comment Heare

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *