আজ: শনিবার | ১১ই জুলাই, ২০২০ ইং | ২৭শে আষাঢ়, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ | ২০শে জিলক্বদ, ১৪৪১ হিজরী | রাত ৮:৩৪
শিরোনাম: মুক্তিযোদ্ধা আমিনুর রহমানের স্মরণ সভায় সেলিম ওসমান আমাদের রাজনীতি ‘নারায়ণগঞ্জের উন্নয়ন     মেয়রকে সেলিম ওসমান ‘আমাদের প্রয়োজন এক টেবিলে আলোচনায় বসা’     স্পটে স্পটে চলছে মাদক ব্যবসা     সোনারগাঁয়ে প্রয়াত মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য দোয়া মাহফিলে এমপি খোকা তাহাজ্জুদের নামাজ পড়ে মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য দোয়া করি     নারায়ণগঞ্জে হাট না বসানোর পরামর্শ     সোনারগাঁয়ে তিন কর্মকর্তার বদলী     বিসিএস প্রশাসন ক্যাডারে প্রথম রুহুলকে ছাত্রলীগের সংবর্ধনা     শীর্ষ নেতারা নিশ্চুপ-সুবিধাবাদীরা বেপরোয়া     গঞ্জেআলী খাল উদ্ধারে স্বস্তিতে এলাকাবাসী     নারায়ণগঞ্জে পুরনো রূপে গণপরিবহন    

সংবাদের পাতায় স্বাগতম

ফতুল্রায় কুপ্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় শালিকাকে পুড়িয়ে হত্যার চেষ্টা

ডান্ডিবার্তা | ২৪ মার্চ, ২০২০ | ১২:২৭

ডান্ডিবার্তা রিপোর্ট
ফতুল্লায় কুপ্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় শালিকার গায়ে আগুন ধরিয়ে দেয়ার অভিযোগ উঠেছে দুলাভাইয়ের বিরুদ্ধে। দগ্ধ মাহিনুর(৩৮) কে আশংকাজনক অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ণ ইউনিটে ভর্তি কিরা হয়েছে। গত রোববার রাত ৯টায় ফতুল্লা পাইলট হাই স্কুল সংলগ্ন এলাকায় এ নৃশংস ঘটনা ঘটে। অভিযুক্ত দুলাভাই নূর ইসলাম জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মীর সোহেল আলীর ব্যক্তিগত গাড়িচালক। এ ঘটনার পর থেকে সে পলাতক রয়েছে। স্থানীয়দের বরাত দিয়ে পুলিশ জানায় নুর ইসলাম তার দূরসম্পর্কের শালিকা মাহিনুরকে দীর্ঘদিন যাবত কুপ্রস্তাব দিয়ে আসছিলো। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে মাহিনুরকে নূর ইসলামের স্ত্রী হাসিনা বেগম মারধরসহ এলাকা ছাড়ার হুমকিও দেয়। পরবর্তীতে মাহিনুর তার পরিবারের লোকজনকে জানালে তারা থানায় অভিযোগ করার সিদ্ধান্ত নেন। বিষয়টি জানতে পেরে পূর্ব পরিকল্পিয় ভাবে রাত ৯টায় গার্মেন্টস থেকে মাহিনুর ফেরার পথে নুর ইসলাম জ্বালানী তেল মাহিনুরের মাথায় ও শরীরে ঢেলে দিয়ে আগুন ধরিয়ে দেয়। মাহিনূরের চিৎকারে আশপাশের লোকজন ছুটে আসলে নুর ইসলাম সেখান থেকে পালিয়ে যান। পরে স্থানীয় লোকজন আশঙ্কাজনক অবস্থায় মাহিনুরকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করান। ঘটনাস্থলে যাওয়া ফতুল্লা মডেল থানার এএসআই তারেক আজিজ জানান, এ ঘটনায় তদন্ত চলছে। পরিবারের পক্ষ থেকে অভিযোগ দায়ের করার বিষয়টি জানতে পেরেছি। যেহেতু ভুক্তভোগীর অবস্থা আশঙ্কা জনক তাই আমরা প্রথমে নূর ইসলামকে গ্রেফতারের চেষ্টা চালাচ্ছি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *