Home » প্রথম পাতা » শ্রী কৃষ্ণের জন্মাষ্টমী আজ

নাসিকে আসছে ৬৭৭ কোটি টাকার বাজেট

০২ আগস্ট, ২০২২ | ২:৫৩ অপরাহ্ণ | ডান্ডিবার্তা | 45 Views

ডান্ডিবার্তা রিপোর্ট নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের আগামী অর্থবছরের বাজেটের প্রস্তুতি প্রায় শেষ। এই বাজেট হবে নাসিক মেয়র সেলিনা হায়াৎ আইভীর তৃতীয় মেয়াদে এগারোতম বাজেট। ২০১২ সালে নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন গঠন পরবর্তী প্রথম পূর্ণাঙ্গ বাজেট ঘোষনা করা হয়। এই বাজেটের আকার ছিল ৩০৭ কোটি টাকা। এরপর সবশেষ দশম বাজেট ছিল ৬৮৮ কোটি টাকা। আগামী ২০২২-২০২৩ অর্থবছরের বাজেটের আকার প্রস্তাব করা হচ্ছে ৬৭৭ কোটি টাকা। যা গতবছরের বাজেটের তুলনায় এ বছরের বাজেট কমেছে প্রায় ১০ কোটি টাকা। নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের হিসাব বিভাগ থেকে প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী, নাসিকের এগারোতম বাজেটে নাসিকের অর্ন্তভুক্ত ২৭ টি ওয়ার্ডের অবকাঠামোগত উন্নয়নে গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে। এর মধ্যে নারায়ণগঞ্জ সিটি করেপারেশনের সর্বস্তরে নিরাপদ পানি সরবরাহের জন্য গ্রহনকৃত প্রকল্পে সর্বাধিক গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে। নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের প্রধান হিসাব রক্ষণ কর্মকর্তা হেমায়েত হোসেন ২০২২-২০২৩ অর্থবছরের বাজেট প্রসঙ্গে বলেন, নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের প্রস্তাবিত নতুন বাজেট ৬৭৭ কোটি টাকা। বাজেট ঘোষনার পূর্ববর্তী সময়ের প্রস্তুতিমূলক কার্যক্রম চলছে। শীগ্রই বাজেট ঘোষনার তারিখ জানানো হবে। তিনি আরো বলেন, গত বছর বাজেটে সেতু, কালভার্ট নির্মাণ ও পুনঃনির্মাণ, দারিদ্র্য বিমোচন, বর্জ্য ব্যবস্থাপনার সংস্কার, খেলাধুলার মানোন্নয়ন ও সড়কবাতি স্থাপন, তথ্য প্রযুক্তি, শিক্ষা, স্বাস্থ্য, খেলাধুলা, যানজট নিরসন, জলাবদ্ধতা দূরীকরণে  বিশেষ বরাদ্দ রাখা হয়েছিল। সেইসাথে নাসিক এলাকার বিভিন্ন ওয়ার্ডের রাস্তা ও ড্রেনেজ ব্যবস্থার উন্নয়নকে অগ্রাধিকার দেয়া হয়েছিল। নতুন অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটে এবারও পূর্বের ন্যায় উন্নয়ন খাতে সর্বাধিক বরাদ্দ রাখা হয়েছে। তবে নারায়ণগঞ্জ সিটি করেপারেশনের সর্বস্তরে নিরাপদ পানি সরবরাহের লক্ষ্যে বাজেটে বিশেষ অগ্রাধিকার দেওয়া হবে। ২০১১ সালে নারায়নগঞ্জ সিটি করপোরেশন গঠনের পর প্রথম বারের মতো নাসিক মেয়র নির্বাচিত হন ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী। এরপর ২০১২ সাল থেকে ১০টি বাজেট ঘোষনা করেছেন তিনি। প্রতিটি বাজেটেই ছিল গুরুত্বপূর্ণ কিছু প্রকল্প। এসকল প্রকল্প অনুযায়ী একাধিক অবকাঠামোগত উন্নয়ন হয়েছে। সেই সাথে এখনো চলমান রয়েছে একাধিক প্রকল্পের কার্যক্রম। নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের তথ্য অনুযায়ী বিগত দশটি বাজেট বিশ্লেষন করে দেখা যায়,  ২০১১ সালে ৩০ অক্টোবর সিটি করপোরেশন নির্বাচন হওয়ার পর প্রথম বাজেট ঘোষণা করেন ২০১২ সালের ২৫ জুন। ২০১২-১৩ অর্থবছরের মোট বাজেট ছিলো ৩০৭ কোটি টাকা। প্রথম বাজেট থেকে প্রায় একশ কোটি টাকা বেড়ে ২০১৩-২০১৪ অর্থবছরের দ্বিতীয় বাজেট ছিল ৪০৩ কোটি ৯২ লাখ ৮৬ হাজার ৩৭৬ টাকা। এসময়ে শহরের উন্নয়ন খাতকে ব্যাপক প্রাধান্য দেওয়া হয়। ২০১৪-২০১৫ অর্থবছরে নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের তৃতীয় বাজেটের আকার দ্বিতীয় বাজেটের মতো না বাড়লেও খানিকটা বেড়ে হয়েছিল ৪২৪ কোটি ৪ লাখ ৬৯ হাজার ৫১২ টাকা। ২০১৫-১৬ অর্থবছরের ঘোষিত পরবর্তী বাজেটের আকার তৃতীয় বাজেট থেকে অর্ধশত কোটিটারও উপরে বেড়েছিলো। এ বাজেট ছিলো ৪৮৮ কোটি ৯০ লাখ ৮৪ হাজার ৬১৭ টাকা। তবে সিটি করপোরেশনের মেয়র পদে প্রথম মেয়াদের শেষ বছরে ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভীর ঘোষিত বাজেট ছিল সেই সময়ে নাসিক বাজেটের সর্বাধিক বাজেট। যা প্রথম ঘোষিত বাজেটের দ্বিগুণ প্রায়। এই ৫ম বাজেটের আকার ছিলো ৬০১ কোটি ২০ লাখ ২৯ হাজার ৭৯১ টাকা। এদিকে দ্বিতীয় মেয়াদে মেয়র নির্বাচিত হওয়ার পর বাজেটের আকার ধারাবাহিক ভাবে আরও বৃদ্ধি পায়। ২০১৭ সালের ২৩ জুলাই তিনি দ্বিতীয় মেয়াদের প্রথম বাজেট ঘোষণা করেন।  ৫ম বাজেট থেকে অর্ধশত কোটি টাকা বেড়ে ওই বছর তিনি ৬৬৩ কোটি ৬৭ লক্ষ ৪৩ হাজার ৬২৫ কোটি টাকার বাজেট ঘোষনা করেন মেয়র আইভী। পরবর্তীতে ২০১৮-১৯ অর্থবছরে ৭১৫ কোটি ৫১ লাখ ২১ হাজার ৩৭৭ টাকা বাজেট ঘোষণা করা হয়েছিল। এ বাজেটে অবকাঠামোগত নির্মাণ ও পুনঃনির্মাণ, পরিবেশ সংরক্ষণ এবং সিটি করপোরেশনের আওতাধীন খালগুলো খননের মাধ্যমে জলাশয় এবং কঠিন বর্জ্য সংগ্রহ ও অপসারণ ব্যবস্থাপনায় বরাদ্দ রাখা হয়েছিল। নাসিকের ৮ম বাজেট ছিল নাসিকের সর্বোচ্চ বাজেট। ২০১৯-২০২০ অর্থবছরের জন্য ৮৭০ কোটি ৩৯ লাখ ৭৭ হাজার ৭৬ টাকার বাজেট ঘোষণা করেন সেলিনা হায়াৎ আইভী। এরপর থেকে প্রতি বছরই কমেছে নাসিকের বাজেট। ২০২০-২০২১ অর্থবছরে ৯ম বাজেট ছিল ৭৫৫ কোটি ৭৩ লাখ ৪৩ হাজার ১৪৪ টাকা। সবশেষ ২০২১-২০২২ অর্থবছরে সিটি কর্পোরেশনের দশম বাজেট ছিল ৬৮৮ কোটি ২৩ লাখ ১৭ হাজার ৩৫৬ টাকা। যা ৯ম বাজটের তুলনায়  প্রায় ৬৭ কোটি ৫০ লাখ ২৫ হাজার ৭৮৮ টাকা কম। তবে এই প্রতিটি বাজেটেই উন্নয়ন খাতে সর্বাধিক বরাদ্দ রাখে নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন।

Comment Heare

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *