Home » প্রথম পাতা » ফতুল্লার কাশিপুরে মোস্তফার অত্যাচারে অতিষ্ট সাধারন মানুষ

বিএনপি নেতাদের বিরুদ্ধে মামলায় অঙ্গসংগঠনের নিন্দা ও ক্ষোভ

০৭ সেপ্টেম্বর, ২০২২ | ৯:৪৯ পূর্বাহ্ণ | ডান্ডিবার্তা | 35 Views

ডান্ডিবার্তা রিপোর্ট নারায়ণগঞ্জ জেলা ও মহানগর বিএনপি সহ সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দদের বিরুদ্ধে প্রশাসন কর্তৃক দায়েরকৃত মামলার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে মহানগর যুবদল। গতকাল মঙ্গলবার এক বিবৃতিতে মহানগর যুবদলের আহবায়ক মমতাজ উদ্দিন মন্তু ও সদস্য সচিব মনিরুল ইসলাম সজল এই তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান। বিবৃতিতে তারা আরও উল্লেখ করেন, আমারদের শান্তিপুর্ন্য র‌্যালীতে অবৈধ সরকারের ইন্ধোনে পুলিশের লাঠি চার্জ, টিয়ারসেল, রাবার বুলেট, ইটপাটকেল নিক্ষেপ সহ গুলি করে যুবদল নেতা শাওনকে হত্যা এবং শতাধিক নেতাকর্মীদের আহত করেছে। আবারে সেই রাতের ভোট চোর সরকারের ইন্ধোনে নাটক সাজিয়ে বিএনপি নেতাকর্মীদের উপর মিথ্যা মামলা করে হয়রানীর শিকার করছে। পুলিশের মিথ্যা মামলায় জেলা বিএনপির ভারপ্রাপ্ত আহবায়ক মনিরুল ইসলাম রবি, সদস্য সচিব অধ্যাপক মামুন মাহমুদ, মহানগর বিএনপির ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সবুর খান সেন্টু, সিনিয়র সহ-সভাপতি এ্যাড. সাখাওয়াত হোসেন খান, সাংগঠনিক সম্পাদক এ্যাড. আবু আল ইউসুফ খান টিপু সহ ৭১ জনের নাম উল্লেখ ও ৫ হাজার অজ্ঞাত আসামী দিয়ে মিথ্যা মামলা দেয়া হয়েছে। সরকারের ইন্ধনে প্রশাসন ঘোলা পানিতে মাছ শিকার করতে চাইছে। এই অবৈধ সরকারকে বলে দিতে চাই প্রশাসন দিয়ে বিএনপি নেতাকর্মীদের যতই হয়রানীর শিকার করেন। শহীদ জিয়ার সৈনিকেরা গণতন্ত্র উদ্ধারের আন্দোলন থেকে পিছপা হবে না। আমরা মহানগর যুবদলের পক্ষ থেকে প্রশাসন কর্তৃক মিথ্যা মামলার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি। সেই সাথে মামলা প্রত্যাহার ও যুবদল নেতা শাওনের হত্যা বিচার দাবি করছি। এদিকে নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে মহানগর মহিলা দলের নেতৃবৃন্দ। এক বিবৃতিতে মহানগর মহিলা দলের সভানেত্রী দিলারা মাসুদ ময়না ও সাধারণ সম্পাদক আয়সা আক্তার দিনা এই তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান। বিবৃতিতে তারা আরও উল্লেখ করেন, প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে বিএনপির শান্তিপুর্ন্য র‌্যালীতে অবৈধ সরকারের ইন্ধোনে পুলিশের লাঠি চার্জ, টিয়ারসেল, রাবার বুলেট, ইটপাটকেল নিক্ষেপ সহ গুলি করে যুবদল নেতা শাওনকে হত্যা এবং শতাধিক নেতাকর্মীদের আহত করেছে। আবারে সেই রাতের ভোট চোর সরকারের ইন্ধোনে নাটক সাজিয়ে বিএনপি নেতাকর্মীদের উপর মিথ্যা মামলা করে হয়রানীর শিকার করছে। পুলিশের মামলায় জেলা বিএনপির ভারপ্রাপ্ত আহবায়ক মনিরুল ইসলাম রবি, সদস্য সচিব অধ্যাপক মামুন মাহমুদ, মহানগর বিএনপির ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সবুর খান সেন্টু, সিনিয়র সহ-সভাপতি এ্যাড. সাখাওয়াত হোসেন খান, সাংগঠনিক সম্পাদক এ্যাড. আবু আল ইউসুফ খান টিপু সহ ৭১ জনের নাম উল্লেখ ও ৫ হাজার অজ্ঞাত আসামী দিয়ে মিথ্যা মামলা দেয়া হয়েছে। আমরা মহানগর মহিলা দলের পক্ষ থেকে এই মিথ্যা মামলার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি। সেই সাথে যুবদল নেতা শাওনের হত্যা বিচার দাবি করছি। পাশাপাশি এই মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার করার জন্য দাবি জানাচ্ছি। এছাড়া তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে মহানগর ওলামা দল। এক বিবৃতিতে মহানগর ওলামা দলের সভাপতি হাফেজ মামুন ও সাধারণ সম্পাদক হাফেজ সিব্বির আহম্মেদ এবং সাংগঠনিক সম্পাদক কাইয়ুম এই তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান। বিবৃতিতে তারা আরও উল্লেখ করেন, আমারদের শান্তিপুর্ন্য র‌্যালীতে অবৈধ সরকারের ইন্ধোনে পুলিশের লাঠি চার্জ, টিয়ারসেল, রাবার বুলেট, ইটপাটকেল নিক্ষেপ সহ গুলি করে যুবদল নেতা শাওনকে হত্যা এবং শতাধিক নেতাকর্মীদের আহত করেছে। আবারে সেই রাতের ভোট চোর সরকারের ইন্ধোনে নাটক সাজিয়ে বিএনপি নেতাকর্মীদের উপর মিথ্যা মামলা করে হয়রানীর শিকার করছে। পুলিশের মামলায় জেলা বিএনপির ভারপ্রাপ্ত আহবায়ক মনিরুল ইসলাম রবি, সদস্য সচিব অধ্যাপক মামুন মাহমুদ, মহানগর বিএনপির ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সবুর খান সেন্টু, সিনিয়র সহ-সভাপতি এ্যাড. সাখাওয়াত হোসেন খান, সাংগঠনিক সম্পাদক এ্যাড. আবু আল ইউসুফ খান টিপু সহ ৭১ জনের নাম উল্লেখ ও ৫ হাজার অজ্ঞাত আসামী দিয়ে মিথ্যা মামলা দেয়া হয়েছে। সরকারের ইন্ধনে প্রশাসন ঘোলা পানিতে মাছ শিকার করতে চাইছে। এই অবৈধ সরকারকে বলে দিতে চাই প্রশাসন দিয়ে বিএনপি নেতাকর্মীদের যতই হয়রানীর শিকার করেন। শহীদ জিয়ার সৈনিকেরা গণতন্ত্র উদ্ধারের আন্দোলন থেকে পিছপা হবে না। আমরা মহানগর ওলামা দলের পক্ষ থেকে প্রশাসন কর্তৃক মিথ্যা মামলার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি। সেই সাথে মামলা প্রত্যাহার ও যুবদল নেতা শাওনের হত্যা বিচার দাবি করছি।

Comment Heare

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *