আজ: রবিবার | ২৯শে নভেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ | ১৪ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ | ১৪ই রবিউস সানি, ১৪৪২ হিজরি | সকাল ৬:৫৪

সংবাদের পাতায় স্বাগতম

বসনিয়ার জঙ্গলে বাংলাদেশিসহ কয়েকশ অভিবাসী আটকা, গন্তব্য ইউরোপ

ডান্ডিবার্তা | ০২ অক্টোবর, ২০২০ | ৯:৪১

ডান্ডিবার্তা রিপোর্ট
বনের তীব্র ঠাণ্ডায় অনেকে আবার কাপড় ধুচ্ছেন বা গোসল সেরে নিচ্ছেন। দাঁত মাজছেন আগুনে পোড়া কাঠের ছাই দিয়ে। ইউরোপিয়ান ইউনিয়নে প্রবেশের সুযোগের আশায় ক্রোয়েশিয়া-বসনিয়া সীমান্তের কাছে পরিত্যক্ত কারখানা ও জঙ্গলের ভেতর আটকা পড়ে আছেন বাংলাদেশিসহ কয়েকশ অভিবাসী। হিমশীতল তীব্র ঠাণ্ডা আবহাওয়ায় তাদের পরিস্থিতি ভয়াবহ রূপ নিয়েছে বলে জানিয়েছে ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্স। রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়, বুধবার বসনিয়ার ভেলিকা ক্লাদুসা শহরে শীতের সকালে নিজেদের অস্থায়ী তাঁবুতে বাংলাদেশ, পাকিস্তান, মরক্কো ও আলজেরিয়ার অভিবাসীদের জবুথবু অবস্থায় কাঁপতে দেখা যায়। পাশেই কেউ কেউ আগুন ধরিয়ে বসেছেন। কেউ কেউ আবার অল্প পরিমাণে রান্নাও করছিলেন সেখানে। তাদের মধ্যে বাংলাদেশি মোহাম্মদ আবুল রয়টার্সের সাংবাদিককে বলেন, ‘এখানে অনেক সমস্যা। পানি, টয়লেট এবং কোনো চিকিৎসার বন্দোবস্ত নেই।’২০১৫-১৬ সালে ইউরোপের অভিবাসী সংকটের সময় বলকান পাড়ি দিয়ে অনেকে ইউরোপে ঢুকেছেন। তবে তখনও দরিদ্রতর বসনিয়াকে অভিবাসীরা এড়িয়েই গেছেন। কিন্তু ইউরোপ তাদের প্রায় সকল সীমান্ত বন্ধ করে দেওয়ার পর বসনিয়া হয়ে উঠেছে গুরুত্বপূর্ণ ট্রানজিট রুট। বসনিয়ার সীমান্ত রক্ষী বাহিনীর কর্মকর্তা আজুর স্লিভিচ রয়টার্সকে বলেন, ‘সার্বিয়া হয়ে দ্রিনা নদী পেরিয়ে আসছেন এই অভিবাসীরা আসছে। এই নদীটির প্রায়ই উত্তাল হয়ে ওঠে। ফলে নৌকা ডুবে অনেকেই মারা যায়।’বসনিয়া সীমান্তের পরিত্যক্ত ভবনটিতে আশ্রয় নেওয়া অভিবাসীদের মধ্য থেকে ৫০ জন মঙ্গলবার রাতে ক্রোয়েশিয়া সীমান্তে পার হতে রওনা হয়। এদের মধ্যে একজন চিৎকার করে বলছিলেন, ‘ইতালি, আসছি তোমার কাছে।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *