Home » প্রথম পাতা » পদ্মা সেতু জাতির আরেক বিজয়

নাসিক ২৫নং ওয়ার্ডে দুইশত পরিবার পানিবন্দী

২২ জুন, ২০২২ | ৬:৫৫ পূর্বাহ্ণ | ডান্ডিবার্তা | 23 Views

বন্দর প্রতিনিধি

নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনে ২৫নং ওয়ার্ড সোবাড়িয়া বাজার  হতে তাওলাদ মিয়ার বাড়ির পাশে রাস্তায় যাবার পথে প্রায়  দুইশত পরিবার পানি বন্ধী। সামান্য বৃষ্টি হলেই  পানি জমে থাকে রাস্তায়।  শুধু চালাচলরত রাস্তায় নই ঘরে ঢুকে পড়ে পানি। নেই কোন ড্রেন ব্যবস্থা পানি নিস্কাশনের ব্যবস্থার কোন উদ্যোগ নিতে দেখা মিলেনি ১০ বছরেও। দেখার যেন কেউ নেই। বর্ষার মৌসুম এলে অনেক কষ্টে জীবন যাপন করেন নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনে ২৫ নং ওয়ার্ডের সোবারড়িয়া বাজারের আসলাম ও তার আশে পাশে প্রায় দুইশত পরিবার পানি বন্ধী হয়ে পড়ে। হাটু থেকে কোমর পানি নিয়ে প্রতিনিয়ত যাতায়াত করে থাকে ভুক্তভোগী পরিবার গুলো। আবুল হোসেন নামের একজন জানান সিটি করপোরেশন উন্নয়নের অপর নাম। উন্নয়নের অপর নামের চিত্র এগুলো। এখানে একটি মাত্র ড্রেন নির্মান করে দিলেই আমাদের সমস্যা সমাধান হয়ে যায়। কোথাও পানি সরতে পারে না দেখে বৃষ্টির পানি জমে ঘরে ঢুকে পড়ে। গত ১০ বছরে একটি ড্রেন নির্মাণ করেনি। স্থানীয় কাউন্সিলর এনায়েত হোসেনের ব্যাক্তি আক্রশের কারনে এ এলাকার দিকে নজর তেমন দেয় না। দেখার যেন কেউ নেই। মটর লাগিয়ে ও পানির কমানোর কোন ব্যবস্থা নেই। বহুবার ২৫নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর এনায়েত হোসেনকে বিষয়টা জানানো হলে ও কোন ফল পাইনি ভুক্তভোগী পরিবার গুলো, জমে থাকা পানি থেকে নানা রোগে আক্রান্ত হচ্ছে অনেকে।তাই মাননীয় মেয়র সেলিনা হায়াত আইভির হস্তক্ষেপ কামনা করছেন পরিবার গুলো। স্থানীয়রা জানান, যেকোন সময় যাতায়াতের এক মাত্র রাম্তা এই তাউলাদ সাবের বিল্ডিং থেকে আসলামের বাড়ি পর্যন্ত হাঁটু থেকে কোমর পর্যন্ত পানি উঠেছে। পানিতে তলিয়ে গেছে খাবার পানির ওয়াসা লাইন ও রাস্তা। সরেজমিনে  গিয়ে দেখা যায়, বৃষ্টির পানি জমে যাওয়ার সরার নেই কোন ব্যবস্থার কারনে পানি উঠে বাড়িঘর ডুবে যাচ্ছে। ২৫নং ওয়ার্ড এলাকার বাসিন্দা  আসলাম বলেন, গত ৩-৪ বছর যাবত আমরা এই পানি বন্ধী জীবন যাপন করছি আমাদের দেখার যেন কেউ নেই প্রতি  বছর পেরিয়ে গেলেও এটার কোন ব্যবস্থা নেন নি কাউন্সিলর ।পাশের বাড়ির পানি গুলো নেমে এসে বাড়িঘরে পানি ঢুকে পড়ছে। বৃষ্টির কারণে  পানি খুব বেশি রাস্তা পানির নিচে তলিয়ে যাওয়ায় চলাচল করতে হয় প্রায় দুইশত পরিবার এই পানি দিয়েই প্রবেশ ও বের হতে হয় আমাদের সকলের। তিনি আরো জানান, তবে রাতে ফের পানি বাড়তে পারে। এদিকে পানিবন্ধী হয়ে পড়া পরিবার গুলোর দেখার যেন কেউ নেই। আমরা  মেয়রের কাছে অনুরোধ করবো আপনি একটু সরজমিনে এসে দেখেন এখানে কি ভাবে পানি বন্ধি হয়ে আমরা পরিবার গুলো কষ্টে জীবন যাপন করছি আপনি তো আমাদের অভিভাবক তাই আপনি এখানে একটি ড্রেন এর ব্যবস্থা করে দিলে আমরা প্রায় দুইশত পরিবার পানি থেকে মুক্তি পাবো এমন কি স্বাস্থ্য ক্ষতি নানা রোগ আক্রান্ত থেকে মুক্তি পাবো। তাই পরিবার গুলোর প্রতাশ্যা আইভির হস্তক্ষেপ তিনি বিষয়টা একটু নজর দিলেই হবে আশা করেন ভুক্তভোগী পরিবার গুলো।

Comment Heare

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *