আজ: মঙ্গলবার | ২৬শে মে, ২০২০ ইং | ১২ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ | ৩রা শাওয়াল, ১৪৪১ হিজরী | সকাল ১১:৩২
শিরোনাম: না.গ‌ঞ্জে ঈদের জামা‌তে ছিলো মুসল্লীদের ঢল,বিশেষ দোয়া ও মোনাজাত     ফতুল্লায় চাঁদ রা‌তের মধ্য প্রহ‌রে বন্ধুর হ‌া‌তে বন্ধু খুন! ঘাতক আটক     থমকে থাকা নজরুল ভবন আলোর মুখ দেখছে     ঈদ মোবারক     শারীরিক দূরত্ব বজায় রাখতে ঈদে কোলাকুলি না করার আহ্বান স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের     নারায়ণগঞ্জ করোনা হাসপাতাল ঈদের দিনে কার্যক্রম চালু থাকবে     নারায়ণগঞ্জে এবার পবিত্র ঈদুল ফিতরে ৩৩শ মসজিদে হবে ৫ হাজার ঈদ জামাত     খোর‌শে‌দের স্ত্রী ক‌রোনায় আক্রান্ত, সক‌লের দোয়া প্রত্যাশা     বন্দরের ৭শতাধিক অসহায় পরিবার নাসরিন ওসমানের ত্রাণ পেল     ফতুল্লায় ভিন্ন প্রেক্ষাপটে ঈদুল ফিতর উদযাপন    

সংবাদের পাতায় স্বাগতম

না’গঞ্জে অনিশ্চয়তায় গণপরিবহন শ্রমিকরা

ডান্ডিবার্তা | ২৩ মে, ২০২০ | ১২:৩০

ডান্ডিবার্তা রিপোর্ট
করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ রোধে নারায়ণগঞ্জ জেলাকে লকডাউন ঘোষনার বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষ কর্মহীন হয়ে পড়ে। তবে গত ১০ মে লকডাউন শিথিল করলে নারায়ণগঞ্জের সব সেক্টরই স্বাভাবিক হয়ে পড়ে। বর্তমানে নারায়ণগঞ্জের জনজীবন অনেকটা স্বাভাবিক হলেও বিপাকে রয়েছেন নারায়ণগঞ্জের গণপরিবহনের শ্রমিকরা। এখনো পর্যন্ত নারায়ণগঞ্জে গণপরিবহনের শ্রমিকরা কর্মহীন রয়েছেন। লকডাউনে সরকারি বেসরকারি ভাবে বিভিন্ন পেশার মানুষদের সহযোগীতা করা হলেও আর্থিক ভাবে কোন প্রখার সহযোগীতা পায়নি নারায়ণগঞ্জের গণপরিবহন শ্রমিকরা। এর আগে গণপরিবহন চালু অথবা ত্রাণ দেয়ার দাবীতে সাইনবোর্ডে বিক্ষোভ করেছিল শ্রমিকরা। তবে পৃথক ভাবে নাম মাত্র কিছু শ্রমিকদের খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে। এদিকে, নারায়ণগঞ্জের গণপরিবহন সেক্টর নিয়ন্ত্রন করে যারা কোটি কোটি টাকার মালিক বনে গেছেন তারাই আজ পরিবহন শ্রমিকদের পাশে নেই। যা নিয়ে পরিবহন শ্রমিকরা ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। গণপরিবহন আর কতদিন বন্ধ থাকবে তা নিয়েও অনেক অনিশ্চয়তা রয়েছে। তবে ঈদের পর চালুর ভাবছে সংশ্লিষ্টরা। সূত্রের খবর, শর্তসাপেক্ষে আগামী ১ জুন থেকে অর্থনৈতিক কর্মকা-ের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট বেশির ভাগ প্রতিষ্ঠানের কার্যক্রমের পরিধি আরও বাড়ানো হবে। যেসব প্রতিষ্ঠান বা শিল্পকারখানা এখনও বন্ধ রয়েছে, সেগুলোর কার্যক্রমও চালু করা হবে। সূত্র জানায়, যেহেতু এসব প্রতিষ্ঠানের কার্যক্রমের পরিধি বাড়ানো হবে, সে কারণে কর্মীদের যাতায়াতের জন্য সীমিত আকারে গণপরিবহন চালুর বিষয়টিও চিন্তাভাবনা করা হচ্ছে। তবে এ খাতে স্বাস্থ্যবিধি মানার বিষয়ে কঠোরতা আরোপ করা হবে। গ্রামের হাটবাজারসহ অর্থনৈতিক পাওয়ার হাউস, শহরের বাজার, দোকানপাট ও বিপণিবিতানগুলো খোলা রাখার সময়সীমা আরও বাড়ানো হবে। অর্থাৎ স্বাভাবিক অর্থনৈতিক কর্মকা- চালু করার জন্য সংশ্লিষ্ট পক্ষগুলোর মাধ্যমে সব ধরনের ব্যবস্থা নেয়া হবে। একই সঙ্গে করোনা ভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে এবং কর্মীদের স্বাস্থ্য সার্বক্ষণিকভাবে পর্যবেক্ষণের ব্যবস্থা নিতে হবে। তবে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ও পর্যটন খাত এখনই উন্মুক্ত করা হবে না। সম্প্রতি সরকারের উচ্চপর্যায়ের একটি বৈঠকে এসব সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। এর আলোকে আর্থিক খাতের প্রতিষ্ঠানগুলো ইতোমধ্যে তাদের স্বাভাবিক কার্যক্রম চালু করার দিকে ধীরে ধীরে এগোচ্ছে। অন্যান্য খাতগুলোতেও ঈদের পরেই এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় সিদ্ধান্ত নেয়া হবে বলে জানা গেছে। এর আওতায় রয়েছে- শিল্পপ্রতিষ্ঠানের কারখানা, প্রধান ও আঞ্চলিক অফিস, ডিলার ও ডিস্ট্রিবিউটর চ্যানেল, ব্যাংক, আর্থিক প্রতিষ্ঠান, ক্ষুদ্রঋণ দানকারী প্রতিষ্ঠান, সব ধরনের বন্দরের কার্যক্রম, পণ্য খালাস ও পরিবহন, ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদের সব ধরনের কর্মকা-। তাই ঈদের পর গণপরিবহন চালু করার সম্ভাবনা রয়েছে। তবে এব্যাপারে সিটি বন্ধন পরিবহনের এমডি আইয়ূব আলীর সাথে যোগযোগ করার চেষ্টা করা হলে তাকে পাওয়া যায়নি। তবে এব্যাপারে উৎসব পরিবহনের একজন শ্রমিক জানান, বিষয়টি আমরা জানি না। তবে আমরা এখনো অনিশ্চয়তায় রয়েছি। আমাদের বাড়িতে খাবার সংকট থাকলে কেউই আমাদের পাশে দাঁড়াচ্ছেন না। সাংসদ সেলিম ওসমানের দেয়া কিছু খাদ্য সামগ্রী গেলেও তা সব শ্রমিকরা পায়নি। আর যারা পেয়েছেন তাদের জন্য তা যথেষ্ট নয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *