Home » শেষের পাতা » বন্দরে ২৭টি পূজামন্ডপে চলছে শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি

দুর্নীতির বিরুদ্ধে আমি একটা প্রতীক: তৈমূর

০৬ জানুয়ারি, ২০২২ | ৯:৪২ পূর্বাহ্ণ | ডান্ডিবার্তা | 83 Views

ডান্ডিবার্তা রিপোর্ট

বিএনপিসহ বিভিন্ন দল, শ্রেণী পেশার সর্বস্তরের মানুষ অংশ গ্রহনে নির্বাচনী প্রচারণা জনশ্রোত পরিণত হয়েছিল। এমন চিত্র নগরীতে দেখা গেছে চাষাঢ়া, আমলাপাড়া, জামতলাসহ ১৩নং ওয়ার্ডের বিভিন্ন এলাকায়।মুখরিত ছিল ‘হাতি’ মার্কার শ্লোগানে। গতকাল বুধবার বিকেলে নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী অ্যাডভোকেট তৈমূর আলম খন্দকারের নির্বাচনী প্রচারণায় এমন চিত্র দেখা যায়। দলে দলে এলাকাগুলো থেকে লোকজন এসে যোগ দেয় তৈমূরের গনসংযোগে। তৈমূরের আগমনের খবর পেয়ে আগে থেকেই এলাকাবাসী ফুলের মালা কিনে ও ফুলের পাপড়ি এনে তার জন্য রেখে দেন। তিনি এলাকার আসলেই তাকে ফুলের পাপড়ি ছিটিয়ে ও ফুলের মালা পড়িয়ে বরণ করে নেন। তৈমূর সকলের ভালোবাসার সেই ফুলের মালা এলাকার মুরুব্বিদের পরিয়ে দেন। প্রতিটি এলাকায় মুরুব্বি, যুবক, নারী, বৃদ্ধ, ছাত্র, কর্মজীবী, রিকশাচালক, শ্রমিক সহ সকলেই তাকে স্বাগত জানায় এবং তার জন্য তার সাথে যুক্ত হয়ে ভোট প্রার্থনা করেন ভোটারদের কাছে। এসময় যারা শুধু ভোটার নয়, তাদের কাছেও দোয়া চান। যখন আমলাপাড়া ও জামতলা এলাকায় তৈমূরের মিছিল প্রবেশ করে তখন পুরো এলাকাতেই শুধু তৈমূরের নির্বাচনী প্রতীক হাতির স্লোগান শোনা যাচ্ছিল। এলাকাবাসী এতে উচ্ছ্বাসিত হয়ে ঘর থেকে বেরিয়ে এসে তার সাথে কথা বলেন। তৈমূর আলম খন্দকার জানান, আমি অভিভূত। নির্বাচনের মাঠে নেমে এটাই আমার প্রাপ্তি। আমি সকলের ভালোবাসা পেয়েছি। সবাই আমাকে গ্রহণ করেছে আর আমি তো তাদেরই প্রার্থী। নগরবাসীর জন্য আমি প্রার্থী হয়েছে, তাদের নাগরিক সুবিধা দিতে। আমি সকলের দোয়া ও ভালোবাসা চাই, সবাই এভাবে আমার পাশে থাকবে বলেই আমি বিশ্বাস করি। তিনি আরও বলেন, নারায়ণগঞ্জের মানুষ এই সিটি করপোরেশন ও পৌরসভার আঠারো বছরের যে ব্যর্থতা ও দুর্নীতি, তার বিরুদ্ধে তাদের মনের মত একজন প্রার্থী চেয়েছিল। আপনারা সে প্রার্থী পেয়েছেন। সেজন্যেই আপনারা সকলে নেমেছেন। আমি একটা উপলক্ষ্য মাত্র, একটা প্রতীক মাত্র। আমি আপনাদের জন্য জীবনকে বাজি রেখে হলেও কাজ করবো।

 

Comment Heare

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *