News

বন্দরে নরপর্দি এলাকায় সন্ত্রাসী হামলায় চারজন আহত চাঁদাবাজদের গ্রেপ্তারের দাবি এলাকাবাসীর

ডান্ডিবার্তা | 22 March, 2020 | 2:23 pm

বন্দর প্রতিনিধি
বন্দরে ২ লাখ টাকা চাঁদার দাবিতে সন্ত্রাসী হামলায় বাড়ি ঘর ভাংচুর ও একই পরিবারের ৪ জন গুরুত্বর জখমের ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের হয়েছে। গতকাল শনিবার সকালে আহত দিনমজুর আহাদ আলী মিয়া বাদী হয়ে চাঁদাবাজ সাদ্দাম, আক্তার সিজান ও মিশুসহ ৬ জনের নাম উল্লেখ্য করে বন্দর থানায় এ মামলা দায়ের করেন। তবে এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত কোন চাঁদাবাজকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি পুলিশ। চাঁদাবাজ সাদ্দাম গং কর্তৃক সন্ত্রাসী হামলায় একই পরিবারের ৪ জন আহতের ঘটনায় উক্ত এলাকায় চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে। সে সাথে নরপর্দি এলাকাবাসী অনতিবিলম্বে চাঁদাবাজ সাদ্দাম, মিশু গংদের দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তি দাবি জানিয়েছে প্রশাসনের কাছে। জানা গেছে, বন্দর উপজেলার নরর্পদি এলাকার আলী নুর মিয়ার ছেলে আহাদ আলী মিয়ার সাথে একই এলাকার জিয়াবুল ও তার ছেলে সাদ্দাম গংদের সাথে র্দীঘ দিন ধরে জমি সংক্রান্ত বিরোধ চলে আসছে। গত কদিন ধরে আহাদ আলী মিয়ার শ্যালক আব্দুস সাত্তার মিয়া তার নিজেস্ব জমি ভরাট করার জন্য ভেকু দিয়ে পাড় তৈরি করছিল। এর ধারাবাহিকতায় গত ১৬ র্মাচ সন্ত্রাসী সাদ্দাম তার পিতা জিয়াবল একই এলাকার মৃত কালা চাঁন মিয়ার ছেলে আক্তার হোসেন, মৃত নূর হক মিয়ার ছেলে এলার হোসেন তার ছেলে সিজান ও জিয়াবল মিয়ার অপর ছেলে মিশু জমি ভরাট ও পাড় করা বাবদ ২ লাখ টাকা দাবি করে। ওই সময় জমি মালিক অস্বীকৃতি জানালে এ নিয়ে তাদের মধ্যে র্তক-বির্তক হয়। ওই ঘটনার জের ধরে গত শুক্রবার দুপুরে উল্লেখিত চাঁদাবাজরা দেশিয় অস্ত্র নিয়ে হত্যার উদ্দেশ্যে আহাদ আলী বাড়িতে হামলা চালায়। ওই সময় হামলাকারিরা ব্যাপক তান্ডপ নিলা চালিয়ে ঘরের আসভাবপত্র ভাংচুর করে নগদ টাকা ও ৪ ভড়ি স্বার্ণালংকার ছিনেয়ে নেয়। ওই সময় হামলাকারিদের বাধা দিতে গিয়ে ধারালো অস্ত্রের আঘাতে আহাদ আলী (৫২) তার স্ত্রী জায়েদা বেগম (৪০) ছেলে প্রান্ত (১৮) মেয়ে সালামা বেগম (৩০) মারাত্মক ভাবে জখম হয়। আহতদের স্থানীয় এলাকায় জখম অবস্থায় উদ্ধার করে নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে প্রেরণ করে।

[social_share_button themes='theme1']

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *