Home » প্রথম পাতা » ফতুল্লার কাশিপুরে মোস্তফার অত্যাচারে অতিষ্ট সাধারন মানুষ

ফতুল্লায় ব্যবসায়ীকে তুলে নিয়ে কুপিয়ে জখম

১৫ নভেম্বর, ২০২২ | ১১:৩৭ পূর্বাহ্ণ | ডান্ডিবার্তা | 63 Views

ডান্ডিবার্তা রিপোর্ট ফতুল্লায় রাস্তা থেকে তুলে নিয়ে রাশেদ (২৬) নামক এক ব্যবসায়ীকে পিটিয়ে ও কুপিয়ে রক্তাক্ত জখমসহ মোটর সাইকেল ছিনিয়ে নিয়ে যাওয়ার ঘটনায় মামলা হয়েছে। গত রবিবার রাতে আহত ব্যবসায়ী রাশেদের বাবা নিজাম বাদী হয়ে ১২ জনের নাম উল্লেখ্য সহ অজ্ঞাত নামা আরো ২-৩ জনকে আসামী করে ফতুল্লা মডেল থানায় মামলা দায়ের করেছে। ইতিমধ্যে এ হামলার একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। গত ৩ নভেম্বর এ হামলার ঘটনা ঘটে। ঘটনার ১০দির পর মামলা দায়ের করা হয়। মামলার আসামীরা হলো ফতুল্লা মডেল থানার পশ্চিম দেওভোগ এলাকার মৃত নুরুল ইসলাম প্রধানের পুত্র আওয়ামীলীগ নেতা জুয়েল প্রধান(৪০), মোহাম্মদ আলীর পুত্র রাজু আহম্মেদ (৩৫), এবাদুলের পুত্র আফজাল(৩০), খলিল মুন্সির পুত্র কাওসার(৩০), আবুল বাবুর্চির পুত্র সেলিম (৩০), ভোলাইলের সফর মাঝির পুত্র হীরা(৩৫), একই এলাকার অহিদ (২৫), নাহিদ(২৫), হাবিব(২৬), সোহান(২৮), বিপ্লব (২৮), ও শাসনগাওয়ের  মোঃ সম্রাট সহ অজ্ঞাতনামা আরো ২-৩ জন। মামলায় উল্লেখ্য করা হয়, অভিযুক্ত আসামীদের সাথে পূর্ব শত্রুতা ছিলো। গত ৩ নভেম্বর বিকেল চারটার দিকে বাদীর পুত্র রাশেদ ভোলাইল থেকে মোটর সাইকেল যোগে কাশিপুর যাওয়ার পথে দেওভোগ শেষ মাথা ডাচ বাংলা এটিএম বুথ এর সামনে পৌঁছানো মাত্র অভিযুক্ত আসামীরা চাপাতি, রামদা, লোহার রড, জিআই পাইপ, লাঠিসোটা সহ দেশীয় অস্ত্র নিয়ে তার গতিরোধ করে। এক পর্যায়ে তাকে জোড়পূর্বক রাস্তা থেকে তুলে ভেলাইল শান্তিনগর সেভেন মাঠে নিয়া যায়। সেখানে নিয়ে গিয়ে রাশেদকে এলোপাতাড়ি ভাবে কুপিয়ে রক্তাক্ত জখম সহ পায়ের রগ কেটে ফেলে। হামলাকারীদের কবল থেকে রক্ষা পেতে আহত রাশেদ ডাক-চিৎকার করলে স্থানীয়রা এগিয়ে এলে অভিযুক্ত আসামীরা পালিয়ে যায়। এ সময় হামলাকারীরা রাশেদের ব্যবহৃত মোটর সাইকেল ( ঢাকা মেট্রো–ল-২৪-৮৬৮১), মোবাইল ফোন ও পকেটে থাকা ৪ হাজার ৮শত টাকা নিয়ে যায়। এ বিষয়ে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ফতুল্লা মডেল থানার উপপরিদর্শক হুমায়ুন কবির(টু) জানায়, মামলা হয়েছে। অহিদ নামক মামলার এজাহার নামীয় এক আসামীকে স্থানীয় এলাকাবাসী মাসদাইর থেকে আটক করে গতকাল সোমবার বিকেলে পুলিশের নিকট সোপর্দ করেছে। জড়িত অপর আসামীদের গ্রেফতারের অভিযান অব্যহত রয়েছে।

Comment Heare

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *