Home » শেষের পাতা » মেয়াদি সুদের ফাঁদে জিম্মি হত-দরিদ্র জনগোষ্ঠী

বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযোদ্ধাদের অন্তরে ধারণ করতে হবে: লিপি ওসমান

২৭ নভেম্বর, ২০২১ | ১১:০২ পূর্বাহ্ণ | ডান্ডিবার্তা | 127 Views

ডান্ডিবার্তা রিপোর্ট

নারায়ণগঞ্জ মহিলা সংস্থার সভাপতি সালমা ওসমান লিপি বলেন, আমি সবসময় মনে করি, আমি জনগণের ক্ষুদ্র একটা অংশ। নারায়ণগঞ্জ আমার শিকড়। এ বন্দর আমার শিকড়।  আমরা যারা ১৯৭৫ সালের পরে জন্মগ্রহণ করেছি, তারা আমরা অনেকেই স্বাধীনতার সঠিক ইতিহাস জেনে বড় হইনি। বিজয়ের মাস শুরু হতে চলেছে। সুবর্ণজয়ন্তী। মুক্তিযোদ্ধারা তাকিয়ে আছে আমাদের দিকে, আমরা তাদের কথা মনে রেখেছে কিনা। তারা আমাদের স্বাধীনতা দিয়েছে। তাই শিশুদের অভিভাবকদের উচিত দেশের স্বাধীনতা সম্পর্কে জানান। কেন হয়েছে, কিভাবে যুদ্ধ হয়েছে। স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীতে আমাদের প্রতিজ্ঞা থাকবে মুক্তিযোদ্ধাদের কাছে, আমরা আমাদের বঙ্গবন্ধুকে, মুক্তিযোদ্ধাদের অন্তরে ধারণ করব। যুদ্ধ চলাকালীন সময়ে বাঙালির উপর যে অত্যাচার হয়েছে, মুক্তিযুদ্ধের ৫০ বছর পরে এখন উপলব্ধিও করতে পারবো না। মুক্তিযোদ্ধাদের ত্যাগ ও আত্মহুতির কথা ভুলা যাবে না। স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীতে আমরা যেন মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস কে অন্তরে ধারণ করি।  গতকাল শুক্রবার বন্দরের টাঙ্গাইল মডেল স্কুল এন্ড ক্যাডেট একাডেমির দ্বিতীয় প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী ও গণসংবর্ধনা অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।  তিনি শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের উদ্দেশ্যে বলেন, আপনারা আপনাদের শিশুদের সুশিক্ষিত করবেন। পড়ার জন্য শিশুদের মানসিক চাপ দিবেন না। শিশুদের সবচেয়ে বড় শিক্ষক হচ্ছে বাবা-মা, পরিবেশ তারপর স্কুল তো আছেই। এই ছোট্ট শিশুরাই একসময় বড় হবে, তাদেরকে নিয়ে আমরা এগিয়ে যাব। বাংলাদেশের উন্নয়ন হবে। এসময় উপস্থিত ছিলেন, বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের পরিচালক তানবীর আহমেদ টিটু, বন্দর থানার অফিসার ইনচার্জ দীপক চন্দ্র সাহা, নারায়ণগঞ্জ ক্লাবের সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট ফয়েজ উদ্দিন আহমেদ লাভলু, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান সানাউল্লাহ সানু, বন্দর প্রেসক্লাবের সভাপতি এড. শাহ আলী মো: পিন্টু খান প্রমুখ।

Comment Heare

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *