Home » শেষের পাতা » হাইকোর্টের আদেশ অমান্য করে সড়ক-মহাসড়কে চলছে চাঁদাবাজী

বিএনপি ইতিহাসকে বিকৃত করছে: কায়সার

০৯ আগস্ট, ২০২২ | ৯:৩৯ পূর্বাহ্ণ | ডান্ডিবার্তা | 35 Views

ডান্ডিবার্তা রিপোর্ট সোনারগাঁ আসনের সাবেক সাংসদ ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সিনিয়র যুগ্ম আহবায়ক আবদুল্লাহ আল কায়সার হাসনাত বলেছেন, অনেকে গর্ব করে বলে জিয়াউর রহমান স্বাধীনতার ঘোষক। জিয়াউর রহমান যতদিন জীবিত ছিলেন বিএনপির নেতাকর্মীদের মুখে শুনি নাই জিয়াউর রহমান স্বাধীনতার ঘোষক। জিয়াউর রহমান যখন মারা গেলেন নেতাকর্মীরা তাকে বিক্রি করা শুরু করলেন। উনি (জিয়াউর) নাকি স্বাধীনতার ঘোষক। জিয়াউর রহমান কখনো বলে নাই আমি স্বাধীনতার ঘোষক। কিন্তু উনার (জিয়াউরের) প্রেতাত্তারা জানে জিয়াউর রহমান স্বাধীনতার ঘোষক। বাঙ্গালী জাতিকে ভুল পথে এবং ইতিহাসকে বিকৃত করার জন্য নতুন প্রন্থা হলো বিএনপির।  গতকাল সোমবার জাতীর জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমানের সহধমীর্নি বেগম ফজিলাতুন্নেছার ৯২তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে সোনারগাঁ উপজেলা আওয়ামীলীগের উদ্যোগে মিলাদ মাঞফিল ও আলোচনায় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। ‘খালেদা জিয়া ও তারেক জিয়ার নেতৃত্বের বিএনপি ভুল পথের প্রয়াস’ মন্তব্য করে তিনি বলেন, খালেদা জিয়া ও তারেক জিয়ার নেতৃত্বে যে বিএনপি সৃষ্টি হয়েছিলো তা আগামী প্রজন্মকে ভুল পথে নেওয়ার একটি প্রয়াস এবং দু:স্বপ্ন। যেটা বাংলাদেশের মানুষের কাছে উন্মোচিত হয়েছে। আজকে বাঙ্গালি জাতি বিএনপিকে ধিক্কার জানায়। তারা বাংলাদেশের নতুন প্রজন্মকে অন্ধকারের দিকে ঠেলে দেওয়ার যে পায়তারা সৃষ্টি করেছিলেন তা ধিক্কার জানিয়েছেন জনগন। ‘বিএনপি আন্দোলনের ভয় দেখায়’ উল্লেখ কায়সার বলেন, আজকে বিএনপি বিভিন্ন আন্দোলনের কথা বলে। বিভিন্ন নতুন ইস্যু সৃষ্টি করে। রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের কারণে বিভিন্ন দেশ আজকে অর্থনৈতিক ভাবে দূর্বল। জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ আজ সাবলম্বী। বাংলাদেশ অর্থনৈতিক ভাবে মাথা উচু করে দাঁড়িয়ে আছে। আজকে বিএনপি আন্দোলনের ভয় দেখায়। বলতে চ্ইা, আন্দোলন করে আওয়ামীলীগ কিন্তু ক্ষমতায় এসেছে। বঙ্গবন্ধু ৭ কোটি মানুষকে ঐক্যবদ্ধ করে এই বাংলাকে স্বাধীন করেছে। সেই বঙ্গবন্ধুর আদর্শের কর্মীরা কিন্তু আন্দোলন করে শেখ হাসিনাকে ক্ষমতায় বসিয়েছে। আন্দোলন কিভাবে করতে হয়, আন্দোলন কিভাবে ঠেকাতে হয় এটা আওয়ামীলীগের প্রত্যেকটা নেতাকর্মীরা জানে। নেত্রীর কাজের অগ্রযাত্রায় যারা বাঁধা দিবে তাদেরকে সঠিকভবে জবাব দিবে বলে কড়া হুশিয়ারি দিয়েছেন আওয়ামীলীগের সাবেক এই সাংসদ। তিনি বলেন, ২০০৪ এর কথা আপনারা ভুলে গিয়েছেন। এই সোনারগাঁয়ে বিএনপির যারা লুটপাট করেছিলো ও জনগনের অর্থ যারা লুন্ঠন করেছিলো তাদেরকে কিন্তু এ জনগণ আওয়ামীলীগকে নিয়ে বিচ্ছিন্ন করে দিয়েছিলো। আজকে আপনারা স্বপ্ন দেখেন। আপনাদেনর নেতা কে? নেত্রী কে? কে দেশকে নেতৃত্ব দিবে এটাই তো আপনারা সঠিকভাবে বলতে পারেন না। জনগণকে ভুল পথে নেওয়ার জন্য আপনারা যে কাজ ধীরগতিতে করার চেষ্টা করছেন সেটা কখনো সফল হতে পারবে না। অন্তত সোনারগাঁয়ের বঙ্গবন্ধুর আর্দশের সৈনিকরা যতদিন জীবিত আছে আপনাদেরকে কোনোদিনও করতে দিবে না। নেত্রীর অগ্রযাত্রায় যারা বাধা দিবে তাদেরকে আমরা সঠিকভাবে জবাব দিবো।

Comment Heare

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *