Home » শেষের পাতা » মেয়াদি সুদের ফাঁদে জিম্মি হত-দরিদ্র জনগোষ্ঠী

না’গঞ্জ এখন যানজটের নগরী

২৭ নভেম্বর, ২০২১ | ১০:৫৫ পূর্বাহ্ণ | ডান্ডিবার্তা | 113 Views

ডান্ডিবার্তা রিপোর্ট

‘চাষাঢ়া গোল চত্ত্বর থেকে শিব মার্কেট যেতে যেখানে সময় লাগে ১০ থেকে ১৫ মিনিট। কিন্তুসেই রাস্তা যেতে এখন সময় লাগে এক ঘণ্টার মত। ধুলাবালিতে যানজটে বসে থেকে অতিষ্ঠ যাত্রীরা। ‘এমন যানজট কিন্তু রাস্তায় একজন পুলিশও দেখা পাওয়া যায়না যে যানজট নিরসনে চেষ্টা করছে।’ শুধু লিঙ্ক রোড নয়, পুরো শহরটাই যেন এখন যানজটের নগরী। শহরের প্রধান প্রধান সড়কে যেখানে সেখানে গড়ে উঠেছে ইজিবাইক ও সিএনজির অবৈধ স্ট্যান্ড। এমনকি অলিগলিতেও ব্যাটারী চালিত রিকশার জটলায় নগরবাসীর প্রয়োজনীয় ঘন্টার পর ঘন্টা সময় কেড়ে নিচ্ছে এই যানজট। অথচ সদর থানা কর্তৃপক্ষ এ ব্যপারে যেন দর্শকের ভুমিকা পালন করে চলেছে। সরেজমিনে চাষাঢ়া গোল চত্ত্বর থেকে জেলা পরিষদ পর্যন্ত গিয়ে দেখা গেছে, যানবাহনের লম্বা লাইন। অটোরিকশা, সিএনজি, রিকশা, ব্যাটারি চালিত রিকশা, বাস, ট্রাক, কাভার্ডভ্যান ধীরগতিতে চলছে। একটু এগিয়ে যেতেই আবারও থেমে যাচ্ছে। আবার ৫ থেকে ১০ মিনিট গাড়ির ইঞ্জিন বন্ধ করে বসে আছে। রাস্তার ফুটপাতের উপর দিয়ে মোটরসাইকেলগুলো চলাচল করছে। এতে করে রাস্তা ধুলাবালিতে কুয়াশার মতো ঢেকে যায়।’ অটোরিকশা চালক মহসিন বলেন, ‘শিবু মার্কেট থেকে থেমে থেমে আসছি। ঢাকামুখী রাস্তায় যানজট বেশি। এ রাস্তায় তো গাড়ি বন্ধ করে বসে আছে জেলা পরিষদের সামনে।’ এর মধ্যে অনেকেই বলেন, ‘রাস্তা মেরামতের কাজ করার জন্য গাড়িগুলো ধীরগতিতে চলছে।’ তবে রাস্তা মেরামত করতে দেখা যায়নি।’এছাড়া রাস্তার পাশের কয়েকজন দোকানদার বলেন, ‘আদালতে একজন আসামিকে আনায় কঠোর নিরাপত্তা দিতে অনেগুলো গাড়ি ঢুকেছে। আর বিএনপির কর্মসূচি ছিল। বিএনপির নেতারা মিছিল করে গিয়েছে। এসব কারণে রাস্তায় যানজট সৃষ্টি হয়।’ বাসের যাত্রী মাহাদি হাসান বলেন, ‘চাষাঢ়া থেকে বাসে উঠছি আধা ঘণ্টা হয়ে গেছে জেলা পরিষদই পার হতে পারি নাই। বসে আছি তো আছিই। গাড়ি চলে তো, চলে না। কিসের থেকে যানজট কেউ কিছু বলতে পারছে না। একটা ট্রাফিক পুলিশও নেই যে যানজট নিরসন করবে।’ এসময় জেলা পরিষদের পরিদর্শক কামরুল বলেন,‘সস্তাপুর এলাকার সামনে ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ লিংক রোডে একটি গাড়ি বিকল হয়ে যায়। যারজন্য ঢাকামুখী রাস্তায় যানজট সৃষ্টি হয়েছে। আর নারায়ণগঞ্জ ঢুকতে এবিসি ইন্টার ন্যাশনাল স্কুলের সামনে কয়েকটি গাড়ি এসে এলোপাথাড়ি ভাবে পরীক্ষার্থীদের নামাতে গিয়ে যানজট সৃষ্টি করে। আমাদের রেকার গিয়ে সেই গাড়িটা সরিয়ে দিচ্ছে। আশা করি আধা ঘণ্টার মধ্যে যানজট শেষ হয়ে যাবে।’ শহরের যানজটের অন্যতম কারণ সিটি করপোরেশন মীর জুমলা সড়কটি অঘোষিত ভাবে বন্ধ করে সেখানে বাজার বসিয়েছে। ফলে এই সড়ক থেকে প্রায় লাখ টাকা চাঁদাবাজি হচ্ছে প্রতিদিন। এ ব্যপারে পুলিশ সুপার জায়েদুল আলম বলেন, যানজট নিরসনে আমরা তৎপর। তবে এ ব্যপারে নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনর সহযোগিতা ছাড়া স্থায়ী ভাবে এ সমস্যার সমাধান সম্ভব নয়।

 

 

Comment Heare

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *