আজ: শনিবার | ২৬শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ | ১১ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ | ৯ই সফর, ১৪৪২ হিজরি | দুপুর ২:২৬

সংবাদের পাতায় স্বাগতম

প্রধানমন্ত্রীর প্রতি প্রবাসীদের পক্ষে রবিউল আলমের আকুতি

ডান্ডিবার্তা | ২৭ জুন, ২০১৯ | ১২:০৬

ডান্ডিবার্তা রিপোর্ট
২০১৯-২০ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটে রেমিটেন্সের উপর দুই শতাংশ হারে প্রণোদনা দেওয়া হয়েছে। তবে প্রস্তাবিত বাজেট নিয়ে প্রবাসীদের পক্ষে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে নানা দাবী তুলে ধরেছেন নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রবাসী কল্যান আন্তর্জাতিক পরিষদের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি রবিউল আলম। সৌদি আরবের রিয়াদ থেকে মুঠোফোনে রবিউল আলম প্রবাসীরা প্রনোদনার ১ হাজারে ২০ টাকা চায়না। প্রনোদনার জন্য যে বাজেট সরকার পাস করেছেন তার জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রী কে ধন্যবাদ জানাই এবং আমাদের দাবী সকল প্রবাসী ও দেশে ফেরত প্রবাসীদের তালিকা করে তাদের জন্য ফ্রি চিকিৎসা বিমা ও দেশ বা প্রবাসে মৃত্যু হলে ৫ লক্ষ টাকা সরকারি ভাবে অনুদান দেয়ার জন্য অনুরোধ করছি প্রবাসীদের পক্ষ থেকে। এয়ারপোর্টের এবং সকল দেশে এম্বাসির কর্মকর্তা-কর্মচারীরা যেন প্রবাসীদের সম্মানের সহিত সেবা প্রদান করে সেই ব্যাবস্থা করতে হবে। প্রনোদনার সমস্ত অর্থ দূর্নীতি মুক্ত কর্মচারী দ্বারা প্রতিমাসে অনলাইনের মাধ্যমে হিসাব প্রকাশ করতে হবে। প্রতিটা প্রবাসী ও দেশে ফেরত প্রবাসীকে প্রবাসী কল্যাণ বোডের্র সদস্য করে মেম্বারশিপ কার্ড করার সুযোগ দিতে হবে। এয়ারপোর্টে প্রবাসী রোগীদের জন্য ২৪ ঘন্টা এম্বুলেন্সের ফ্রি সার্ভিস চালু রাখতে হবে। আগামী ১ লা জুলাই হতে আমরা এই সব সেবা পেতে পাড়ি। নয়তো আমরা প্রতিটি পাসর্পোট নবায়ন করার সময় ১ লা জুলাই হতে সরকারের নির্ধারণ করা ফিস সহ ১০০ টাকা প্রবাসীদের কল্যাণে মৃত্যুর অনুদান চিকিৎসা বিমা বাবত আমাদের থেকে নেয়া হউক-সরকারের কাছে সকল প্রবাসী ভাই বোনদের পক্ষে অনুরোধ জানাচ্ছি। রবিউল আলম আরো বলেন, আগামী পহেলা জুলাই হতে এসব সেবা নিশ্চিত করতে সরকার উদ্যোগ নিবে এমন প্রত্যাশা আমাদের। তিনি বলেন, দেশের অর্থনীতির যেসব খাত নিয়ে আমরা গর্ব করতে পারি, তার একটি হচ্ছে প্রবাসীদের পাঠানো রেমিটেন্স। দেশের প্রতি টান ও ভালোবাসা সবারই থাকে। কিন্তু প্রবাসীরা সেই টান-ভালোবাসা, পরিবার-পরিজনের মায়া ত্যাগ করে পাড়ি দেন বিদেশে। একটু ভালো উপার্জনের আশায় তারা বছরের পর বছর বিদেশে পড়ে থাকেন। তাদের উপার্জনের ওপর নির্ভর করে দেশে থাকা পরিবারের ভরণপোষণ। শুধু তাই নয়, আমাদের আকাশচুম্বী চাওয়া-পাওয়ার অনেকটাই নির্ভর করে প্রবাসীদের ওপর ভরসা করে। তারা সাধ্যমতো হাসিমুখে তাদের সর্বোচ্চটুকু দিয়ে যান পরিবার ও দেশকে। তাই প্রবাসীদের কল্যানে সরকারের নজর বাড়ানোর দাবী জানাচ্ছি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *