Home » প্রথম পাতা » ফতুল্লার কাশিপুরে মোস্তফার অত্যাচারে অতিষ্ট সাধারন মানুষ

না’গঞ্জে পতাকা ও জার্সি বিক্রির হিড়িক

১৪ নভেম্বর, ২০২২ | ১১:১৬ পূর্বাহ্ণ | ডান্ডিবার্তা | 93 Views

ডান্ডিবার্তা রিপোর্ট দরজায় কড়া নাড়ছে বিশ্বকাপ ফুটবল। দিন যত ঘনিয়ে আসছে ততই বাড়ছে উত্তাপ। প্রতিবারই বিশ্বকাপ ফুটবল শুরু হলে দেশের অন্যান্য জেলার মতো নারায়ণগঞ্জেও ফুটবলের উত্তাপ ছড়িয়ে পড়ে। এবারও এর ব্যতিক্রম নয়। ইতিমধ্যে খেলা দেখার জন্য দিন গণনা শুরু করে দিয়েছেন ফুটবলপ্রেমীরা। এরই অংশ হিসেবে চলছে বিশ্বকাপে অংশগ্রহণকারী দেশগুলোর পতাকা বেচাকেনার হিড়িক। অধীর অপেক্ষায় দিন গুনছেন ফুটবলপ্রেমীরা। নিচ্ছেন প্রিয় দলকে সমর্থনের প্রস্তুতিও। প্রিয় দলের পতাকা ও জার্সি সংগ্রহ করছেন অনেকে। পাশাপাশি কিনছেন প্রাণ প্রিয় লাল-সবুজের জাতীয় পতাকাও। বিশ্বকাপে দল ৩২টি হলেও বাংলাদেশের ফুটবলপ্রেমীদের অধিকাংশই দুটি দলের ভক্ত  ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনা। এ দুটো দলকে নিয়ে মেতে থাকেন সর্বদা। দলে দলে পতাকা, জার্সি আর খেলোয়াড়ের আলোচনায় ভিড় জমান মেসি-নেইমার ভক্তরা। ভক্তদের আড্ডা জমে উঠে বিভিন্ন পাড়া-মহল্লা ও চায়ের দোকানগুলোতে। আগামী ২০ নভেম্বর কাতার বিশ্বকাপ শুরু হওয়াকে কেন্দ্র করে ইতিমধ্যে নিজেদের দলকে ফুটিয়ে তোলার জোরদার চেষ্টায় ভক্তরা। বিভিন্ন ক্রীড়া সামগ্রীর দোকানে ভিড় জমাতে দেখা গেছে ফুটবল প্রেমীদের। কেউ আর্জেন্টিনা কেউ বা আবার ব্রাজিলের পতাকা ও জার্সি কেনাতে ব্যস্ত। ফুটপাত থেকে শুরু করে ছোট-বড় সব মোটামুটি সব ধরণের বিপণিবিতানেও ছেয়ে গেছে প্রিয় দলের জার্সিতে। সঙ্গে রয়েছে পতাকা ও হাতের ও মাথার ব্যান্ডসহ বাহারি সব পণ্য। কিছু কিছু দোকানে দেখা মিলছে পতাকার ডিজাইন ও খেলোয়াড়দের ছবি সহ বিভিন্ন ধরনের মাফলার ও কানটুপি। ক্রেতাদের উপস্থিতিতে ভালোই জমে উঠেছে এখাঙ্কার বেচাকেনা। সাধারণত সিদ্ধিরগঞ্জের বিভিন্ন মার্কেটে  বিভিন্ন মান বুঝে জার্সি গুলো বিক্রি হচ্ছে ৪৫০ থেকে ১৫শ টাকায়। কোথাও কোথাও মূল্য রাখা হচ্ছে আরও চড়া মূল্যে। এদিকে ফুটপাতে পসরা সাজিয়ে বসা দোকানিদের কাছে বিভিন্ন দেশি জার্সি মিলছে ২০০ থেকে ৩৫০ টাকার মধ্যে। স্থানীয়ভাবে প্রস্তুতকৃত এ জার্সিগুলোই আবার আমদানিকৃত দাবি করে তোলা হয়েছে বিভিন্ন বিপণিবিতানে। তাতে অনেক ক্রেতাই বিভ্রান্ত হচ্ছেন। আর এতে করে জমে উঠেছে মৌসুমি ব্যবসার রমরমা বাজার। শীতের জামা কাপড় বেচা-কেনার আগে এরকম একটি সিজন পেয়ে খুশি হয়েছেন ব্যবসায়ীরা। অন্যদিকে ব্যবসায়ীরা বলছেন,সবচেয়ে বেশি বিক্রি হচ্ছে ফুটবলের চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনার পতাকা ও জার্সি। গতকাল রবিবার  নারায়ণগঞ্জের বিভিন্ন মার্কেট ঘুরে এমন চিত্র দেখা যায়। আহসান উল্লাহ সুপারমার্কেটের জার্সি ব্যবসায়ী জয় বলেন, অন্যান্য বিশ্বকাপের তুলনায় এবার আমাদের বেচাকেনা অনেকটাই বেড়েছে। শহরে ওই রকম শীত না থাকায় এখন হাফ হাতার জার্সি বেশি কিনছেন ক্রেতারা। আশা করছি খেলা শুরু হওয়ার পর পর শীৎ নেমে যাবে তাহলে আমরা ফুলহাতার জার্সিও বিক্রি করতে পারব। প্রিয় দলের জার্সি কিনতে এসেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র মাহাবুবুর রহমান। তিনি বলেন, এবার জার্সি কিনতে একটু দেরি হয়ে গেছে। প্রতিবার আরও আগে জার্সি কিনে ফেলি। বিশ্বকাপ যত ঘনিয়ে আসবে জার্সির দাম তত বৃদ্ধি পাবে তাই আগে আগে কিনে রাখা ভালো। কথা হয় জার্সি কিনতে আসা সাগরের সঙ্গে। তিনি বলেন, আমি মনে প্রাণে একজন আর্জেন্টিনার ভক্ত। যখন থেকে খেলাধুলা ঝোঝা শুরু করেছি তখন থেকে মেসিকে ভালো লাগে। দলের জন্য মেসির অনেক অবদান থাকলেই বিশ্বকাপ ভাগ্যে আসেনি তার।তবে আমি মনে করি এবার বিশ্বকাপ মেসির হাত হয়ে আর্জেন্টিনার দেশে যাবে। মোঃ সজীব ব্রাজিল দলের ভক্ত। তার আত্মবিশ্বাস এবার ব্রাজিল চ্যাম্পিয়ন হবে। তার ধারণা নেইমার এবার তার দলকে উপহার হিসেবে ষষ্ঠ বিশ্বকাপ দিবে। ২০ গজের একটি পতাকার কাপড় কেনার জন্য তিনি দোকানে এসেছে। সাথে পছন্দের খেলোয়াড় নেইমারের জার্সিও। জার্মানির বক্ত শাহরিয়ার জয়। তার ভাষ্যমতে জার্মানির সঙ্গে কোনো দলের তুলনা হয় না। চার বিশ্বকাপ জয়ী দল জার্মানি। এবারও তারাই চ্যাম্পিয়ন হবে।

Comment Heare

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *