Home » প্রথম পাতা » বন্দরে নাসিম ওসমান স্বরণে যুব সংহতির দোয়া

মদনপুর বাসস্ট্যান্ডে ফুটওভারব্রিজের অভাবে জনদুর্ভোগ বাড়ছে

২৯ নভেম্বর, ২০২১ | ৯:৩৪ পূর্বাহ্ণ | ডান্ডিবার্তা | 114 Views

ডান্ডিবার্তা রিপোর্ট

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের বন্দর উপজেলার ব্যস্ততম মদনপুর চৌরাস্তা বাসস্ট্যান্ডে ফুটওভারব্রিজ না থাকায় প্রতিদিন হাজার হাজার পথচারী জীবনের ঝুঁকি নিয়ে মহাসড়ক পারাপার হচ্ছেন। পথচারীরা মহাসড়কটি পার হতে গিয়ে প্রতিনিয়ত দুর্ঘটনায় অকালেই জীবন হারাচ্ছেন। ফুটওভার ব্রিজ নির্মাণের দাবিতে মিটিং-মিছিল ও মানববন্ধনসহ নানা কর্মসূচী পালন করেও কোন সুফল পাচ্ছে না পথচারী ও স্থানীয় বাসিন্দারা। জরুরীভিত্তিতে স্থানীয় বাসিন্দারা এ স্থানে একটি ফুটওভারব্রিজ নির্মাণের দাবি জানান। জানা গেছে, মদনপুর চৌরাস্তাটি অত্যন্ত গুরুত্বপর্ণ একটি বাসস্ট্যান্ড। কেননা এ মহাসড়কটির মদনপুর বাসস্ট্যান্ড অতিক্রম করে প্রতিদিন চট্টগ্রাম বিভাগের ১১টি জেলার দূরপাল্লার যাত্রীবাহী বাসসহ নানা ধরনের যানবাহন চলাচল করছে। মহাসড়কটি সারাক্ষণ ব্যস্ত থাকায় এখানকার পথচারীদের মহাসড়কটি পার হতে গিয়ে নানা বিড়ম্বনায় পড়তে হচ্ছে। এ মহাসড়কটি বিপজ্জনক হওয়া সত্ত্বেও বিভিন্ন পেশার লোকজন জীবনের ঝুঁকি নিয়েই মহাসড়ক পারাপার হচ্ছেন। জানা যায়, মদনপুর বাসস্ট্যান্ডটি এশিয়ান হাইওয়ে সড়ক (ঢাকা বাইপাস সড়ক) ও মদনপুর-মদনগঞ্জ সড়কটি মিলিত হয়েছে। এতে মদনপুর বাসস্ট্যান্ডটি চৌরাস্তায় পরিণত হয়েছে। এশিয়ান হাইওয়ে সড়কটি মদনপুর-জয়দেব সড়ক পর্যন্ত গিয়েছে। সরেজমিন গিয়ে দেখা যায়, এ বাসস্ট্যান্ডটি দিয়ে নয়াপুর, মজমপুর, তালতলা, আড়াইহাজার, গাউছিয়া, ভুলতা, ললাটি, আন্দিরপাড়, বরাব, দেওয়ানবাগ, কেওঢালা, লাঙ্গলবন্দ, জাঙ্গাল, ধামগড়, মদনপুর, ছোট সাববাড়ি, চাঁনপুর, ফুলহর, ধামগড়, হরিপুর ও মুছাপুরসহ শতাধিক এলাকার লোকজন যাতায়াত করে। ফলে অনেকেই এ মহাসড়কটি পার হতে গিয়ে বিভিন্ন সময় সড়ক দুর্ঘটনার শিকার হচ্ছেন। এ ছাড়াও আশপাশে স্কুল-কলেজ, মাদ্রাসা, প্রাইমারী স্কুলসহ অর্ধশত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানও রয়েছে এ সকল এলাকায়। আশপাশে গার্মেন্টসসহ বহু শিল্পকারখানা, মদনপুরে ৪টি হাসপাতাল, বাজার ও মার্কেট রয়েছে। এ বাসস্ট্যান্ডটি সব সময় ব্যস্ত থাকছে। স্থানীয় দোকানদাররা জানান, এ স্থানে মহাসড়কটি পার হতে গিয়ে পূর্বে বহু পথচারী হতাহত হয়েছেন। সম্প্রতি একজন স্থানীয় সাংবাদিকও সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছেন। মদনপুর বাসস্ট্যান্ডে ফুটওভারব্রিজ নির্মাণের দাবি জানিয়ে বিভিন্ন সময় মানববন্ধনসহ বিভিন্ন কর্মসূচী পালন করা হয়। নারায়ণগঞ্জ সরকারী মহিলা কলেজের এইচএসসি পরীক্ষা সায়মা আক্তার বলেন, মদনপুর বাসস্ট্যান্ডটিতে এসে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে মহাসড়ক পার হতে হয়। জরুরী ভিত্তিতে এ স্থানে একটি ফুটওভারব্রিজ নির্মাণ করার দাবি জানাচ্ছি। নারায়ণগঞ্জ সরকারী তোলারাম কলেজের অনার্স ১ম বর্ষের ছাত্র সাইফুল ইসলাম বলেন, এ স্থানটি পার হওয়ার সময় জীবনটি হাতে নিয়ে পার হতে হয়। অথচ কর্তৃপক্ষ অদ্যাবধি এখানে একটি ফুটওভারব্রিজ নির্মাণ করেনি। এ ব্যপারে মদনপুর ইউপি চেয়ারম্যান এম এ গাজী সালাম বলেন, মদনপুরে ফুটওভার ব্রিজ অতিব জরুরী। এ সড়কটি সড়ক ও জনপদের আমাদের কিছু করার নেই। যদি ইউপির কিছু করার থাকত তবে অনেক আগেই আমরা ইউপি থেকে করে দিতাম। আমি জানি জননেত্রী শেখ হাসিনা উন্নয়নের সরকার তিনি দেশের আমুল পরির্বতন ঘটিয়েছেন। তার আমনে যত উন্নয়ন হয়েছে তা শত বছরেও এ দেশে হয়নি। আশা করি তিনি দ্রুত জনগণের জানমালের রক্ষায় মদনপুর চৌরাস্তায় ফুটওভার ব্রিজের ব্যবস্থা করবেন। এ জন্য আমি মদনপুর ইউনিয়নবাসীর পক্ষ থেকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও সড়ক ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি।

 

Comment Heare

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *