Home » প্রথম পাতা » পদ্মা সেতু জাতির আরেক বিজয়

না’গঞ্জে ভুয়া সাংবাদিকে সয়লাব

১১ নভেম্বর, ২০২১ | ৮:১৬ পূর্বাহ্ণ | ডান্ডিবার্তা | 78 Views

ডান্ডিবার্তা রিপোর্ট

নারায়ণগঞ্জে দিনের পর দিন ভুয়া সাংবাদিকদের দৌরাত্ম বাড়েই চলছে। হাতে একটি মোবাইল ও মাইফোন নিয়ে লাইভ করে ফেসবুক ইউটিউবে আপলোড করেই বনে যান সাংবাদিক। কিসব আজব নামের টেলিভিশন বলে বেড়ায় যা কেহ কখনো দেখেননোনি। একজন লোক যদি কোন অনুষ্ঠান করে তবে বিনা দাওয়াতেই সেই সাংবাদিক নামধারী ভুয়া সাংবাদিকরা জাহির হয়ে যান। আর দর্শকের চেয়ে বেশী হয়ে যান সাংবাদিক। এতে করে বিপারে পড়ে যান আয়োজকরা। আর তাদের খুশি করতে না পরলে বিধিবাম। শুরু হয়ে যায় হুমকি। অনেক সময় আয়োজকদের কাপড় টেনে ধরে। অনেক সময় গাড়ির সামনে দাঁড়িয়ে বিক্ষোকের মত হাত পেতে বসে আর বলে কিছু দিয়ে যান। গতকাল বুধবার নারায়ণগঞ্জের ইউপি নির্বাচনে সংবাদ সংগ্রহের জন্য সাংবাদিক পর্যবেক্ষন কাড দিতে হিমশিম খান নির্বাচন কর্মকর্তারা। ভুয়াদের কার্ড দিতে গিয়ে পেশাদার সাংবাদিকদের আর কার্ড দেয়া যায় না পড়ে নিরুপায় হয়ে কার্ড ফটোকপি করে তাতে স্বাক্ষর দিয়ে তা বিতরণ করেন। এই হলো আজকের সাংবাদিকতা। এই সকল ভুয়া সাংবাদিকরা এই সন্মানীত পেশাটিকা কোথায় নিয়ে দাঁড় করিয়েছে। এতে বিপাকে পড়ছেন পেশাদার সাংবাদিকরা। বিভিন্ন টেলিভিশন চ্যানেল, প্রিন্ট মিডিয়া এবং অনলাইন মিডিয়ার জাল পরিচয়পত্র ব্যবহার করে এবং সত্যিকারি প্রতিষ্ঠানগুলোর নাম ভাঙ্গিয়ে বিভিন্ন পেশার মানুষকে হুমকি দিয়ে চাঁদা আদায় এদের নিত্য দিনের কাঁজ। মটরসাইকেল ও প্রাইভেট কারে প্রেসের এবং বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান এবং ভুয়া প্রতিষ্ঠানের নাম লিখে ডাকাতি ও ছিনতাই করারও অভিযোগ পাওয়া গেছে। আড়াইহাজারে এমনিই স্টিকারসহ ডাকাতি করা অবস্থায় তিন জনকে গ্রেফতার করেছিল আড়াইহাজার থানা পুলিশ। এরপর, বন্দরে একুশে টেলিভিশনের পরিচয় দিয়ে চাঁদাবজি করা অবস্থায় দুই জন ভুয়া সাংবাদিককে গ্রেফতার করে বন্দর থানা পুলিশ। এভাবেই শত শত ঘটনা ঘটছে নারায়ণগঞ্জ ছাড়াও বাংলাদেশের বিভিন্ন জায়গায়। নামসর্বস্ব কিছু পত্রিকার সম্পাদকরা বিশেষ সুবিদা নিয়ে অসাধু লোকদের পরিচয়পত্র দিচ্ছেন বলেও অভিযোগ রয়েছে। নারায়ণগঞ্জের কয়েকটি ঘটনা যদি আমরা মনে করে দেখি তাহলে বুঝতে পারি দিনের পর দিন এই জেলার ভুয়া সাংবাদিকদের আনাগোনা কেমন বেড়েছে। পর্যালচনায় পাওয়া যায়, ২০১৬ সালের ৮ মার্চ আলোচিত একটি সংবাদ নারায়ণগঞ্জ শহরের টানবাজার এলাকায় চার মাদক কারবাবিকে আটক করেছে র‌্যাব। তাদের মধ্যে জুয়েল (৩২) নামের একজন নিজেকে সাংবাদিক পরিচয় দিলেও কোন প্রমাণ দেখাতে পারেনি। প্রেস স্টিকার লাগিয়ে চালিয়ে গেছে দীর্ঘ দিন মাদক ব্যবসা। ২০১৯ সালের ১৮ এপ্রিল এর নারয়ণগঞ্জের স্থানীয় পত্রিকাগুলোর আলোচিত সংবাদ ‘গম জসিমের ভাই কানা কামাল নারী নির্যাতন ও প্রতারণার মামলায় গ্রেফতার’। যেখানে এই কানা কামাল নারায়গঞ্জে সাংবাদিক পরিচয় দিয়ে মাদক, সন্ত্রাসী, সুদ ব্যবসায়ী, নারী লোভী, গম চুরী এবং জাল দলিল তৈরি করাসহ আরও অনেক অপকর্ম করে আসছেন বলে অভিযোগ পাওয়া যায়। সাংবাদিকতা হলো একটি সেবামূলক কাজ। নানা বিষয় বা প্রসঙ্গে দুনিয়ায় সর্বক্ষণ যে বাদানুবাদ চলেছে, সেসবের মধ্য থেকে মানুষকে কাজে লাগতে পারে, মানুষের মনে বেদনা বা সুখ-দুঃখানুভব তৈরি করতে পারে- এমন কথাবার্তা সংগ্রহ, যাচাই-বাছাই সেরে প্রতিবেদন তৈরি ও পরিবেশনার সেবামূলক কাজটিই হচ্ছে সাংবাদিকতা। সাংবাদিকতার বৈশিষ্ট্যগুলোর মধ্যে আমরা সাংবাদিকতাকে খুঁজে নিতে পারি। লোকসেবা, বস্তুনিষ্ঠতা, তাৎক্ষণিকতা, প্রায় সুনির্দিষ্ট নীতিনৈতিকতা, তথ্য উপস্থাপনের অনিবার্যভাবে আকর্ষণীয় প্রক্রিয়া, শুধু গুরুত্বপূর্ণ তথ্য, তথ্যগুলোর সর্বাত্মকতা ও আনুপাতিক যথার্থতা, সুরুচি ইত্যাদি বৈশিষ্ট্য সাংবাদিকতার পরিচয় বহন করে। এর ব্যতিক্রম ঘটলে বুঝতে হবে তা ভুয়া বা হলুদ সাংবাদিকতা। বিশিষ্টজনের মতে জানা যায়, নারায়ণগঞ্জের পেশাদার সাংবাদিকদের মর্যাদা ধরে রাখতে হলে সকল সচেতন সাংবাদিক, পুলিশ-প্রশাসন, নানা শ্রেনী পেশার মানুষ এবং সমাজের সচেতন বিবেকবান মানুষদেরকে এগিয়ে আসা উচিৎ। যাতে নারায়ণগঞ্জের ভুয়া বা হলুদ সাংবাদিকতার শেষ এখানেই হয় এবং নারায়ণগঞ্জ দৃষ্টান্ত হয়ে থাকে বাংলাদেশের সকল মানুষের কাছে। তবে সাধারণ মানুষের অনেকেই বলছেন, বর্তমানে যারা সাংবাদিকতার সাথে জড়িত নারায়ণগঞ্জে, তাদের বেশির ভাগই শিক্ষিত। তবে অনেকের শিক্ষাগত যোগ্যতা নিয়ে রয়েছে যথেষ্ট সন্ধেহ।

Comment Heare

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *