Home » শেষের পাতা » মেয়াদি সুদের ফাঁদে জিম্মি হত-দরিদ্র জনগোষ্ঠী

নির্বাচন ইস্যুতে দ্বিধা দ্বন্দ্বে নেতাকর্মীরা

০১ জানুয়ারি, ২০২২ | ৯:০৯ পূর্বাহ্ণ | ডান্ডিবার্তা | 62 Views

ডান্ডিবার্তা রিপোর্ট

নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন ঘিরে দ্বিধা দ্বন্দ্বে রয়েছেন স্থানীয় আওয়ামীলীগ ও বিএনপির নেতাকর্মীরা। তৈমূর আলম খন্দকারের পক্ষে স্থানীয় বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা মাঠে নামলেও কেন্দ্রীয় নেতারা এব্যাপারে কোন সিদ্ধান্ত দেয়নি। যা নিয়ে উভয় দলের সাধারণ কর্মীরা বিব্রতকর পরিস্থিতিতে রয়েছেন। এছাড়াও নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে বিএনপি নির্বাচনে আছে না নাই ? এ নিয়ে প্রশ্ন দেখা দিয়েছে। কেন্দ্রীয়ভাবে বিএনপি সকল নির্বাচন বর্জন করেছে। এখনো তারা সে অবস্থান থেকে সড়ে এসেছে বলে আনুষ্ঠানিক কোনো বিবৃতি দেয়নি। কিন্তু নারায়ণগঞ্জে বিএনপি’র চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা মেয়র পদে নির্বাচন করছেন। তার সাথে বিএনপি নেতা কর্মীরাও রয়েছে। এমনকি গত বুধবার বিএনপি’র মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর তৈমুর আলম খন্দকারকে ফোন করে জানিয়েছেন বিএনপি তার পাশে আছে। আওয়ামীলীগের নেতারা বলছেন, এত কিছুর পরেও বিএনপি নির্বাচনে নেই কিভাবে ? আবার নারায়ণগঞ্জের স্থানীয় একটি দৈনিককে রুহুল কবির রিজভী জানিয়েছেন, তৈমূর দলের সিদ্ধান্তের বাহিরে গিয়ে নির্বাচনে অংশ নিয়েছেন। তার বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেয়া হবে। এছাড়াও তৈমূর আলম খন্দকারের নির্বাচনী প্রচার, প্রচারণা না যাওয়ার জন্য নারায়ণগঞ্জ মহানগর যুবদল নেতাদের প্রতি কঠোর নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে কেন্দ্র। গতকাল শুক্রবার সকালের দিকে নারায়ণগঞ্জ মহানগর যুবদল নেতাদের ডেকে নিয়ে ওই নির্দেশনা দেয় কেন্দ্রীয় যুবদল। এদিন সকাল দশটার দিকে রাজধানীর গুলশানের একটি রেস্টুরেন্টে মহানগর যুবদলের সঙ্গে কেন্দ্রীয় যুবদল জরুরী বৈঠক করে। বৈঠকে নারায়ণগঞ্জ যুবদল নেতাদের জানানো হয়, তৈমূর আলম খন্দকার দলের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে গিয়ে নির্বাচন করছে। তার এমন আচরণে ক্ষুব্ধ বিএনপির হাই কমান্ড। এছাড়াও যে কোনো সময় তৈমূর আলম বহিষ্কার হতে পারেন বলেও বৈঠক থেকে ইংগিত দেওয়া হয়েছে। অথচ একই দিন নারায়ণগঞ্জের চাষাঢ়া, আমলাপাড়া, জামতলা, মাসদাইরসহ বিভিন্ন এলাকায় যুবদলের নেতাকর্মীরা বিশাল মিছিল নিয়ে স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা অ্যাডভোকেট তৈমূর আলম খন্দকারের পক্ষে তার প্রতীক হাতি মার্কার প্রচারণা করেছেন। ১৩ নং ওয়ার্ড যুবদলের উদ্যোগে এসময় উপস্থিত ছিলেন বিদ্রোহী মহানগর যুবদলের সহ সভাপতি রানা মুজিব, নাজমুল কবির নাহিদ, সহ সভাপতি ইউনুছ খান বিপ্লব, সহ সভাপতি রিটন দে, যুবদল নেতা মোঃ সেলিম, মোকতার হোসেন ভূইয়া, মোঃ সোহেল, রানা মুন্সিসহ অনেকেই উপস্থিত ছিলেন। অপরদিকে, আওয়ামীলীগের সহযোগী সংগঠনের কেন্দ্রীয় নেতারা মতবিনিময় সভা করে নৌকা প্রতীকের প্রার্থীকে বিজয়ী করতে মাঠে থাকার নির্দেশ দিচ্ছেন। কিন্তু এখনো অধিকাংশ নেতা আইভীর পক্ষে মাঠে নামতে দেখা যায়নি।

Comment Heare

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *