Home » শেষের পাতা » সোনারগাঁয়ে এক হাজার পরিবারের জন্য বিশুদ্ধ পানির ব্যবস্থা করলেন এমপি খোকা

নিজেদের বিভাজন সাংবাদিকদের উপর দোষ চাপালেন আনোয়ার হোসেন

০১ ডিসেম্বর, ২০২০ | ৭:৪৯ পূর্বাহ্ন | ডান্ডিবার্তা | 516 Views

ডান্ডিবার্তা রিপোর্ট
সভাপতির বক্তব্য শেষ হওয়ার পর আনোয়ার হোসেন বক্তব্য দিতে গিয়ে নারায়ণগঞ্জের রাজনৈতিক নেতৃত্বের কোন্দলের জন্য সাংবাদিকদের দায়ি করলেন। তবে কিভাবে সাংবাদিকরা দায়ি তার কোন ব্যখ্যা দেননি। উপস্থিত পেশাদার সাংবাদিকরা তার এই বক্তব্যে ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, আনোয়ার হোসেন নিজেদের কোন্দল আর দলীয় বিভেদ ঢাকতে সাংবাদিকদের উপর দোষ চাপালেন। অথচ শুধু দলীয় কর্মসূচি নয় বরং রাষ্ট্রিয় কর্মসূচিও আওয়ামীলীগ ও তার সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা আলাদা আলাদা ভাবে পালন করে চলেছে। সুতরাং তারা নিজেরাই যে, দলীয় বিভাজন তৈরী করে রেখেছেন এটা নারায়ণগঞ্জবাসী জানে বলে সাংবাদিক মহল মনে করে। জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি আনোয়ার হোসেন তার বক্তব্যে বলেন, সত্য-সুন্দর সমাজ গঠনে সাংবাদিকদের ভুমিকা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। কিছু কিছু সাংবাদিক, কিছু কিছু পত্রিকার ভুমিকার কারণেই আজকে নারায়ণগঞ্জের মানুষ, জনপ্রতিনিধিরা ঐক্যবদ্ধ হতে পারি না। কারণ সাংবাদিকরা একেকজন একেকজনের ভাবে লিখে, কেউ আমার পক্ষে লিখে, কেউ শামীমের পক্ষে লিখে, কেউ আইভীর পক্ষে লিখে, কিন্তু আসল যে ঘটনাটা সেই ঘটনাটা সত্যিকার ভাবে লিখে না। নারায়ণগঞ্জে হলুদ সাংবাদিকতা ভরে গেছে। এ হলুদ সাংবাদিকতার কারণে আজকে আমাদের মধ্যে অনৈক্য, বিভেদ, হানাহানি। গতকাল সোমবার বিকেলে বস্ত্র ও পাট মন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী এমপির অর্থায়নে নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাব ভবনের ষষ্ঠ তলা এবং সাংসদ নজরুল ইসলাম বাবুর অর্থায়নে নির্মিত লিফটের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। তিনি আরও বলেন, বিগত কিছুদিন পূর্বে জেলা পরিষদের একটা নামফলক ভাঙ্গা নিয়ে কিছু কিছু পত্রিকায় এমন কিছু সংবাদ ছাপানো হয়েছে যাতে একে অপরের সাথে ঝগড়ায় লিপ্ত হয়ে যায়। কিন্তু ঘটনাটা সত্যিকারভাবে প্রকাশ পায়নি। আমি বিশ্বাস করি সুন্দর সমাজ গড়তে হলে সত্য ও ন্যায়ের কোনো বিকল্প নাই। সত্য ও ন্যায় প্রতিষ্ঠা করতে গেলেই অনেক সময় অনেকের বিরাগভাজন হতে হয়। আমার একটা স্বভাব আমি সবসময় অন্যায়ের বিরুদ্ধে কথা বলি, সত্য এবং ন্যায়কে প্রতিষ্ঠার জন্য। যে কারণে অনেক সময় আমার দলের নেতাকর্মীদের সাথেও বিভেদ অনৈক্য হয়ে যায়। নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি এড. মাহাবুবুর রহমান মাসুমের সভাপতিত্বে এ উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের মেয়র ডা: সেলিনা হায়াৎ আইভী, নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসক জসিম উদ্দিন, পুলিশ সুপার মো: জায়েদুল আলম, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. আনোয়ার হোসেন, আওয়ামীলীগের জাতীয় পরিষদের সদস্য এড. আনিসুর রহমান দিপু, জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের আহবায়ক নিজামউদ্দিন, মহানগর আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জি এম আরাফাত, মডেল গ্রুপের এমডি মাসুদুজ্জামান মাসুদ প্রমূখ।

Comment Heare

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।